মোরগ হলেই মরতে হবে!
প্রকাশ : ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ১৬:৪০
মোরগ হলেই মরতে হবে!
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

জার্মানিতে প্রতিবছর সাড়ে চার কোটি বাচ্চা মোরগ মেরে ফেলা হয়। 'অপরাধ' হলো, মোরগ তো ডিম দেয় না। তার ওপর মোরগের মাংসও নাকি মুরগীর মাংসের তুলনায় তেমন সুস্বাদু নয়। এ অবস্থায় অকালে মারা যাওয়া ছাড়া আর কী আশা করতে পারে মোরগসমাজ! তবে মোরগহত্যা কমানোর এক উপায় বের করেছেন গবেষকরা।


প্রাণীঅধিকার কর্মীরা এভাবে বাচ্চা মোরগ হত্যার প্রতিবাদ জানিয়েছে বিভিন্ন সময়। তা সত্ত্বেও এতকাল এ কাজটি বন্ধের কোনো লক্ষণ দেখা যায়নি। তবে এখন পরিস্থিতি বদলাতে শুরু করেছে। জার্মানির কৃষি মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে লাইপসিশ বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক নতুন এক পন্থা আবিষ্কার করেছেন, যা ব্যবহার করে একটি ডিম পরীক্ষা করেই বোঝা যাবে যে মোরগ হবে নাকি মুরগী।


নতুন উদ্ভাবিত পন্থায় ডিমের খোলসের মধ্যে সুক্ষ্ম একটি ফুটো করে কিছু তরল বের করে পরীক্ষা করা হয় এবং তখন বোঝা যায় যে ভবিষ্যতে এই ডিম ফুটে মোরগ নাকি মুরগি বের হবে। মোরগ ডিমগুলো তখন শুরুতেই আলাদা করে সেগুলো দিয়ে উচ্চমানের প্রাণীখাদ্য তৈরি করা যায়।


ইতোমধ্যে কিছু হ্যাচারি এই পন্থা ব্যবহার শুরু করেছে। আর সেসব হ্যাচারিতে উৎপাদিত ডিমও বার্লিনের ২২৩টি সুপারমার্কেটে বিক্রি শুরু হয়েছে। আশা করা হচ্ছে, আগামী বছর সুপারমার্কেট দু'টির ৫,৫০০ সেন্টারে এমন ডিমের দেখা মিলবে, যেগুলোর উৎপাদনের পুরো প্রক্রিয়ায় কোনো পুরুষ মোরগ হত্যা করা হয়নি। সূত্র : ডিডাব্লিউ


বিবার্তা/হুমায়ুন/মৌসুমী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com