১০৩ টাকায় পুলিশে চাকরি পেল ঠাকুরগাঁওয়ের ৩৮ তরুণ-তরুণী
প্রকাশ : ০৮ জুলাই ২০১৯, ১৬:০৭
১০৩ টাকায় পুলিশে চাকরি পেল ঠাকুরগাঁওয়ের ৩৮ তরুণ-তরুণী
ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে মাত্র ১০৩ টাকায় ঠাকুরগাঁও জেলার প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর অতিদরিদ্র পরিবারের ৩৮জন তরুণ-তরুণী পুলিশের চাকরি পেয়েছে।


ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামানের (পিপিএম-সেবা) ব্যতিক্রমী উদ্যোগের কারণেই অবিশ্বাস্য এই নিয়োগ সম্ভব হয়েছে। লাখ লাখ টাকা ঘুষ না দিয়ে শুধু মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে পুলিশের চাকরি পাওয়া যায় এ কথাটি ঠাকুরগাঁওয়ে এখন প্রমাণিত সত্য।


জানা গেছে, পুলিশের চাকরি-প্রাপ্তদের মধ্যে ৩৮ জন অতিদরিদ্র পরিবার থেকে এসেছে। এমনকি চাকরি-প্রাপ্তদের মধ্যে এমন অনেকে রয়েছে যাদের পরিবারে দু-বেলায় দু-মুঠো খাবারো খেতে পারে না।


চাকরি পাওয়া কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, এভাবে পুলিশে চাকরি পাওয়া যায় তা কখনো তারা কল্পনাও করতে পারেননি। ফলাফলে নিজেদের নাম দেখে এবং পরবর্তীতে ফুলের তোড়া হাতে নিয়ে পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা তাদের বাড়িতে শুভেচ্ছা জানাতে গেলে অনেকেই আনন্দে-কান্নায় ভেঙে পড়েন।


এ বিষয়ে পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামান (পিপিএম-সেবা) বলেন, জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয়ে এবং প্রধানমন্ত্রীর দেয়া প্রতিশ্রুতি মোতাবেক বাংলাদেশ পুলিশের আইজিপি ড. জাবেদ পাটোয়ারীর নির্দেশে ঠাকুরগাঁওয়ে শতভাগ স্বচ্ছতা বজায় রেখে নিয়োগ পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে। যার ফলশ্রুতিতে মাত্র ১০৩ টাকা খরচ করেই এ জেলার ৩৮ জন তরুণ-তরুণী পুলিশের চাকরি পেয়েছে।


ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলার ঢাকদহ গোপালপুর এলাকার বাসিন্দা দিনমজুর ফয়সাল আবেগাপ্লুত কণ্ঠে বলেন, তার মেয়ে সুফিয়া যে পুলিশে চাকরি পাবে তা তারা কল্পনাও করেনি। কিন্তু থানা থেকে কয়েকজন পুলিশ এসে যখন তার মেয়েরে ফুলেল শুভেচ্ছা ও মিষ্টি উপহার নিয়ে বাসায় আসেন তখন তিনি বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন।


সদর উপজেলার হরিনারায়নপুর কাজিপাড়া গ্রামের বাসিন্দা শ্রমিক রেজাউল বলেন, আমার মেয়ে রোজিনার পুলিশে চাকরি হওয়ার কথা শুনে প্রথমে বিশ্বাস করতে পারি নায়। পরে ফুলহাতে নিয়ে বাসায় যখন পুলিশ আসে তখন তিনি বিশ্বাস করেন তার মেয়ে পুলিশে চাকরি হয়েছে।


গত ২৬ জুন পুলিশ কনস্টেবলের নিয়োগ প্রক্রিয়ায় প্রাথমিক মাঠ পরীক্ষায় প্রায় তিন হাজার পরীক্ষার্থী অংশ নেয়। শারীরিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয় ৫০৩ জন। এখান থেকে লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয় ১৮৩ জন। সর্বশেষ চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ১৯ জন পুরুষ ও ১৯ জন নারী মোট ৩৮ পরীক্ষার্থী পুলিশের কনস্টেবল পদে নিয়োগ পায়।


বিবার্তা/বিধান/তাওহীদ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

বি-৮, ইউরেকা হোমস, ২/এফ/১, 

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com