ছেলেধরা সন্দেহে ২ জনকে গণপিটুনি, রক্ষা করতে পুলিশ আহত
প্রকাশ : ২১ জুলাই ২০১৯, ১৮:৫৬
ছেলেধরা সন্দেহে ২ জনকে গণপিটুনি, রক্ষা করতে পুলিশ আহত
লালমনিরহাট প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

লালমনিরহাটে ছেলেধরা সন্দেহে এক মানসিক প্রতিবন্ধী নারীকে (৫০) গণপিটুনি থেকে রক্ষা করতে গিয়ে আহত হয়েছেন এক পুলিশ কর্মকর্তা।


রবিবার (২১ জুলাই) সকালে লালমনিরহাট জেলা শহরের কলাবাগান কলোনী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।


লালমনিরহাটে সদর থানার ওসি মাহফুজ আলম বলেন, মানসিক ভারসাম্যহীন (পাগলী) এক বৃদ্ধা নারী জেলা শহরের কলাবাগান কলোনী এলাকায় পরিত্যক্ত রেললাইনে বসেছিলেন। এ সময় স্থানীয়রা শিশুচোর সন্দেহে তাকে গণপিটুনি দেয়। খবর পেয়ে সদর থানার পুলিশ ওই নারীকে উদ্ধার করতে গেলে স্থানীয়দের ছুড়ে মারা পাথরের আঘাতে আহত হন উপ পরিদর্শক(এসআই) জিল্লুর রহমান। পরে ওই নারীকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


আহত নারীর পরিচয় পাওয়া না গেলেও অনেকেই তাকে দীর্ঘ দিন ধরে শহরের বিভিন্ন গলিতে দেখেছেন বলে জানা গেছে।


এদিকে আদিতমারী উপজেলায় আরো এক মানসিক ভারসাম্যহীনকে ছেলেধরা সন্দেহে স্থানীয় লোকজন গণপিটুনি দেয়। পরে পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে য়ায়।


আদিতমারী উপজেলা চেয়ারম্যান ইমরুল কায়েস ফারুক বলেন, ছেলেধরা সন্দেহে যে পাগলকে লোকজন গণপিটুনি দিয়েছে। প্রকৃতই সে একজন মানসিক ভারসাম্যহীন। তার বাড়ি রংপুর জেলায়। পাগলটিকে পুলিশের নিকট থেকে নিয়ে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।


লালমনিরহাট পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হক পিপিএম জানান, অপরিচিত কাউকে কোন রুপ সন্দেহ হলে আইন হাতে তুলে না নিয়ে নিকটস্থ পুলিশকে খবর দিন। সন্দেহ হলেই কেউ অপরাধী নয়। ছেলেধরা এটা একটি গুজব মাত্র। গুজবে কান না দিতেও সকলের প্রতি আহবান জানান তিনি।


বিবার্তা/জিন্না/তাওহীদ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanews24@gmail.com ​, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com