মির্জাপুরে অলৌকিক অগ্নিকাণ্ড, জনমনে আতঙ্ক!
প্রকাশ : ০৯ নভেম্বর ২০১৮, ১১:৪২
মির্জাপুরে অলৌকিক অগ্নিকাণ্ড, জনমনে আতঙ্ক!
টাঙ্গাইল প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে অলৌকিকভাবে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে এলাকাবাসীর মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।


হঠাৎ করেই বিভিন্ন বস্ত্র ও ঘরে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটছে। গত ৫ দিনে প্রায় ১০-১৫ বার এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। তবে অগ্নিকাণ্ডের পর অজ্ঞাতনামা কেউ একজন ডাক দিয়ে বলেন যে, আগুন লেগেছে আগুন লেগেছে। কিন্তু ঘটনাস্থলে যাওয়ার পর আর কাউকেই খুঁজে পাওয়া যায় না বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন।


তবে বিষয়টি আশ্চর্যজনক হলেও ঘটনা সত্য। কারও লুঙ্গি, কারও কাপড় কিংবা ওড়না, বা ঘরের ভেতরে হঠাৎ করে আগুন লেগে যাচ্ছে। তবে এ ঘটনার পর বিদ্যুৎ লাইনের কোনো ত্রুটিও পাওয়া যায়নি।


ঘটনাটি ঘটেছে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার গোড়াই ইউনিয়নের ধেরুয়া গ্রামে। এ ঘটনাকে ঘিরে এলাকার মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।


প্রত্যক্ষদর্শী সীমান্ত নামের এক ব্যক্তি জানান, গত রবিবার থেকেই এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা শুরু হয় আজ পর্যন্ত পর্যায়ক্রমে বেশ কয়েকবার বড় আকারে এ ঘটনা ঘটেই চলেছে। রবিবার সকাল ৯টার দিকে ওই গ্রামের মতিয়ার রহমানের বাড়ির বারান্দায় থাকা কাপড়ে হঠাৎ আগুন লাগে। তবে সেখানে বিদ্যুৎের লাইনের কোনো তার বা বিদ্যুৎ সংক্রান্ত কোনো কিছুই পাওয়া যায়নি।


পরদিন সোমবার তোফাজ্জলের বাড়ির গোসল খানায় রাখা কাপড়ে আগুন লেগে পুড়ে ছাই হয়ে যায়। মঙ্গলবার সুজনের বাড়ির বদ্ধ ঘরে লুঙ্গিতে আগুন লাগে।


বুধবার সরজমিনে সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়েও মিলেছে একই প্রমাণ! সকালে ওড়না, দুপুরে গোসল খানায় থাকা কাপড় এবং বিকেলে করিমের ঘরে আগুন লেগে সকল কিছু পুড়ে ছাই হয়ে যায় এবং ওই রাতেই আরো একটি বাড়িতে আগুন লাগে।



বৃহস্পতিবার মতিয়ার এবং সুজনের বাড়িতেও দুইবার আগুন লাগে। অগ্নিকাণ্ডের ভয়ে রাতে বাড়িতেও থাকতে পারছেন না এলাকাবাসী।


কেনো এ আগুন লাগছে, কি বা এর রহস্য এ সকল কিছু নিয়ে এলাকাবাসী রয়েছে অত্যন্ত বিপদের সম্মুখে। তবে এ অলৌকিক আগুনের রহস্য কেউ কি উদঘাটন করতে পারবেন? আর কবেই বা এ বিপদ থেকে রক্ষা পাবে এলাকাবাসী।


গোড়াই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের (পশ্চিম) সভাপতি মজিবুর রহমান বলেন, গত কয়েকদিন ধরেই হঠাৎ করে ৪-৫টি বাড়িতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে আসছে। কিন্তু কি কারণে ঘটছে এটাও বুঝতে পারছি না। বৃহস্পতিবার রাতেও ওই বাড়িগুলোর লোকজন অন্যবাড়িতে রাত্রিযাপন করেছেন এবং আমরা মিলাদ পড়িয়েছি। এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছি।


ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার আরিফুল ইসলাম বলেন, কি কারণে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটছে তা বলা যাচ্ছে না। তবে ধারণা করা হচ্ছে পরিত্যক্ত আবর্জনা থেকে মিথেন গ্যাস সৃষ্টির মাধ্যমেও অগ্নিকাণ্ড হতে পারে। কিন্তু এটি নিশ্চিত হওয়ার জন্য অবশ্যই তদন্ত কমিটি গঠন করা প্রয়োজন।


বিবার্তা/তোফাজ্জল/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com