বিনাশর্তে ডিএসইর ব্রোকাররা পাবেন ৯৪৭ কোটি টাকা
প্রকাশ : ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৭:৪৮
বিনাশর্তে ডিএসইর ব্রোকাররা পাবেন ৯৪৭ কোটি টাকা
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

কৌশলগত অংশীদার হিসেবে ঢাকা স্টক একচেঞ্জের এক-চতুর্থাংশ শেয়ার কিনলো চীনা কনসোর্টিয়াম। ডিএসইর ব্লকড হিসেবে থাকা ২৫ শতাংশ শেয়ার প্রতিটি ২১ টাকা করে সাড়ে ৪৫ কোটি শেয়ার কিনেছে এই কনসোর্টিয়াম। ডিএসইর সক্ষমতা ও বিনিয়োগকারীদের আস্থা বাড়ানোয় এর উদ্দেশ্য।


চীনের দুই প্রতিষ্ঠান শেনঝেন ও সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জ কনসোর্টিয়াম (জোট) ডিএসইর ২৫ শতাংশ শেয়ারের বিপরীতে ৯৬২ কোটি টাকা জমা দিয়েছে। এর মধ্য থেকে সরকারের কোষাগারে স্ট্যাম্প ডিউটি বাবদ ১৫ কোটি টাকা জমা দিয়েছে ডিএসই। বাকি ৯৪৭ কোটি টাকা ডিএসইর সদস্য ব্রোকারদের শর্তহীনভাবে ভাগ করে দেয়া হবে। চলতি বছরের মে মাসে এ সংক্রান্ত্র চুক্তি সম্পন্ন হয়।


মঙ্গলবার রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে চীনা জোটের কাছ থেকে অর্থ প্রাপ্তি এবং ডিএসইর শেয়ার হস্তান্তর উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কে এ এম মাজেদুর রহমান।


মাজেদুর রহমান বলেন, কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসেবে শেনঝেন ও সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জের কাছ থেকে আমরা উল্লেখযোগ্য প্রস্তাব পায়। সেই প্রস্তাব পর্যালোচনা করে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) অনুমোদন করে। ২৫ শতাংশ শেয়ারের বিপরীতে চীনা জোট ইতোমধ্যে স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংকের মাধ্যমে টাকা জমা দিয়েছে। আজ সকালে বোর্ড সভার মাধ্যমে ডিএসইর ২৫ শতাংশ শেয়ার চীনা জোটের অনুকূলে হস্তান্তর করা হয়েছে। শেয়ারের বিপরীতে চীনা জোটের কাছ থেকে ৯৬২ কোটি টাকা এসেছে। এর মধ্যে প্রায় ১৫ কোটি টাকা স্ট্যাম্প ডিউটি হিসেবে সরকারের কোষাগারে জমা দেয়া হয়েছে।


এ বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, শেয়ার বিক্রির এই টাকা ডিএসইর সদস্য ব্রোকারদের। কোনো প্রকার শর্ত ছাড়াই এ টাকা ব্রোকারদের বুঝিয়ে দেয়া হবে। এতে প্রতি ব্রোকারেজ হাউজ পাবে প্রায় চার কোটি টাকা। ব্রোকাররা তাদের ইচ্ছা মতো টাকা বিনিয়োগ করতে পারবেন। তবে তারা যেহেতু শেয়ার ব্যবসা করেন, তাই আমরা আশা করব তারা এ টাকা শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করবেন।


চীনা জোটর প্রতিনিধি হিসেবে ডিএসইর নতুন পরিচালক নির্বাচিত হওয়া চি ওয়েন হাই বলেন, কারিগরীভাবে ডিএসইকে উন্নত করার জন্য কঠোর পরিশ্রম করা হবে। চীনা পুঁজিবাজার অনেক বড় বড় প্রকল্পে বিনিয়োগ করে। আমরা মনে করি, সেই অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে এদেশের পুঁজিবাজারে আমরা ভুমিকা রাখতে পারবো। এর ফলে এদেশের অবকাঠামোতে অবদান রাখতে পারব।


তিনি বলেন, বাংলাদেশের শেয়ারবাজারের উন্নয়নে সহযোগিতা করবে চীনের দুই শেয়ারবাজার শেনঝেন ও সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জের কনসোর্টিয়াম। এক্ষেত্রে লেনদেনে প্রযুক্তিগত উন্নয়ন, পণ্যের উন্নয়ন ও বাজারের বিভিন্ন বিষয়ের উন্নয়নকে গুরুত্ব দেয়া হবে।


সংবাদ সম্মেলনে ডিএসইর চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আবুল হাশেম, পরিচালক বিচারপতি সিদ্দিকুর রহমান মিয়া, রকিবুর রহমান, মিনহাজ মান্নান ইমন, শরীফ আতাউর রহমানসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


উল্লেখ্য, চীনা জোটটিকে ডিএসইর কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসেবে চলতি বছরের ৩ মে অনুমোদন দেয়া নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি। বিএসইসির অনুমোদনের পর কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসেবে গত ১৪ মে চীনা জোটের সঙ্গে চুক্তি সই করে ডিএসই। ওই চুক্তি অনুযায়ী, কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসেবে চীনা জোট ডিএসইর ২৫ শতাংশ বা ৪৫ কোটি ৯ লাখ ৪৪ হাজার ১২৫টি শেয়ার কিনে নিয়েছে।


বিবার্তা/মৌসুমী


সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com