বিদঘুটে যত খাবার
প্রকাশ : ০৮ নভেম্বর ২০১৮, ১৭:১৩
বিদঘুটে  যত খাবার
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

পোকার পনির? ইঁদুরের ওয়াইন? শুনতে অবিশ্বাস্য মনে হলেও এমনই কিছু বিদঘুটে খাবারও আগ্রহ নিয়ে খেয়ে থাকে পৃথিবীর কোনো-কোনো দেশের কিছু মানুষ। আর এসব বিদঘুটে খাবারের একটি জাদুঘর রয়েছে সুইডেনে।


সুইডেনের মালম্যো শহরে এ আশ্চর্য জাদুঘর অবস্থিত। সারা বিশ্বের প্রায় ৮০টি বিদঘুটে খাবার দিয়ে সাজানো এই জাদুঘরে চীনের বিখ্যাত ইঁদুরের ওয়াইনও রয়েছে। এই ওয়াইন তৈরি হয় সাধারণ ওয়াইনে সদ্যজাত ইঁদুরছানার মৃতদেহ ভিজিয়ে।


ভেড়ার চোখের শরবত
মঙ্গোলিয়ার ‘ব্লাডি মেরী’ নামে খ্যাত এই শরবতে থাকে ভেড়ার চোখ ও টমেটোর রস। দেখতে অদ্ভূত লাগলেও জাদুঘরের কর্মচারীরা সদা ব্যস্ত থাকেন এই অদ্ভূত খাবারগুলিকে আকর্ষণীয় করে তুলতে।


গিনিপিগ ভাজা!
গিনিপিগকে সাধারণত আমরা চিনি পোষ্য বা ল্যাবরেটরির কাজে লাগা প্রাণী হিসেবে। জানেন কি, ইকুয়েডর বা পেরুর মতো কিছু দেশে এই গিনিপিগ ভেজে খাওয়া হয়!


'জীবন্ত' পনির
সার্ডিনিয়ার সব চিজ বা পনিরের মধ্যে সবচেয়ে বিখ্যাত ‘কাসু মারজু’৷।কিন্তু এই চিজ খাওয়ার সময় খুব সাবধান থাকতে হবে। খেয়াল না করলে পাত থেকে লাফিয়ে উঠতে পারে চিজের মূল উপকরণ ‘ম্যাগট’ নামের এক ধরনের শুঁয়োপোকা।


বাদুড়ের ঝোল
খেতে মিষ্টি হলেও রান্না করার সময় নাকি উৎকট গন্ধ ছাড়ে এক বিশেষ প্রজাতির বাদুড় ‘ফ্রুট ব্যাট’। গুয়াম, থাইল্যান্ড ও ইন্দোনেশিয়াসহ এশিয়ার একাধিক দেশে এই বাদুড়ের ঝোলের খুব কদর।


পচা ডিম
চা, লবণ, লেবু ও কাঠের গুঁড়োর সাথে পচানো হয় ডিম। কয়েক মাস পর যখন তার রঙ কিছুটা সবুজ হয়ে পড়ে, তখনই তা খেতে পছন্দ করেন চীনের মানুষেরা।


দুর্গন্ধ, তবুও...
প্রচণ্ড দুর্গন্ধ ছড়ালেও জাপানিরা ‘নাত্তো’ বা এক ধরনের পচা সয়াবিন খেতে খুব পছন্দ করে। মূলত সর্ষেবাটা দিয়েই খাওয়া হয় এই আজব খাবারটি।


বিবার্তা/হুমায়ুন/মৌসুমী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com