দোতলা বাড়ি নির্মাণ ব্যয় মাত্র দেড় লাখ টাকা!
প্রকাশ : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ০০:১৮
দোতলা বাড়ি নির্মাণ ব্যয় মাত্র দেড় লাখ টাকা!
এইচ আর তুহিন, যশোর
প্রিন্ট অ-অ+

দোতলা বাড়ির নির্মাণ ব্যয় মাত্র দেড় লাখ টাকা! যশোর জেলা দুদকের কাছে দেয়া তথ্য বিবরণীতে অবিশ্বাস্য এ তথ্য দিয়েছেন যশোর জেলা জজ আদালতের সাবেক পেশকার এসএম আনসার আলী। এ কারণে দুুদক তার বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছে।


সম্পদের তথ্য বিবরণীতে জ্ঞাত বহির্ভূত আয় গোপন করার অভিযোগে যশোর দুর্নীতি দমন কমিশনের জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক শহিদুল ইসলাম মোড়ল বৃহস্পতিবার বিকেলে কোতোয়ালি থানায় এ মামলাটি করেন। মামলা নম্বর ৯১/৩৯/১৬.০২.১৭। মামলাটি রেকর্ড করেন এসআই মুঞ্জুরুল ইসলাম।


মামলার এজাহারে উলে­খ করা হয়েছে, এসএম আনসার আলী কেশবপুর উপজেলার গৌরীঘোনা গ্রামের নওয়াব আলীর ছেলে। তিনি বর্তমানে যশোর শহরের পোস্ট অফিস পাড়ায় বসবাস করেন। যশোর জেলা জজ আদালতের পেশকার হিসেবে তিনি দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করেছেন। কেশবপুরের আলতাপোল গ্রামে তার স্ত্রীর নামে একটি দোতলা ভবন নির্মাণ করেন। ওই ভবনের ব্যয় বিবরণীতে তিনি ১০ লাখ ৩৪ হাজার ৭৭৭ টাকা কম দেখিয়েছেন।


যশোর দুদক কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১২ সালের ২৭ জুলাই আনসার আলী দুদকে তথ্য বিবরণী দাখিল করেন। সেখানে দোতলা ভবন নির্মাণের ব্যয় ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা দেখিয়েছেন। দুদক গণর্পূত বিভাগের সহযোগিতায় ওই ভবনের নির্মাণ ব্যয় নির্ণয় করে প্রতিবেদন দাখিল করে ২০১৬ সালের ২৯ আগস্ট। সেখানে দেখা গেছে, ওই ভবণ নির্মাণে খরচ হয়েছে ১১ লাখ ৪৪ হাজার ৭৭৭ টাকা। কিন্তু এসএম আনসার আলী জ্ঞাত ব্যয় বহির্ভূত সম্পদ গোপন করে দুদকে তথ্য দিয়েছেন যা দুদক আইনের ২০০৪ সালের ২৬ (২) ও ২৭ (১) ধারা অনুযায়ী অপরাধ। এই কারণে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।


মামলার বিষয়টি সম্পর্কে কোতোয়ালি থানার ওসি ইলিয়াস হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি মুঠোফোনে বিবার্তাকে জানান, এ বিষয়ে আপনাকে কোনো তথ্য দেবো না। আপনি দুদকের সাথে কথা বলেন।


পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শহীদ আবু সরোয়ারকে মুঠোফোনে অবগত করা হলে তিনি জানান, আপনাকে পরে জানাচ্ছি। এক ঘণ্টা অপেক্ষা করার পর আবারও মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি মামলাটি রেকর্ড করা হয়েছে বলে জানান।


এদিকে যশোর দুর্নীতি দমন কমিশনের জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক শহিদুল ইসলাম মোড়ল মামলা করেছেন বলে বিবার্তাকে নিশ্চিত করেছেন। একইভাবে নিশ্চিত করেছেন মামলা রেকর্ডকারী এসআই মুঞ্জুরুল ইসলাম।


বিবার্তা/তুহিন/আকবর

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (২য় তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com