লালমনিরহাটে আক্রান্ত ২ শিশুর চিকিৎসায় এগিয়ে এলো লিটন
প্রকাশ : ২০ জুন ২০১৭, ০১:০০
লালমনিরহাটে আক্রান্ত ২ শিশুর চিকিৎসায় এগিয়ে এলো লিটন
জিন্নাতুল ইসলাম জিন্না, লালমনিরহাট
প্রিন্ট অ-অ+

লালমনিরহাটে ‘উইলসন ডিজিজ’ নামে বিরল রোগে আক্রান্ত একই পরিবারের দুই শিশু শিমু (১৪) ও নাহিদের (১২) চিকিৎসা সহায়তায় হাত বাড়িয়ে দিলেন এক সচিব। তিনি লালমনিরহাটের কৃতি সন্তান হলেও ঢাকা উত্তর সিটি করর্পোরেশনের মেয়র আনিসুল হকের একান্ত সচিব মিজানুর রহমান লিটন।


সম্প্রতি বিবার্তা টোয়েন্টিফোর ডটকমে সংবাদ প্রকাশের পর আক্রান্ত ওই দুই শিশুর চিকিৎসার জন্য অনেকেই সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। তবে তাদের চিকিৎসার জন্য ইতিমধ্যে ঢাকায় নিয়ে যান একই এলাকার সন্তান ঢাকা উত্তর সিটি করর্পোরেশনের মেয়র আনিসুল হকের একান্ত সচিব মিজানুর রহমান লিটন। সংবাদ প্রকাশের পরপরই তিনি লালমনিরহাটে এসে তাদের ঢাকায় নিয়ে যান। আর সেখানে তাদের চিকিৎসাও শুরু হয়েছে বলে জানান তিনি।


দুই শিশুর মা লাকী বেগম বলেন, জম্মের সময় শিমু বেগম ও নাহিদ হাসান স্বাভাবিক ছিল। তারা দু’জনেই স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত ছিল। তাদের দু’জনকে নিয়মিতভাবে পোলিও টিকা খাওয়ানো হয়েছে। তারপরেও ২০১১ সালে মেয়ে শিমু ও ২০১২ সালে ছেলে নাহিদ প্রাথমিক অবস্থায় শারীরিকভাবে দুর্বল হতে থাকে। ধীরে ধীরে তারা হেটে হেটে স্কুল যাওয়ার ক্ষমতাটুকুও হারিয়ে ফেলতে থাকে। তাদের হাত-পা চিকন ও বাকা হয়ে পড়তে থাকে। এ অবস্থায় উপায়ন্তর না পেয়ে তাদের শেষ সম্বলটুকু বিক্রি করে বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসকা নেয়ার পরেও ছেলে-মেয়েকে সুস্থ করতে পারেননি।


তাদের সন্তানদের সংবাদ বিবার্তায় প্রকাশ করলে মিজানুর রহমান লিটন আক্রান্ত দু’শিশুর চিকিৎসা সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেন। সচিব মিজানুর রহমান লিটন লালমনিরহাট সদর উপজেলার হারাটি ইউনিয়নের ফড়িংয়েরদীঘি গ্রামের কৃত্বি সন্তান।


বিবার্তায় সংবাদ প্রকাশ হলে তিনি জানতে পারেন তার নিজ এলাকার পূর্বঢাকনাই গ্রামের সৈয়দ আলীর দু’সন্তান বিরল রোগে আক্রান্ত হয়েছে। কিন্তু চিকিৎসা করার মতো কোনো সামর্থ নেই ওই পরিবারের। তাই তিনি শিমু বেগম ও নাহিদ হাসানের পরিবারের সাথে কথা বলে ঢাকাস্থ সাভার সিআরপি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসেন। বর্তমানে তাদের দু’ভাই-বোনকে চলাফেরার জন্য গাড়িও প্রদান করা হয়েছে। এখন তারা নিজ বাড়িতে থাকলেও চিকিৎকের পরার্মশ অনুয়ায়ী তাদের ওষুধ ও খরচসহ নিয়মিত খোঁজ-খবর নিচ্ছেন।


আক্রান্ত শিশুর বাবা সৈয়দ আলী বলেন, তাদের দুই সন্তানের চিকিৎসার সহযোগিতা করছেন তারই গ্রামের মিজানুর রহমান লিটন।


সম্প্রতি বিবার্তায় সংবাদ প্রকাশের পর সোমবার রোগে আক্রান্ত ওই শিশু দু’টিকে দেখতে যান লালমনিরহাটের সিভিল সার্জন ডা. আমিরুজ্জামান। পরে তিনি বিবার্তাকে বলেন, ওই শিশুদের পরীক্ষা করে এবং রোগের বর্ণনা শুনে প্রাথমিকভাবে আমাদের ধারণা হয়েছে, এটি ‘উইলসন ডিজিজ’। এ রোগটি যদি প্রাথমিক অবস্থায় চিহ্নিত করা যেত, তাহলে এটি নির্মূল করা সম্ভব হতো। ক্রোমোজম অ্যাবনরমালিটির কারণে দিনে দিনে দু’ভাই-বোনের শারীরিক অবস্থার পরিবর্তন হচ্ছে। কিন্তু বর্তমান তাদের যে শারীরিক অবস্থা, তাতে সেটি কতটুকু নির্মূল করা যাবে, তা সময়ই বলে দিতে পারবে বলে তিনি জানান।


বিবার্তা/জিন্না/পলাশ


জটিল ব্যাধিতে আক্রান্ত একই পরিবারের দুই শিশু

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (২য় তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com