কক্সবাজারে গ্যাংয়ের সদস্যসহ ১৮ ইভটিজার আটক
প্রকাশ : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১২:৩৮
কক্সবাজারে গ্যাংয়ের সদস্যসহ ১৮ ইভটিজার আটক
কক্সবাজার প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

কক্সবাজার শহর থেকে গ্যাং কালচারের সদস্যসহ ১৮জন ইভটিজারকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ। শনিবার শহরের বায়তুশ শরফ জব্বারিয়া একাডেমি, সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কক্সবাজার সরকারি মহিলা কলেজের এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।


আটককৃতরা হলো- আশরাফ (২০), সাদ্দাম হোসেন (২৪), ইব্রাহিম (১৮), আহমেদ আরেফিন (১৮), মিজানুর রহমান (২২), শাহাজাহান (২৮), কায়সার মুল্লা (৩৩), মোহাম্মদ ওমর ফারুক (১৮), আরাফাত হোসেন(১৮), ইদ্রিস (২২), নুরুল ইসলাম(১৮), জানে আলম (২৪), রিয়াদ (১৭), আবসার মিয়া (২০), ওবাইদুল হাসান (২০), রাসেল (১৮), শরীফুল ইসলাম (১৯) ও আরাফাত (১৯)। এদের পাশাপাশি আটক করা হয় একই এলাকা থেকে আব্বাস নামে এক পতিতা দালালকেও।


জানা যায়, সম্প্রতি কক্সবাজার শহরের বিভিন্ন এলাকায় এবং স্কুল-কলেজের সামনে গ্যাং কালচার ও রোমিও বখাটেদের বেপরোয়া উৎপাত বেড়ে যায়। যে কারণে অভিভাবক ও স্থানীয় লোকজন বিষয়টি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অবহিত করেন।


পরে বিষয়টি আমলে নিয়ে কক্সবাজার পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, বিপিএম শহরের বিভিন্ন এলাকার স্কুল-কলেজের সামনে অবস্থান নেয়া গ্যাং কালচার ও বখাটেদের সায়েস্তা করতে ডিবি পুলিশকে মাঠে নামায়। শনিবার দুপুর থেকে বিকাল পর্যন্ত কয়েক ঘণ্টার অভিযানে আটক হয় ১৮ জন।


এদিকে এই সাঁড়াশি অভিযানে নেতৃত্ব দেন কক্সবাজার জেলা গোয়েন্দা শাখার অফিসার ইনচার্জ হুমায়ন কবীর ও ইন্সপেক্টর মানস বড়ুয়াসহ দুটি ডিবি পুলিশের দল।


অভিযান পরিচালনাকারী অফিসার মানস বড়ুয়া জানান, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও শহর এলাকাকে গ্যাং কালচার ও ইভটিজিং মুক্ত রাখতে ডিবি পুলিশ এ অভিযান ধারাবাহিকভাবে চালিয়ে যাবে। কোনো রোমিও বখাটের বিরুদ্ধে যদি সংশ্লিষ্ট অভিযোগের প্রমাণ মিলে তা হলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


কক্সবাজার পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন বিপিএম বলেন, পর্যটন শহরকে নিরাপদ ও বখাটে মুক্ত রাখতে পোশাকধারী পুলিশের পাশাপাশি ডিবি পুলিশকে মাঠে নামানো হয়েছে। কোনো গ্যাং কালচার ও ইভটিজিং করে কেউ রেহাই পাবে না।


অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে এসপি বলেন, প্রতিটি অভিভাবককে নিজের সন্তানের খোঁজখবর রাখতে হবে। স্কুল-কলেজের নামে সন্তানরা কোথায় যাচ্ছে, কী করছে তা অবশ্যই জানতে হবে।


কারণ অপরাধ করে ধরা পড়লে কোনো অভিভাবকের ওজুহাত বা আহাজারি শোনা হবে না। সোজা জেলের ভাত খেয়ে আসতে হবে।


বিবার্তা/তাওহীদ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanews24@gmail.com ​, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com