মেয়েটির তালাক হয়েই গেল
প্রকাশ : ০৪ জানুয়ারি ২০১৮, ১৭:০১
মেয়েটির তালাক হয়েই গেল
প্রতীকী ছবি
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

সউদি আরবের আদালত ক'দিন আগে হতভম্ব স্বামীর চোখের সামনেই মেয়েটির তালাকের আবেদন মঞ্জুর করলো।


কে এ মেয়ে, কে-ই বা তার স্বামী - কারোই নাম-পরিচয় প্রকাশ না-করে 'সউদি গেজেট' পত্রিকা এ খবর দিয়েছে।


খবরে বলা হয়, ২৯ বছর বয়সী এক সউদির পত্নী সম্প্রতি আদালতে স্বামীর সঙ্গে তালাকের আবেদন জানায়। কেন তালাক! না, তেমন কোনো কারণ নেই। ওর সঙ্গে সংসার করবো না।


আদালত মেয়েটির স্বামীর কাছে জানতে চায়, ''কী ব্যাপার! হয়েছে কী তোমাদের মধ্যে?''


না, সেও জানে না বৌ কেন ক্ষেপেছে আর তালাক চাইছে। আদালতের প্রশ্নের জবাবে হতভম্ব স্বামীটি বৌয়ের দিকে তাকায়। জানতে চায়, ''আমি কি তোমাকে ভালোবাসিনি? যখন যা চেয়েছো তা দিইনি? আমি তোমার সুখের জন্য আমার পরিবারকেও ত্যাগ করিনি?''


তালাকপ্রার্থী স্ত্রী বিনাদ্বিধায় স্বীকার করে, ''অবশ্যই করেছো এবং সেটাই তোমার অপরাধ। মহামান্য আদালত, এ লোকটি আমি যখনই যা দাবি করেছি তা করেছে। আমাকে বিদেশে ভ্রমণে নিয়ে গেছে। মোটের ওপর আমার কোনো চাওয়াই অপূর্ণ রাখেনি। কিন্তু এ লোকের সঙ্গে আমি সংসার করতে চাই না।''


মেয়েটি আদালতকে বলে, এ লোক আমার সব চাওয়া পূরণ করলেও সে তার নিজের মায়ের কোনো চাওয়া-পাওয়াকে পাত্তা দেয়নি। যে মা তাকে জন্ম দিয়েছেন, লালনপালন করে বড় করেছেন, সেই মায়ের চাইতে সে বৌকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছে। যার কাছে জন্মদাত্রী মায়ের চাইতে বৌ বড় - এমন লোককে বিশ্বাস করা যায় না। সে যে কোনো সময় আমাকেও ত্যাগ করতে পারে। আমি তার আগেই তার কাছ থেকে দূরে সরে যেতে চাই।


আদালত এ নারীর যুক্তিতে অভিভূত হন এবং তার আবেদন মঞ্জুর করেন।


বিবার্তা/হুমায়ুন/কাফী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com