বগুড়ায় স্ত্রী হত্যার অভিযোগ, স্বামী পলাতক
প্রকাশ : ২১ জুলাই ২০১৯, ১৫:৩৫
বগুড়ায় স্ত্রী হত্যার অভিযোগ, স্বামী পলাতক
বগুড়া প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলায় স্বামী মাসুদ রানার বিরুদ্ধে তার স্ত্রী ময়ুরী বেগমকে (২৫) শ্বাসরোধ করে হত্যার পর মরদেহ গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ উঠেছে। ময়ুরী নাটোরের পাটুল গ্রামের আনোয়ার হোসেনের মেয়ে।


রবিবার (২১ জুলাই) সকালে পুলিশ ময়ুরীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।


এদিকে এ ঘটনার পর থেকেই ময়ুরীর স্বামী মাসুদ ও তার পরিবারের সদস্যরা পলাতক আছেন। মাসুদ নন্দীগ্রাম পৌর কৃষক লীগের সদস্য বলে জানা গেছে।


পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানান, প্রায় আট বছর আগে নাটোরের পাটুল গ্রামের আনোয়ারের মেয়ে ময়ুরীর সঙ্গে নন্দীগ্রাম পৌর শহরের ওসমান গণির ছেলে মাসুদের বিয়ে হয়। তাদের সংসারে এক ছেলে ও এক মেয়ে সন্তান রয়েছে। মাসুদ দীর্ঘদিন ধরে অন্য নারীর সঙ্গে পরকীয়া, মাদকদ্রব্য সেবনসহ নানা অনৈতিক কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়েন। আর স্বামীর এসব অনৈতিক কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদ করে আসছিলেন স্ত্রী ময়ুরী। এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার (২০ জুলাই) রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বাগবিতণ্ডার একপর্যায়ে ময়ুরীকে তার স্বামী শ্বাসরোধে হত্যা করে। এরপর বিষয়টি আত্মহত্যা বলে প্রচারের জন্য তার মরদেহ বাড়ির পাশে একটি গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখে। এরপর থেকে মাসুদ ও তার পরিবারের সদস্যরা পালাতক রয়েছেন।


ময়ুরীর বাবা আনোয়ার অভিযোগ করেন, জামাইয়ের নানা ধরনের অনৈতিক কাজের প্রতিবাদ করায় মাসুদ প্রায়ই তার মেয়ে ময়ুরীকে নির্যাতন করতেন। বিষয়টি নিয়ে জামাইয়ের পরিবারের লোকজনের সঙ্গে একাধিকবার সালিশ করেও কোনো কাজ হয়নি। ফলে জামাইয়ের হাতে মেয়েকে জীবন দিতে হলো। এ ঘটনার তিনি সুষ্ঠু বিচার ও কঠোর শাস্তি চান।


নন্দীগ্রাম থানার ওসি শওকত কবির জানান, ময়ুরীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শজিমেক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে।


বিবার্তা/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanews24@gmail.com ​, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com