মাদারীপুরে বাড়ছে খাঁচায় মাছ চাষ
প্রকাশ : ১৯ জুলাই ২০১৮, ২১:৪৩
মাদারীপুরে বাড়ছে খাঁচায় মাছ চাষ
মাদারীপুর প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

মাদারীপুরের শিবচরে মুক্ত জলাশয়ে খাঁচায় মাছ চাষের জনপ্রিয়তা দিনকে দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। শিবচর উপজেলার শিরুয়াইল ইউনিয়নের আড়িয়াল খাঁ নদের একটি অংশে বড় বড় খাঁচায় চলছে মাছের চাষ।


সরেজমিনে দেখা গেছে, জেলার শিবচর উপজেলার বেশ কয়েকটি মৃতপ্রায় নদীতে দীর্ঘদিন ধরেই দেখা যাচ্ছে খাঁচায় করে মাছ চাষের এ পদ্ধতি। দিন যাচ্ছে আর বাড়ছে খাঁচার সংখ্যা। সেই সাথে বাড়ছে চাষীও।


শিবচর উপজেলার বাঁশকান্দি ইউনিয়নের শেখপুর বিলপদ্মা নদী, শিরুয়াইল ইউনিয়েনের আড়িয়াল খাঁ নদীসহ বিভিন্ন স্থানের উন্মুক্ত জলাশয়ে চলছে খাঁচায় করে মাছ চাষ। স্থানীয় বাজারে এ মাছের চাহিদাও বেশ। খেতে সুস্বাদু হওয়ায় দিন দিন বেড়ে চলেছে চাহিদা, সেই সাথে বাড়ছে মাছ চাষও।


মাছ চাষীরা জানান, স্বল্প জায়গায় খাঁচায় করে অধিক পরিমানে মাছ চাষ করা যায় এ পদ্ধতিতে। ছয় থেকে সাত মাসের মধ্যেই এ মাছ বাজারে বিক্রির উপযোগী হয়। প্রথমে একটি খাঁচা নিয়ে চাষ শুরু হলেও বর্তমানে বেড়েছে খাঁচার সংখ্যা। সেই সাথে বৃদ্ধি পেয়েছে নানা জাতের মাছের চাষও। আর এই সকল খাঁচার মাছ স্থানীয় বাজারেই বিক্রি করা হচ্ছে বলেও জানান চাষীরা।



বাশকান্দি ইউনিয়নের রুবেল ভুইয়া নামে এক মাছ চাষী জানান, প্রায় ৫/৬ লাখ টাকা খরচ করে একটি ফ্রেমের সাথে ত্রিশটি করে খাঁচা তৈরি করা হয়। প্লাস্টিকের ভাসমান ড্রামের মাধ্যমে দীর্ঘ এই খাঁচাগুলোকে ভাসিয়ে রাখা হয়। প্রতিটি খাঁচার গভীরতা ৬ ফুট, প্রস্থ ১০ ফুট এবং দৈর্ঘ্য ২০ ফুট।


প্রতিটি খাঁচাতে তিনি মনোসেক্স তেলাপিয়া মাছ চাষ করছেন। বছরের জুলাই মাসে ০.২ মি.মি. সাইজের পোনা মাছ কিনে খাঁচার মধ্যে লালন করতে শুরু করেন। পাঁচ মাসের মধ্যেই মাছ বিক্রির উপযুক্ত হয়।সাধারণত ২৫০ থেকে ৩০০ গ্রাম হলেই স্থানীয় বাজারে বিক্রি করে দেন। স্থানীয় বাজারে ১৫০ থেকে ১৮০ টাকা খুচরা মুল্যে কেজি দরে বিক্রি হয় এ মাছ।


খাঁচা পদ্ধতিতে মাছ চাষের সুবিধা জানতে চাইলে উতরাইল এলাকার মাছ চাষী এনামুল হক জানান, এ পদ্ধতিতে মাছ চাষ করতে পুকুরের প্রয়োজন হয় না। এ ধরনের জলাশয়ে একাধিক খাঁচা করে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ করা যায়। তাছাড়া খাঁচা তৈরী করতেই খরচ বেশি পড়ে যায়। তবে খাঁচা তৈরির পরে দীর্ঘদিন এই একই খাঁচা ব্যবহার করা যায়। ত্রিশটি খাঁচার মাছের জন্য প্রতিদিন এক বস্তা করে খাবার লাগে। বাজারে কিনতে পাওয়া সাধারণ মাছের খাবারই এদের দেয়া হয়।



স্থানীয়রা জানায়, মাছের বাজারে যে তেলাপিয়া মাছ পাওয়া যায় তা এই সকল খাঁচায় চাষ করা মাছ। এ মাছ আকারে তুলনামূলক বড় ও সুস্বাদু। ফলে চাহিদাও বেশি।


শিবচর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা এনামুল হক জানান, শিবচরের জলাশয়গুলোতে খাঁচা পদ্ধতিতে মাছের চাষ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। মূলত এভাবে চাষ করলে সঠিক পরিমানে নির্দিষ্ট সময়ে মাছ বাজারে বিক্রি করা যায়। এ কারণেই জনপ্রিয় হয়ে উঠছে খাঁচায় মাছের চাষ। উপজেলা মৎস্য অফিস খাঁচা পদ্ধতিতে মাছ চাষের উপর চাষীদের বিভিন্ন পরামর্শ দিয়ে আসছে।


বিবার্তা/রবিউল/সোহান

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com