স্মৃতিপটে ২০১৭ সালের মৌলভীবাজার
প্রকাশ : ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭, ২১:৪১
স্মৃতিপটে ২০১৭ সালের মৌলভীবাজার
তানভীর আঞ্জুম আরিফ
প্রিন্ট অ-অ+

প্রত্যাশা-প্রাপ্তি, নানা সমস্যা-সম্ভাবনা, আর অপ্রাপ্তির মিল-অমিলের চলে গেল আরো একটি বছর। হিসাব নিকাশ কষে পেছন ফিরে অভিজ্ঞতা নিয়ে নতুন উদ্যমতায় সম্মুখ পানে ছুটে চলা। কেমন ছিল কেমন গেল বিগত বছর। নতুন বছরের স্বপ্ন প্রত্যাশা আর কর্মপরিকল্পনা নিয়ে এখন চুলচেরা বিচার বিশ্লেষণ চলছে অন্যদের মতো মৌলভীবাজার জেলাবাসীরও।


বছরজুড়ে ঘটে যাওয়া এমন নানা আলোচিত ঘটনা আর দুঘর্টনা তাদের স্মৃতিপটে আলোড়িত করে। পিছনের অপ্রাপ্তির বেদনা ভুলে নতুনের সন্ধানে প্রাপ্তির প্রত্যাশায়। আর বিগত বছরের প্রাপ্তির প্রেরণা চলার পথের সারথি হয়ে এগিয়ে যাওয়া।


নানা কারণে এ জেলার সুনাম ও পরিচিতি সর্বমহলে। চা, রাবার, আগর বাগান, সবুজ পাহাড়ি টিলা নানা প্রজাতির প্রাণী আর হাওরের জন্য পর্যটন শিল্পে রয়েছে এ জেলার কদর।


বছরজুড়ে ঘটে যাওয়া এমন নানা আলোচিত ঘটনা , দুঘর্টনা স্মৃতিপট ও তার পুনরাবৃত্তি।


‘শ্রীহট্ট’ ইপিজেডে লুটপাট:


প্রশাসনের সহায়তায় জালিয়াতির মাধ্যমে জায়গার দলিল ও পরচা বানিয়ে ভুয়া মালিক সেজে কোটি কোটি টাকা আত্মসাতে নামে একটি শক্তিশালী সিন্ডিকেট। এই সিন্ডিকেটে আছেন স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের দুর্নীতিবাজ কিছু কর্মকর্তা ও কর্মচারী।


মৌলভীবাজার সদর উপজেলার শেরপুরের ‘শ্রীহট্ট’ অর্থনৈতিক জোনের অধিগ্রহণকৃত ভূমির মূল্য বাবদ টাকা উত্তোলনের এমন গুরুত্বর অভিযোগ উঠেছে। প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধন পরপরই অধিগ্রহণকৃত ভূমি মালিকদের ভূমির মূল্য পরিশোধ করার জন্য ২৯২ কোটি ৫ লাখ ৬৫ হাজার ৩৭ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। কিন্তু বরাদ্ধকৃত টাকা আত্মসাতে গজিয়ে উঠে একটি প্রতারক চক্র।


বন্য ও মনু প্রকল্প নিয়ে কৃষকদের আন্দোলন :


জেলার ৩টি হাওরে প্রাকৃতিক দুর্যোগ। এমনসব নানা উল্লেখযোগ্য ঘটনাপ্রবাহের মধ্য দিয়ে কেটেছে গেল বছরটি। শত কোটি টাকার মনু নদী প্রকল্প। উদ্দেশ্য জলাবদ্ধতা ও খরায় ফসলি কৃষি জমি রক্ষা। আর প্রয়োজনীয় সেচ সুবিধার মাধ্যমে নিবিড়তা বাড়িয়ে ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধির। কিন্তু নানা কারণে পুরো প্রকল্পের কার্যক্রমই এখন আর উপকারে আসছে না কৃষকদের।


হাওরের বিপর্যয় উজানের পাহাড়ি ঢল আর টানা ভারি বৃষ্টি। এ বছর চৈত্রের অকাল বন্যায় বোরো ধানের পর মরেছে মাছ। এরপর হাঁস, জলজ প্রাণী ও উদ্ভিদ। এমন বিপর্যয় এর আগে কখনো দেখেনি এ অঞ্চলের মানুষ। এই প্রাকৃতিক দুর্যোগের পর বিপর্যস্থ হয়ে পড়ে হাওর পাড়ের বাসিন্দারা। ক্ষতিগ্রস্থ হয় নদী পাড়ের মানুষও। আকস্মিক বন্যায় নদীর পাড় ভেঙে প্লাবিত হয় তীরবর্তী গ্রাম। ধান, মাছ, সবজি, গৃহপালিত পশু আর ঘরবাড়ি হারিয়ে নিঃস্ব হয় কৃষি ও মৎস্যজীবীরা। দফায় দফায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হলেও সরকারি তরফে মেলেনি পর্যাপ্ত ত্রাণ সহায়তা -এমন অভিযোগ ভুক্তভোগীদের। মার্চ থেকে শুরু হওয়া এই দুর্যোগের দুর্ভোগ এখনো চলমান।


বর্ষায় জলাবদ্ধতা আর শীতকালে খরা। কৃষকদের দুঃখ নিবারণে গড়ে ওঠা নদীশাসনের এই প্রকল্পটি এখন যেন ফসল হানির মরণ ফাঁদ। এমন অভিযোগে প্রকল্পের আওতাধীন মৌলভীবাজার ও রাজনগর এই দুই উপজেলার ১১টি ইউনিয়নের উপকারভোগী কৃষকরা বার স্বপ্ন ভঙ্গের কারণে নানা আন্দোলন কর্মসূচি নিয়ে মাঠে ছিল সরব।


জঙ্গি আস্তনা :


জেলা শহরের বড়হাট ও খলিলপুর ইনিয়নের নাসিরপুর। দু’টি জঙ্গি আস্তনায় রুদ্ধশ্বাস অভিযানে নিহত হয় ১০ জঙ্গি। একই মালিকের দু’টি বাড়িতে আস্তানা গড়ে তুলে জঙ্গিরা। এমন খবরে অজনা শঙ্কায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন শান্তিপ্রিয় জেলাবাসী। গত ২৮ মার্চ রাত থেকে দু’টি আস্তানায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী রুদ্ধশাস অভিযান চালায় ৮২ ঘণ্টা। অভিযান শেষে দুই জঙ্গি আস্তানায় মিলে ১০টি মরদেহ।


অপারেশন ‘হিট ব্যাক’ ও ‘অপারেশন ম্যাক্সিমাস’ নিয়ে টানা তিন দিন নানা কৌতূহল আর উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় ছিলেন প্রবাসী অধ্যুষিত শান্তিপ্রিয় এ জেলার মানুষ।


বৈরী আবহাওয়ায় চা উৎপাদন ব্যাহত :


ভরা মৌসুমে বৈরী আবহাওয়া। তাই এবছর আশানুরূপ উৎপাদন নিয়ে উদ্বেগ উৎকণ্ঠায় চা শিল্পের লোকজন। গেল বছর দেশে চা উৎপাদনে চা শিল্পের ১৩৬ বছরের রেকর্ড ভঙ্গ হয়। এ বছর শুরুর দিকে এমন সম্ভাবনা আর স্বপ্ন প্রত্যাশায় উৎফুল্ল ছিলেন চা শিল্পের সংশ্লিষ্টরা। কিন্তু হঠাৎ এমন সম্ভাবনায় বিড়ম্বনা। কারণ টানা ভারি বর্ষণ, অতিবৃষ্টি, উচ্চতাপমাত্রা আর মেঘলা আবহাওয়ায় নানা রোগবালাই আর মশার উপদ্রবে ব্যাহত হচ্ছে উৎপাদন। সংশ্লিষ্টদের ধারণা এবছর উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৫ শতাংশ পিছিয়ে থাকবে।


লন্ডনে একই পরিবারে ৫ জন নিহত :


লন্ডনের গ্রেনফেল টাওয়ারে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় মৌলভীবাজারের এক পরিবারের ৭ জনের মধ্যে ৫ জন নিহত হন


৯০ বছর বয়সী কমরু মিয়া বছর খানেক ধরে সপরিবারে গ্রেনফেল টাওয়ারের একটি ফ্লাট ভাড়া নেন। তার বাড়ি মৌলভীবাজার সদর উপজেলার আখাইলকুড়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের ফৈসাউরা গ্রামে। কমরু মিয়ার দুই স্ত্রীর মধ্যে প্রথম স্ত্রী জুলেখা বিবি (৭৫) তার তিন সন্তান সুজন মিয়া (৫০) মিনা বেগম (৫২) ও রুসনা বেগমকে (৬০) নিয়ে দেশে থাকেন।


দ্বিতীয় স্ত্রী রাজিয়া বেগম (৭০) ও তিন ছেলে আব্দুল হাকিম (৩৪), আব্দুল হামিদ (৩২), আব্দুল হানিফ (২৫) ও মেয়ে হুসনা আক্তার তানিমাকে (২০) নিয়ে কমরু মিয়া থাকতেন লন্ডনে।


কুয়েতে এসি বিস্ফোরণ একই পরিবারের ৫ জনের মৃত্যু :


কমলগঞ্জের কান্দিগাঁও গ্রামের জুনেদ আহমদের স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৩৪), সন্তান জামিলা জান্নাত (১৫), ইমাদ আহমদ (১২), নাবিলা জান্নাত (১০), ফাহাদ আহমদ (৬)। জুনেদ আহমদ কুয়েতের সেনাবাহিনীতে চাকরি করতেন। কুয়েত সিটির সালমিয়াত এলাকার একটি ৫তলা ভবনে সপরিবারে থাকতেন। ১৫ অক্টোবর বিকেলে ৩য় তলায় এসির কম্পেসার বিস্ফোরণের পর গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। বাসার বারান্দাগুলোতে সোফা থাকায় আগুন ও ধোঁয়া দ্রুত পুরো বাসায় ছড়ায়। এ সময় ৫তলা থেকে সিঁড়ি বেয়ে নিচে নেমে আসার সময় তারা শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মারা যান। এ সময় জুনেদ আহমদ বাইরে থাকায় বেঁচে যান।


হাতির আক্রমণে আতঙ্ক :


রসগোল্লা নামের এক উন্মত্ত পুরুষ হাতির আক্রমণে ৩রা সেপ্টেম্বর রাতে জুড়ী উপজেলার পুটিছড়ার বাসিন্দা মঙ্গল খাড়িয়া নামক চা শ্রমিক ও ২৩ সেপ্টেম্বর কুলাউড়ার কর্মধার গনি মিয়া (৪৫) নামের এক মাহুত নিহত হন। এছাড়া ৪ঠা নভেম্বর কুলাউড়ার টিলাগাঁওয়ে পোষা মা হাতি লক্ষ্মীর আক্রমণে ইউছুফ আলী (৭০) নামের এক ব্যক্তি নিহত হন। একের পর এক হাতির আক্রমণে মানুষ মারা যাওয়ার ঘটনায় এ অঞ্চলের মানুষের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।


চালু হচ্ছে কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেলপথ :


লাতুর ট্রেন। কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেল পথের অতি পরিচিত ট্রেন। কিন্তু প্রায় ১৫ বছর থেকে এই ট্রেনটি রয়েছে বন্ধ। স্থানীয় উপকারভোগীদের দাবির প্রেক্ষিতে সংশ্লিষ্টরা একাধিকবার উদ্যোগী হলেও চালু হচ্ছে না এই রেলপথ। তবে গত ১৫ই নভেম্বর বুধবার ভারতের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি হওয়ায় নতুন করে রুটটি চালুর প্রত্যাশায় উৎফুল্ল স্থানীয়রা। রেলপথটি পরিত্যক্ত থাকায় খোয়া যাচ্ছে কোটি কোটি টাকার সম্পদ। আর যোগাযোগ বিড়ম্বনায় দুর্ভোগে ৪টি উপজেলার কয়েক লাখ মানুষ।


রাবার কাঠ ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট ও চা নিলাম কেন্দ্রের উদ্বোধন :


জীবনচক্র হারানো রাবার গাছকে জ্বালানি কাঠ হিসেবে ব্যবহার না করে আসবাবপত্রে ব্যবহারী কাঠে রূপান্তর করতে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ৩৪ কোটি টাকা ব্যয়ে স্থাপন করা হচ্ছে দেশের সর্ববৃহৎ রাবার কাঠ পেশার ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট। অপরদিকে শ্রীমঙ্গলে স্থাপিত হয় দেশের দ্বিতীয় চা নিলাম কেন্দ্র। যা ৮ই ডিসেম্বর উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এবং পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু।


জেলা আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নতুন কমিটি :


দীর্ঘ এক যুগের পর হয় জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন ও কাউন্সিল। এ কারণেই দলীয় নেতাকর্মীদের বাড়তি আনন্দ উচ্ছ্বাস ছিল দৃশ্যমান। ২৮শে অক্টোবর কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ নেছার আহমদকে সভাপতি, মিছবাউর রহমানকে সাধারণ সম্পাদক ও অ্যাডভোকেট রাধাপদ দেব সজলকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ১১ সদস্য বিশিষ্ট আংশিক জেলা কমিটি ঘোষণা করেন। এছাড়া দীর্ঘদিন পর ৪ মে নতুন জেলা কমিটি আসে যুবলীগেরও।


অপরদিকে ২৫ মে এম নাসের রহমানকে সভাপতি, মিজানুর রহমান মিজানকে সাধারণ সম্পাদক ও বকশি মিসবা উর রহমানকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে দীর্ঘদিনের কাক্ষিত মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির ৪৮ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় কমিটি।


গ্রুপ-উপগ্রুপের দ্বন্দ্বে ২ ছাত্রলীগ কর্মী খুন :


গ্রুপে নিজেদের আধিপত্য বিস্তার। আর উপগ্রুপ দিয়ে নিজেদের সক্রিয় অবস্থান জানান দেয়ার নেপথ্যের খুন হন ২ ছাত্রলীগ কর্মী। নিহত ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ আলী শাবাব গ্রুপের সক্রিয় কর্মী মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নিহত নাহিদ আহমদ মাহির সাথে ছাত্রলীগ নেতা আনিসুল ইসলাম তুষার গ্রুপের একই স্কুলের কর্মীদের মধ্যে সিনিয়র জুনিয়র নিয়ে দ্বন্দ্ব চলছিল। চলমান দ্বন্দ্ব নিরসনের কথা বলে মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ৭ ডিসেম্বর বিকেলে শাবাব ও মাহিকে ডেকে নিয়ে ছুরিকাঘাতে খুন করে তুষার ও তার গ্রুপের কর্মীরা। এমনটিই মামলার এজাহারে উল্লেখ রয়েছে। নিহত শাবাব ছিল জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের অনুসারী। রাজনৈতিক দ্বন্দ্বে এই প্রথম জোড়া খুনের ঘটনায় জেলাজুড়ে ক্ষোভ বিরাজ করছে।


এছাড়া বছর জুড়ে জেলায় অপমৃত্যু, খুন ও সড়ক দুর্ঘটনা ও ছিল উল্লেখযোগ্য।


বিবার্তা/আরিফ/সোহাগ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com