ভারী বর্ষণে ঠাকুরগাঁওয়ের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত
প্রকাশ : ১৩ আগস্ট ২০১৭, ১৬:৫২
ভারী বর্ষণে ঠাকুরগাঁওয়ের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত
ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

দুইদিনের অবিরাম ভারী বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পানির ঢলে তলিয়ে গেছে ঠাকুরগাঁওয়ের পাঁচ উপজেলার কয়েক হাজার ঘর-বাড়ি।


শনিবার ভোর থেকে হঠাৎ প্রবল বৃষ্টির কারণে প্লাবিত ঘর-বাড়িতে প্রায় দুই শতাধিক মানুষ আটকে পড়েছে। ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় লোকজন এখন পর্যন্ত শতাধিক মানুষ উদ্ধার করেছেন বলে জানিয়েছে জেলা প্রশাসন। বাড়িতে আটককে পড়া মানুষকে উদ্ধার কাজ অব্যাহত রয়েছে। পাশাপাশি জেলা প্রশাসনের আহ্বানে সাড়া দিয়ে সেনাবাহিনী ও বিজিবিও উদ্ধার কাজে অংশ নিয়েছে।


প্লাবিত এলাকার মানুষগুলো বৃদ্ধ-শিশু, ঘর-বাড়ি, আসবাবপত্র, গবাদি পশু নিয়ে বিপাকে পড়েছেন। অনেকে রাস্তায় পাশে গবাদি পশুসহ আশ্রয় নিয়েছেন।


ঠাকুরগাঁও শহরের আশেপাশের কয়েকশোপরিবার বাড়ি-ঘর ছেড়ে উঁচু ও নিরাপদ আটটি স্থানে আশ্রয় নিয়েছেন।


শহরের প্লাবিত অঞ্চলগুলো- হঠাৎপাড়া, ডিসি বস্তি, সরকার পাড়া, খালপাড়া ও জলেশ্বরীতলা। এছাড়া সদর উপজেলার আকচা, রায়পুর, মোহাম্মদপুর, সালন্দর, শুকানপুকুরী ও বালিয়াডাঙ্গী ও রাণীংশকৈল উপজেলায় আশেপাশের অনেক এলাকার বাড়ি-ঘর এখন পানির নিচে। অনেকে বাড়িতে আটকে পড়েছেন। মানুষ বাড়ি-ঘর ছেড়ে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আশ্রয় নিয়েছেন বলে প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে।


জেলার টাঙ্গন, শুকসহ বিভিন্ন নদীর পানি বিপদ সীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। টাঙ্গন নদীর পানি বিপদ সীমার ৪০ মিলি ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।


জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়াল জানান, দুইদিনের ভারী বর্ষণে জেলার প্রায় ৩০০ ঘর বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। মানুষ নিরাপদ আশ্রয় কেন্দ্রে নেয়ার জন্য প্রশাসন ও ফায়ার সার্ভিস কাজ করছে। বাকিদের উদ্ধারের জন্য সেনাবাহিনী ও বিজিবি সহযোগীতা করছে। বর্তমানে দুর্গতদের জেলায় নিরাপদ আশ্রয় কেন্দ্রে থাকার জায়গা ও ত্রাণের ব্যবস্থা করা হয়েছে।


বিবার্তা/বিধান/মোয়াজ্জেম

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com