ডেঙ্গুর ভয়ে বাসা ফাঁকা
প্রকাশ : ২৫ জুলাই ২০১৯, ১৮:৩৮
ডেঙ্গুর ভয়ে বাসা ফাঁকা
খলিলুর রহমান
প্রিন্ট অ-অ+

স্ত্রী ডাক্তার, স্বামী প্রকৌশলী। কিন্তু দুইজনই ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।তাদের বাসায় বসবাসকারী আরেক স্বজনও একই রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। শুধু তাই নয়, ডেঙ্গু জ্বরের ভয়ে ওই পরিবারের অন্য সদস্যরা বাসা ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছেন। রাজধানীতে এমন এক পরিবারের সন্ধান পেয়েছে বিবার্তা২৪ডটনেট।


ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্তরা হলেন, প্রকৌশলী সবুজ কুমার রায় (৩১), তার স্ত্রী ডাক্তার জয়াশ্রী দাস জয়া (৩০) ও তাদের নিকট আত্মীয় বন্দনা সরকার (৪২)। তারা সবাই রাজধানীর কাটাবন এলাকায় কনকর্ড্ টাওয়ারে বসবাস করেন। প্রকৌশলী সবুজ ঢাকা ইলেক্ট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেডে (ডেসকো) বিভাগীয় উপ প্রকৌশলী পদে কর্মরত আছেন। এছাড়া জয়াশ্রী দাস জয়া কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে শিশু বিভাগের অধীন এমডি কোর্সে (প্যাডিয়াট্রিক নিউরোলজি অ্যান্ড নিউরো ডেভেলপমেন্ট) অধ্যয়নরত।


কিন্তু গত ২১ জুলাই জ্বরে আক্রান্ত হন ডাক্তার জয়াশ্রী দাস জয়া। পরবর্তীতে ২২ জুলাই তাকে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এক পর্যায়ে চিকিৎসকরা পরীক্ষা করে ডেঙ্গু আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।


একই দিন (২২ জুলাই) বন্দনা সরকারও জ্বরে আক্রান্ত হন। পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনিও ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন বলে চিকিৎসকরা নিশ্চিত করেছেন।


এদিকে ডেঙ্গু আক্রান্ত স্ত্রীর সেবা করতে স্কয়ার হাসপাতালে অবস্থান করেছিলেন প্রকৌশলী সবুজ কুমার রায় (৩১)। কিন্তু গত মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) তিনিও জ্বরে আক্রান্ত হন। পরদিন বুধবার (২৪ জুলাই) রক্ত পরীক্ষা করে ডেঙ্গু আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেন চিকিৎসকরা। তাই তিনিও বর্তমানে স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।


এ ব্যাপারে জানতে চাইলে প্রকৌশলী সবুজ কুমার রায়ের ছোট ভাই সোহান কুমার রায় বিবার্তাকে বলেন, প্রথমে ভাবী জ্বরে আক্রান্ত হয়ে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি হন। এরপর আমাদের এক আত্মীয় জ্বরে আক্রান্ত হন। পরে তাকে ঢামেকে ভর্তি করা হয়। কিন্তু গত মঙ্গলবার আমার বড় ভাইও (সবুজ কুমার রায়) জ্বরে আক্রান্ত হয়েছেন। তাই ভাবীর সঙ্গে ভাইকেও স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


তিনি আরো জানান, ডেঙ্গু জ্বরের ভয়ে বাসা থেকে সবাইকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। এখন ওই বাসায় কেউ নেই।


প্রকৌশলী সবুজ কুমার রায়ের সহকর্মী বিভাগীয় উপ প্রকৌশলী শাকিল খান বিবার্তাকে বলেন, ডেঙ্গু জ্বরের ভয়ে সবুজের দুই সন্তান, মা ও শাশুড়ি আমার বাসায় অবস্থান করছেন। সন্তান দুটি মেয়ে। তাদের মধ্যে একজনের বয়স আড়াই বছর এবং অপরজনের বয়স সাত মাস।


উল্লেখ্য, রাজধানী ঢাকায় ডেঙ্গু রোগ মহামারি আকার ধারণ করেছে।ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগী হাসপাতালগুলোতে ভিড় করছেন। তাই হাসপাতালগুলোও পরিস্থিতি সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে।


চলতি জুলাই মাসের প্রথম ২৪ দিনে ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয় ৬ হাজার ৪২১ জন। গত ৫ দিনে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয় ২ হাজার ৬৩ জন। গড়ে প্রতিদিন ৪১৩ জনের বেশি মানুষ নতুন করে এ রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। বিবার্তাকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম।


বিবার্তা/খলিল/জাই

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanews24@gmail.com ​, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com