শতভাগ বর্জ্যমুক্ত ডিএনসিসি : মেয়র আতিকুল
প্রকাশ : ১৪ আগস্ট ২০১৯, ১১:০৯
শতভাগ বর্জ্যমুক্ত ডিএনসিসি : মেয়র আতিকুল
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) এলাকা শতভাগ কোরবানির পশুর বর্জ্যমুক্ত হয়েছে বলে দাবি করেছেন ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম।


মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) বিকেলে বর্জ্য অপসারণ অগ্রগতি সম্পর্কিত এক সংবাদ সম্মেলনে ডিএনসিসি মেয়র এমন দাবি করেন।


মেয়র জানান, ঈদুল আজহার প্রথমদিন থেকে ১৩ হাজার ২৩৪ টন বর্জ্য সিটি কর্পোরেশন অপসারণ করেছে। ৪৩৮টি যানবাহন ২ হাজার ৪৪৯টি ট্রিপে এ পরিমাণ বর্জ্য অপসারণ করা হয়।


তিনি বলেন, এ হিসাবের মধ্যে বিভিন্ন হাটের বর্জ্য নেয়া হয়নি। হাটের তুলনায় পশুর বর্জ্য অপসারণে প্রাধান্য দেয়ায় বেশকিছু হাটের বর্জ্য এখনো বাকি রয়েছে। সেগুলো দ্রুত অপসারণ করা হবে।


আতিকুল ইসলাম বলেন, এবার আড়াই লাখেরও বেশি পশু কোরবানি হয়। বর্জ্য অপসারণে ডিএনসিসির দুই হাজার ৪০০ কর্মীসহ নয় হাজার ৫০০ কর্মী নিয়োজিত। সকল স্তরের কর্মকর্তা কর্মচারী ও পরিচ্ছন্নতাকর্মী কাজ করে যাচ্ছেন।


সোমবার (১২ আগস্ট) বিকেল ৫টা থেকে রাত ১০টার মধ্যে ৭, ১১, ৩, ৩১ ও ১৭ (আগে পরিষ্কারের ভিত্তিতে) ওয়ার্ডের ওয়ার্ড কাউন্সিলররা নিজ নিজ ওয়ার্ড বর্জ্যমুক্ত ঘোষণা করেন। আর মঙ্গলবার সকাল ১১টা থেকে ১ টার মধ্যে সব অঞ্চল তাদের এলাকা কোরবানির পশুর বর্জ্য শূন্য বলে আমাদের অবহিত করেন।


বর্জ্য অপসারণ করা প্রথম তিনটি ওয়ার্ডকে পুরস্কার দেয়া হবে বলে জানান আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, এবার সিটি করপোরেশন নির্ধারিত স্থানে পশু কোরবানির হার আগের থেকে বেশি হয়েছে। নির্ধারিত স্থানে পশু জবাইয়ের সংখ্যা গত বছরের তুলনায় কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে। সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে কোরবানির মাংস বাসায় পৌঁছে দেয়ায় অনেকে উৎসাহিত হয়ে নির্ধারিত স্থানে কোরবানি দিয়েছেন।


এক প্রশ্নের জবাবে নির্ধারিত স্থানে পশু কোরবানির সংখ্যা মাংস পৌঁছে দেয়ার উদাহরণ দিয়ে আতিক বলেন, ‘৩ নম্বর ওয়ার্ডে নির্ধারিত স্থানে ৪০০টি পশু এবং ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ৮টি স্থানে প্রায় ৭০টি পশু জবাই করা হয়। এসব ওয়ার্ডে চার থেকে দশটি গাড়িতে করে নাগরিকদের বাসায় মাংস পৌঁছে দেয়া হয়।


অন্য যে কোনো বারের থেকে এবার বর্জ্য অপসারণ দ্রুত হয়েছে দাবি করে এজন্য নগরবাসী এবং সাংবাদিকদের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন আতিকুল ইসলাম।


সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল হাই, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. মোমিনুর রহমান মামুন, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন মঞ্জুর হোসেন প্রমুখ।



বিবার্তা/রবি

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com