লাইনচ্যুত ট্রেনটি উদ্ধারে কাজে বিজিবি ও ফায়ার সার্ভিসের ১৩টি ইউনিট
প্রকাশ : ২৪ জুন ২০১৯, ০৪:৫৭
লাইনচ্যুত ট্রেনটি উদ্ধারে কাজে বিজিবি ও ফায়ার সার্ভিসের ১৩টি ইউনিট
মৌলভীবাজার প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

সিলেট থেকে ঢাকাগামী আন্তঃনগর উপবন এক্সপ্রেস মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় দুর্ঘটনার কবলে পড়েছে। বরমচাল রেলক্রসিং এলাকায় ট্রেনটি লাইনচ্যুত হয়ে এর বেশ কয়েকটি বগি নিচে ছিটকে পড়ে অন্তত পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। তবে আরেকটি সূত্র বলছে, নিহতের সংখ্যা সাত। আহত হয়েছেন ২৫০ জনেরও বেশি যাত্রী।


রবিবার রাত পৌনে ১২টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে। ট্রেন দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত ৯ জনকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গুরুতর অবস্থায় রোগীদের হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার খবর শুনে ছুটে আসেন ওসমানী হাসপাতালে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও সিলেটের সিভল সার্জন হিমাংশু লাল রায়। তিনি বলেন, এ পর্যন্ত ৯ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের চিকিৎসা চলছে। আহতদের চিকিৎসা সেবা দেয়ার জন্য আমরা প্রস্তুত। নার্স চিকিৎসক পর্যাপ্ত পরিমাণ আছেন।


তিনি বলেন, ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি হওয়া নয়জনের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশংকামুক্ত। বাকিদের অবস্থা গুরুতর। তাদের চিকিৎসা চলছে।


মৌলভীবাজার ফায়ার সার্ভিসের উপ পরিচালক মজিবুর রহমান রাত দেড়টার দিকে জানিয়েছিলেন ঘটনাস্থল থেকে পাঁচজনের মৃতদেহ উদ্ধার করেছেন তারা। প্রাথমিকভাবে পাঁচটি বগি ছিটকে পড়ার খবর পাওয়া গেছে। ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছেন। তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন রেলওয়ে পুলিশ ও স্থানীয় হাজারো মানুষ।


উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে ৪৬-বিজিবি শ্রীমঙ্গলের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ শাহ জাহান আলী বিবার্তা২৪ ডটনেটকে বলেন, আমরা দুর্ঘটনার খবর শুনে পুলিশ ও দমকল বাহিনীর সদস্যদের সহযোগিতার জন্য ৩০-৪০ জনের একটি টিম উদ্ধার অভিযানে অংশ নিয়েছি। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে।


এর আগে সিলেট ও মৌলভীবাজার দমকল বাহিনীর ১৩টি ইউনিট উদ্ধারকাজে অংশ নেয়। তাদের সহযোগিতায় কাজ করছে রেলওয়ে ও পুলিশের একাধিক দল। ট্রেনের ছয়টি বগি নদীতে ছিটকে পড়ার ঘটনায় এ পর্যন্ত ৬ জনের লাশ উদ্ধারের কথা জানিয়েছে পুলিশ। এদের মধ্যে তিনজন নারী ও তিনজন পুরুষ। এ ঘটনায় আহত হয়েছে দুই শতাধিক যাত্রী।



অন্যদিকে ঘটনাস্থলে প্রায় শুরু থেকে রয়েছেন ফায়ার সার্ভিসের কুলাউড়া শাখার ইনচার্জ অপেন কুমার সিং। তিনি জানান, এখন পর্যন্ত পাঁচ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে রাত সাড়ে তিনটার দিকে ঘটনাস্থল থেকে মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) সারওয়ার আলম জানান, তারা বিভিন্ন মাধ্যমে চারজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছেন, যার মধ্যে তিনজন নারী ও একজন পুরুষ রয়েছেন।


সিলেটের সঙ্গে সারাদেশের বাস যোগাযোগ বন্ধ, যাত্রীদের ভোগান্তি


এর আগে, মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহজালাল পাঁচজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নিহতদের মধ্যে তিনজন নারী ও দুইজন পুরুষ। তবে তাৎক্ষণিকভাবে তাদের পরিচয় জানা যায়নি। আহতদের সিলেটের ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।


এসপি আরও জানান, স্থানীয় প্রশাসন ও ফায়ার সার্ভিসের সঙ্গে উদ্ধার কাজে যোগ দিয়েছে বিজিবিও। মৌলভীবাজারের ফায়ার সার্ভিসের ইউনিটসহ মোট ১৩টি ইউনিট উদ্ধার কাজে অংশ নিয়েছে। তিনি জানান, দুর্ঘটনার পর প্রথমে স্থানীয়রাই আহতদের হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে কাজে যোগ দেয় বিভিন্ন বাহিনী। তবে আলোর স্বল্পতার কারণে বগি যে দিকে উলটে পড়েছে সেইদিকে পুরোপুরিভাবে উদ্ধার কাজ চালানো যাচ্ছে না বলেও জানান তিনি।


বিবার্তা/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

বি-৮, ইউরেকা হোমস, ২/এফ/১, 

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com