ভোলায় ব্যবসায়ীকে গলাকেটে হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ৫
প্রকাশ : ০৮ অক্টোবর ২০১৯, ২২:১৮
ভোলায় ব্যবসায়ীকে গলাকেটে হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ৫
ভোলা প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

ভোলার মনপুরায় ডাচ্ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্ট ব্যবসায়ী আলাউদ্দিনকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগে ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।


সোমবার (৮ অক্টোবর) আলোচিত এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।


গ্রেফতারকৃতরা হলেন- নিহত আলাউদ্দিনের দোকান কর্মচারী হাজিরহাট ইউনিয়নের চরফৈজুদ্দিন গ্রামের বাসিন্দা দিবাকর। অপর ৪ জন হলেন, মো. শামীম (২০), মো. শাহীন (১৮) ও মো. মাকছুদ (১৮)। তাদের ৩ জনের বাড়ি তজুমদ্দিন উপজেলার চাঁদপুর ইউনিয়নের হাজিকান্দি গ্রামে এবং আবুল কালাম (৩২) হাজিরহাট ইউনিয়নের চরফৈজুদ্দিন গ্রামের ৮নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা।


এ ঘটনায় নিহত আলাউদ্দিনের দোকানের কর্মচারী দিবাকর ও ভাড়াটিয়া খুনি ৩ জনকে ঢাকাগামী লঞ্চ ফারহান-৩ থেকে এবং আবুল কালামকে চরফৈজুদ্দিন গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মূল পরিকল্পনাকারী এখনো পলাতক রয়েছে।


গ্রেফতারকৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদেও সূত্র ধরে সোমবার রাতে অভিযান চালিয়ে নিহত পরিবারের বাড়ির পাশে পুকুর থেকে গলাকাটার ব্যবহৃত ২টি ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরি উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ভোলা সদর) এসএম মিজানুর রহমান। পলাতক আসামি জয়নালকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।


গ্রেফতারকৃত আসামিদের ভোলায় পাঠানো হয়েছে। এছাড়াও থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানান পুলিশ সুপার।


উল্লেখ্য, রবিবার রাত সাড়ে ১১টায় দিকে উপজেলার হাজিরহাট ইউনিয়নের ফকিরহাট বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পর ওই এজেন্টের নিজ বাড়ির সামনের উঠানে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।


নিহত ডাচ্ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্ট ও ব্যবসায়ী মো. আলাউদ্দিন মোল্লা হলেন উপজেলার হাজিরহাট ইউনিয়নের চরফৈজুদ্দিন গ্রামের বাসিন্দা মো. মজিবুল হক মোল্লার বড় ছেলে । তিনি ৪ সন্তানের জনক।


আলাউদ্দিনের স্ত্রী শাহনাজ আকতার ঋতু (৩২) কান্না জড়িত কণ্ঠে বলেন, আমার মত আর যেন কারো জীবনে এই ধরনের ঘটনা না ঘটে। আর যেন কোনো মেয়েকে স্বামী হারাতে না হয়। আমার ৪টি সন্তান। আমার ছোট ছেলের বয়স মাত্র ১ মাস। আমি ঘটনার সাথে জড়িত সকলের ফাঁসির দাবী করছি।


নিহতের বড় মেয়ে সুমাইয়া বলেন, আপনারা আমার বাবাকে ফিরিয়ে দেন। আমি আমার বাবার কাছে যাব। যারা আমার বাবাকে গলাকেটে হত্যা করেছেন তাদের ফাঁসি চাই।


এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ভোলা সদর) এসএম মিজানুর রহমান বলেন, গ্রেফতারকৃত ২ জন এজাহার ভুক্ত, ৩ জন সন্দেহযুক্ত এবং এজাহার ভুক্ত ১ জন পলাতক রয়েছেন। অভিযান চালিয়ে গলাকাটায় ব্যবহৃত ২টি ছুরি পুকুর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। কিছু আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। তদন্তের স্বার্থে সেগুলোর নাম এখনই বলা যাবে না। আমরা এখনো তদন্ত করছি। আমরা প্রকৃত আসামিদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসব।


বিবার্তা/শাহীন/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanews24@gmail.com ​, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com