রাজাপুর ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন চালু হয়নি ৪ বছরেও
প্রকাশ : ১৯ মার্চ ২০১৮, ০৪:৪৫
রাজাপুর ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন চালু হয়নি ৪ বছরেও
ঝালকাঠি প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

ঝালকাঠির রাজাপুরে নির্মাণকাজ শুরুর ৪ বছর অতিবাহিত হলেও এখনো চালু হয়নি ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন। ফলে শুষ্ক মৌসুমে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে একের পর এক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় আতঙ্কে উপজেলাবাসী। এ উপজেলার ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন চালু না থাকায় পার্শ্ববর্তী ঝালকাঠি, কাউখালি, কাঠালিয়া ও ভান্ডারিয়ার ফায়ার সার্ভিসের ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর পূর্বেই সবকিছু পুড়ে ভস্মীভূত হয়ে যায়।


ঝালকাঠি জেলার মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা রাজাপুর। এ উপজেলায় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, ২টি পেট্রোল পাম্প, ৬টি গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রির দোকান, শতাধিক পেট্রোল বিক্রির দোকান, বেকারি-হোটেল, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থাকলেও উপজেলা প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পরেও দীর্ঘদিনে ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন স্থাপন হয়নি।


বিভিন্ন সময় অগ্নিকাণ্ডে গুরুত্বপূর্ণ অফিস, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, আশ্রয় কেন্দ্র ও বসতঘর পুড়ে ভস্মীভূত হয়ে নিঃস্ব হয়ে যায় মানুষ। দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতে গেল ২০১৪ সালের জুলাই মাসে ১ কোটি ৫৫ লাখ টাকা বরাদ্দ পেয়ে উপজেলা সদরের অদূরে রাজাপুর ডিগ্রি কলেজের সামনের এলাকায় রাজাপুর ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশনের নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়। কিন্তু নির্মাণ সামগ্রীর মূল্য বৃদ্ধির ফলে বরাদ্দকৃত টাকা দিয়ে নির্মাণ কাজ পুরোপুরি সম্পন্ন করতে না পারায় কাজ শুরুর ৪ বছর অতিবাহিত হলেও ফায়ার ষ্টেশন চালু করা সম্ভব হয়নি। পুরো কাজ সম্পন্ন করতে আরো ১৫ লাখ টাকার প্রয়োজন বলে ঝালকাঠি গণপূর্ত বিভাগ সূত্রে জানা গেছে।


২০১৭ সালের প্রথম দিকে রাজাপুর ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশনের জন্য বরাদ্দকৃত একটি নতুন গাড়ি ও একটি পাম্প ঝালকাঠি ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশনে এক বছর ধরে পড়ে আছে। কিন্তু সংশ্লিষ্ট কারো রাজাপুর ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন চালুর কোনো উদ্যোগ চোখে পড়েনি। দীর্ঘদিন ধরে রাজাপুরে রাজাপুর ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন না থাকায় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ অফিস, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, আশ্রয় কেন্দ্র ও বসতঘর পুড়ে ভস্মীভূত হয়ে গেছে। আতঙ্কে রয়েছে দাহপদার্থ বিক্রির ব্যবসায়ীসহ উপজেলাবাসী।


ইউএনও আফরোজা বেগম পারুল জানান, দীর্ঘদিন ধরে রাজাপুরে ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন না থাকায় বিভিন্ন অগ্নিকাণ্ডে ব্যাপক ক্ষতির কথা স্বীকার করে ইউএনও জানালেও চলমান শুষ্কমৌসুমে ফায়ার সার্ভিস খুবই প্রয়োজন। দ্রুতই উদ্বর্তন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করে চালুর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


ঝালকাঠি ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন কর্মকর্তা মেহেদি হাসান জানান, ২০১৭ সালের প্রথম দিকে রাজাপুরের জন্য বরাদ্দকৃত একটি নতুন গাড়ি ও একটি পাম্প ঝালকাঠি ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশনে এক বছর ধরে পরে আছে।


ঝালকাঠির গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী হারুন অর রশিদ জানান, রাজাপুর ফায়ার ষ্টেশনের নির্মাণের জন্য ১ কোটি ৫৫ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। ২০১৪ সালের জুলাই মাসে নির্মাণ কাজ শুরু করলেও নির্মাণ সামগ্রীর মূল্য বৃদ্ধির ফলে বরাদ্দকৃত টাকা দিয়ে নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করা সম্ভব হয়নি। বাকি কাজ সম্পন্ন করতে আরো ১৫ লাখ টাকার প্রয়োজন। এর জন্য চাহিদা পত্র ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। বরাদ্দ পেলে কাজ সম্পন্ন করে হ্যান্ডওভার করা হবে।


জেলার গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা রাজাপুরকে অগ্নিকাণ্ডের ক্ষতির হাত থেকে রক্ষায় দ্রুতই রাজাপুর ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন চালুর দাবি উপজেলাবাসীর।


বিবার্তা/আমিনুল/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com