মেয়াদোত্তীর্ণ খাদ্যপণ্য: রোলেক্স বেকারিকে ৬ লাখ টাকা জরিমানা
প্রকাশ : ২৫ মে ২০১৯, ১২:৫৭
মেয়াদোত্তীর্ণ খাদ্যপণ্য: রোলেক্স বেকারিকে ৬ লাখ টাকা জরিমানা
দিনাজপুর প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

দিনাজপুরে ভেজালবিরোধী অভিযানে রোলেক্স বেকারিকে ছয় লাখ টাকা জরিমানা ও প্রায় ১০ লাখ টাকার বিষাক্ত কেমিক্যাল এবং মেয়াদোত্তীর্ণ খাদ্য ধ্বংস করেছে র‌্যাব।


ভেজালবিরোধী অভিযানে অংশ হিসেবে শুক্রবার সন্ধ্যায় র‌্যাব-১৩'র একটি বিশেষ টিম ও ভ্রামমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট দিনাজপুর শহরের উপকন্ঠে বটতণীতে রোলেক্স বেকারির কারখানায় অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা করে।


র‌্যাবের ফোর্স ও ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিছুর রহমান রোলেক্স বেকারির কারখানায় প্রবেশ করে দেখেন, সেখানে ক্ষতিকারক রাসায়নিক পদার্থ ও রং ব্যবহার করে বিভিন্ন ধরনের খাদ্যদ্রব্য কেক, বিস্কুট ও লাচ্ছা সেমাইসহ বিভিন্ন পণ্য তৈরি করা হচ্ছে।


ভ্রমমাণ আদালত ২২টি পণ্যের মান না থাকায় ছয়লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড প্রদান করে। সেই সাথে প্রায় ১০ লাখ টাকার বিষাক্ত কেমিক্যাল এবং মেয়াদোত্তীর্ণ খাদ্য ধ্বংস করে।


কারখানার মালিক আশরাফুল ইসলামকে খাদ্যে বিষাক্ত কেমিক্যাল মিশ্রণ, বিষাক্ত কেমিক্যাল মজুদ ও মেয়াদ উত্তীর্ণ সেমাই মজুদ নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্যপন্য তৈরি এবং ভেজাল বেকারি পণ্য উৎপাদন বাজারজাত ও বিপণনের অভিযোগে নিরাপদ খাদ্য আইন ২০১৩ এর ৩৩ ধারা মোতাবেক নগদ ছয় লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৩ মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়।



এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানায় র‌্যাব।


তবে দিনাজপুর জেলা বেকারি মালিক সমিতির নেতারা রোলেক্স বেকারিতে ভেজালবিরোধী বিশেষ অভিযানে জরিমানায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।


এদিকে সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানিয়েছে, পবিত্র ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে দিনাজপুরে ভেজাল লাচ্ছা সেমাই এবং খাদ্য পণ্য তৈরির ধুম পড়েছে। রাসায়নিক পদার্থ, বিষাক্ত তেল এবং রং ছাড়াও ক্ষতিকর বিভিন্ন উপাদান দিয়ে দিনাজপুরে বেশকিছু মৌসুমী কারখানা ও প্রতিষ্ঠানে তৈরি হচ্ছে লাচ্ছা সেমাইসহ বিভিন্ন খাদ্যপণ্য।


দিনাজপুর জেলা বেকারি মালিক সমিতির সাবেক সভাপতি সাইফুল্লাহ বলেন, তাদের সমিতির আওতাভুক্ত বেকারিগুলোতে লাচ্ছা তৈরির ময়দা খামিরের কাজ মেশিনে করছে শ্রমিকরা। সুষ্ঠু ও স্বাস্থ্যকর পরিবেশে চলছে লাচ্ছা তৈরি ও ভাজার কাজ। অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে লাচ্ছা তৈরি করা হলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি করেছেন তিনি।


দিনাজপুর জেলা বেকারি মালিক সমিতির বর্তমান সভাপতি আইয়ুব এবং সাধারণ সম্পাদক শামীম বলেন, লাচ্ছা সেমাই তৈরির কারখানাগুলোতে স্থানীয় প্রশাসনের পাশাপাশি সমিতির পক্ষ থেকে তারাও প্রতিনিয়ত অভিযান অব্যাহত রাখছে। ক্ষতিকর উপাদান মেশানো বা অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে লাচ্ছা তৈরি করা হলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে বেকারি মালিকদের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তারা।


প্রশাসনের সহযোগিতায় তারা বেশ কয়েকটি মৌসুমী লাচ্ছা তৈরির কারখানায় হানা দিয়ে ব্যবস্থাও নিয়েছেন। প্রশাসনের সহযোগিতা পেলে দিনাজপুর জেলা বেকারি মালিক সমিতির নেতারা জেলা থেকে ভেজাল পণ্য তৈরির সব কারখানা বন্ধ করে দিতে সক্ষম হবে বলে জানান তারা।


সেই সাথে ভেজাল বিরোধী অভিযানের নামে প্রশাসন কর্তৃক প্রকৃত বেকারি মালিকদের হয়রানি না করাও আহবান জানান তারা।


বিবার্তা/শাহী/তাওহীদ/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com