‘বিশ্বকাপে কন্ডিশন নয়, চাপ সামলানোই বেশি গুরুত্বপূর্ণ’
প্রকাশ : ২২ মে ২০১৯, ১৬:৫১
‘বিশ্বকাপে কন্ডিশন নয়, চাপ সামলানোই বেশি গুরুত্বপূর্ণ’
ফাইল ছবি
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলসে আসন্ন ওয়ানডে বিশ্বকাপটি সবচেয়ে বেশি চ্যালেঞ্জিং বলে মনে করেন, ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। বর্তমান কন্ডিশনের কারণে ব্যাটসম্যানরা সুবিধা পাবে বলেই হাই-স্কোরিং ম্যাচ হবে বলে জানান তিনি।


এই চ্যালেঞ্জিং বিশ্বকাপে আত্মবিশ্বাসী হয়েই যাচ্ছে টিম ইন্ডিয়া। মঙ্গলবার দেশ ছাড়ার আগে মুম্বাইয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে আসন্ন বিশ্বকাপ নিয়ে এ কথা জানান কোহলি।


তিনি বলেন, বিশ্বকাপের মতো প্রতিযোগিতায় দলের মধ্যে থাকা সব অস্থিরতা কাটিয়ে তোলার জন্য এটা বেশ ভালো। ইংল্যান্ডে সাদা বলের খেলা, ওই কন্ডিশনে আইসিসির প্রতিযোগিতায় খেলার সঙ্গে টেস্ট খেলার খুব একটা পার্থক্য নেই। বিশ্বকাপে কন্ডিশন নয়, চাপ সামলানোই বেশি গুরুত্বপূর্ণ।


ভারত চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ফাইনাল খেলার অভিজ্ঞতার সঙ্গে গত দু বছরের দুর্দান্ত ফর্ম ভারতকে নিয়ে আশাবাদী করে তুলছে সমর্থকদের। এই আশার ভার নেয়াটা নিয়েই চিন্তায় আছেন কোহলি। বিশ্বকাপের মতো প্রতিযোগিতায় ভারতের বিশাল প্রত্যাশার চাপ সামলানো যে সব সময়ই কঠিন।


বিশ্বকাপ নিয়ে ভারতের প্রত্যাশার বেলুন সবার নাগালের বাইরে চলে যাচ্ছিল বছরের শুরুতে। মাঝে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ঘরের মাঠে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে যাওয়ার পরও সিরিজ হারায় ধাক্কা সামলাতে সময় লেগেছে ভারতের। তবে সফল এক আইপিএলের পর বিশ্বকাপ নিয়ে আবারো আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছে তারা। অবশেষে দেশ ছাড়ার আগে কোহলি বলছেন কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেয়া কঠিন হবে না ভারতের জন্য।


১৯৭৫ সালে বিশ্বকাপ আসর শুরুর পর প্রথম দুই আসরে প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নেয় ভারত। তবে নাটকীয়ভাবে ১৯৮৩ সালের চ্যাম্পিয়ন হয় তারা। গ্রুপ পর্বে জিম্বাবুয়ের কাছে হারতে-হারতে বেঁচে যায় ভারত। ১৭ রানে ৫ ও ৭৮ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ হারের শঙ্কায় পড়ে ভারত। কিন্তু ছয় নম্বরে নেমে অধিনায়ক কপিল দেব ১৩৮ বলে অপরাজিত ১৭৫ রানের মহাকাব্যিক এক ইনিংস খেলেন। তার ইনিংসের কল্যাণেই ৬০ ওভারের ম্যাচে ৮ উইকেটে ২৬৬ রান করে ভারত। পরে বোলারদের দৃঢ়তায় ৩১ রানে জয় পায় কপিলের দল।


এরপর গ্রুপ পর্ব ও সেমিফাইনালের বাঁধা পেরিয়ে ফাইনালে শক্তিশালী ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি হয় ভারত। প্রথমে ব্যাট করে ১৮৩ রানে অলআউট হয়ে শিরোপা জয়ের স্বপ্নও দেখেনি টিম ইন্ডিয়া। কিন্তু ভাগ্যে লেখা থাকলে, ঠেকায় কে। বোলারদের নৈপুণ্যে প্রথম দুই আসরের চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৪৩ রানে হারিয়ে তৃতীয় আসরেই বিশ্বকাপের স্বাদ নেয় ভারত।


এরপর ছয়টি আসর কেটে গেলেও শিরোপা ঘরে তুলতে পারেনি ভারত। অবশেষে ২০১১ সালে দ্বিতীয়বারের মত চ্যাম্পিয়ন হয় ভারত। শচীন টেন্ডুলকার, বিরেন্দার শেবাগ, যুবরাজ সিং-হরভজনদের নিয়ে গড়া দলকে শিরোপার স্বাদ দেন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। এরপর ২০১৫ সালে সেমিফাইনালে উঠে ক্ষান্ত হতে হয় ভারতকে।


বিবার্তা/তাওহীদ/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com