এক শিক্ষকেই চলছে বিদ্যালয়
প্রকাশ : ২৯ জানুয়ারি ২০১৭, ১৮:০২
এক শিক্ষকেই চলছে বিদ্যালয়
উত্তম কুমার হাওলাদার, কলাপাড়া
প্রিন্ট অ-অ+

একজন মাত্র শিক্ষক দিয়ে চলছে পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার ধুলাসার ইউনিয়নের বৌলতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম। শিশু শ্রেণি থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত প্রশাসনিক কাজ করে পাঠদান সম্ভব হয়ে উঠছে না প্রধান শিক্ষকের। প্রতিদিন শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ে আসলেও শিক্ষকের অভাবে পাঠদান না পেয়ে মলিন মুখে বাড়ি ফিরে যাচ্ছে। এ নিয়ে অভিভাবকদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।


বিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ১৯৭৩ সালে বৌলতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপিত হয়। বর্তমানে ১১৩ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। ২০১৩ সালে বিদ্যালয়টি রেজিষ্টার প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে সরকারি বিদ্যালয়ে হিসেবে রূপান্তরিত হয়। ২০১৬ সালে একজন শিক্ষক নিয়োগ হলেও তার অন্যত্র চাকরী হওয়ায় তিনিও যোগদান করেনি।


এর আগে ২০১৪ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত প্রধান শিক্ষক ও একজন সহকারী শিক্ষক দিয়ে স্কুলটির পাঠদান হতো। প্রধান শিক্ষক ব্যতীত পর্যায়ক্রমে তারাও বদলী হয়ে যাওয়ায় ২০১৭ সাল থেকে শুধু মাত্র প্রধান শিক্ষক দিয়ে চলছে এ বিদ্যালয়টি।


অভিভাবক মো.শাজাহান মিয়া জানান, তার ছেলে ও মেয়ে ওই বিদ্যালয়ে পড়ালেখা করে। তারা প্রতিদিন গেলেও অনেক সময় শিক্ষকের দেখা পান না। এ নিয়ে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেন।


প্রধান শিক্ষক মো.হারুন গাজী জানান, শিক্ষক সংকটের কারণে কয়েকটি ক্লাশে পাঠদান সম্ভব হচ্ছে না। মৌখিকভাবে একজন শিক্ষক দেয়া হলেও প্রতিদিন কোনো না কোনো ক্লাশ শিক্ষক শূন্য থাকেন বলে উল্লেখ করেন তিনি।


বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মো.আনোয়ার হোসেন জানান, তিনি দায়িত্ব নিয়েছেন কেবল মাত্র। তবে উপজেলা পরিষদে এবং প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে শিক্ষক চাহিদাপত্র দেয়া হয়েছে।


উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রপ্ত) মো.আরিফুজ্জামান জানান, ওই স্কুলে মৌখিকভাবে একজন শিক্ষক দেয়া হয়েছে। তবে দীর্ঘদিন ধরে নিয়োগ বন্ধ থাকায় শিক্ষক সংকট হচ্ছে।


বিবার্তা/উত্তম/আকবর

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com