হাতিরঝিল হতে পারে মৌলভীবাজারের বেরি লেক
প্রকাশ : ২০ নভেম্বর ২০১৭, ১৪:৩৫
হাতিরঝিল হতে পারে মৌলভীবাজারের বেরি লেক
মৌলভীবাজার প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

চায়ের রাজধানী খ্যাত, পর্যটন নগরী দৃষ্টিনন্দন মৌলভীবাজার পৌর শহরের মাঝখানে রয়েছে ঢাকার হাতিরঝিলের মতো একটি লেক। যা স্থানীয়দের কাছে বেরি লেক নামে পরিচিত। সু-পরিকল্পনা ও কার্যকর প্দক্ষেপের মাধ্যমে ওই লেকটি হতে পারে ভ্রমণ পিপাসুদের কাছে আরো আকর্ষণীয়।


২৭৯৯ বর্গকিলোমিটার আয়তনের জেলাটির মধ্যে রয়েছে উপভোগ করার মতো নানা স্থাপনা। যেগুলো দেশ-বিদেশের পর্যটকদের প্রতিনিয়ত আকর্ষণীয় করে তুলছে।


মৌলভীবাজার পৌর শহরের সৌন্দর্যকে আরো আকর্ষণীয় করতে হলে শহরের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত বেরি লেককে হাতিরঝিলের মতো পরিকল্পিতভাবে গড়ে তুলতে হবে।


ওই লেকের আয়তন প্রায় সাড়ে ১০ কিলোমিটার। লেকটি মৌলভীবাজার পৌরসভার মালিকানাধীন। বর্তমানে মাছ চাষের জন্য পৌরসভা থেকে ইজারা দেয়া হয়েছে।


জেলায় উল্লেখ্যযোগ্য স্থাপনার মধ্যে রয়েছে বড়লেখার মাধবকুন্ড, আতর-আগর শিল্প জুড়ীর কমলা ও চায়ের বাগান, কুলাউড়ার হাকালুকি হাওর, নবাব বাড়ি, গাজীপুর চা বাগান, রাজনগরের কমলারাণীর দিঘি, রাবার বাগান, কাউয়াদিঘী হাওর, কমলগঞ্জের মাধবপুর লেক, হামহাম জলপ্রপাত, লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান এবং শ্রীমঙ্গলে একাত্তরের বধ্যভূমি, চিড়িয়াখান, বাইক্কাবিল ও গ্র্যান্ড সুলতান ফাইভ ষ্টার হোটেল।


এ বিষয়ে মৌলভীবাজার জেলা পরিবেশ সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি এবং এটিএন বাংলা ও এটিএন নিউজের স্টাফ রিপোর্টার (মৌলভীবাজার ) সৈয়দ মহসিন পারভেজ বলেন, বাংলাদেশের খুব কম শহরে এরকম জলধার লেক রয়েছে। এখানে আমরা ভাসমান রেস্তোরাঁ ও ডুবন্ত রিসোর্ট করতে পারি।


ইম্পিরিয়েল কলেজের কো-অর্ডিনেটর মোঃ সিতাব আলী বলেন, মৌলভীবাজারের সুন্দর্য বৃদ্ধি করতে বেরি লেকের বিকল্প নেই।


ফাহিজা খাতুন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা রাশেদা বেগম বলেন, ওই লেকটির উন্নয়ন করলে পর্যটক এবং শিক্ষার্থীদের মধ্যে আকর্ষণ বাড়বে। সমাজকর্মী সাদিকুর রহমান বলেন, লেকটিকে এখন বিভিন্নজন নিজেদের সুবিধা মতো ব্যবহার করছে। এভাবে এর ব্যবহার করা হলে একদিন এর সৌন্দর্য বিলীন হয়ে যাবে।


এ বিষয়ে মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র ফজলুর রহমান জানান, বেরি লেক আমাদের গর্ব ও অহংকার। কিন্তু কিছু প্রভাবশালী মহল অবৈধভাবে ওই লেক দখল করে ইমারত নির্মাণ করছে। ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে পুরো লেকটিতে সার্ভে চলছে। আশা করছি সার্ভের কাজ শেষ হলেই অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করতে পারব।


বিবার্তা/আরিফ/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com