বিএনপি কি অতীত ভুলে গেছে, প্রশ্ন কাদেরের
প্রকাশ : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৯:৩৫
বিএনপি কি অতীত ভুলে গেছে, প্রশ্ন কাদেরের
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ২০০১ সালে জাতীয় নির্বাচনের পর সাদেক হোসেন খোকা যখন ঢাকা সিটি করপোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হন। ওই নির্বাচনে ১০ শতাংশ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেননি। বিএনপি কি তাদের অতীত ভুলে গেছে?


সোমবার বিকেলে নির্বাচন ভবনে সংরক্ষিত নারী আসনের প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র দাখিল শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।


ওবায়দুল কাদের বলেন, কেয়ামতের দিন পর্যন্ত বিএনপি অভিযোগ করবে। কারণ বিএনপি যখন দেখে নির্বাচনে জেতার সম্ভাবনা নেই, তখন তারা তখন একতরফা নির্বাচনের অভিযোগ করে। ২০০১ সালে জাতীয় নির্বাচনের পর সাদেক হোসেন খোকা যখন ঢাকা সিটি করপোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হন। ওই নির্বাচনে ১০ শতাংশ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেননি। বিএনপি কি তাদের অতীত ভুলে গেছে- প্রশ্ন রাখেন তিনি।


উপজেলা নির্বাচনে বিএনপির অংশ না নেয়ার বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, তারা নির্বাচন হওয়ার আগেই হেরে যায়। নির্বাচন সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য ও নালিশ করা তাদের পুরনো অভ্যাস।


সেতুমন্ত্রী বলেন, ভবিষ্যতে নারী আসন বাড়ানো নয়, কমানোর চিন্তা করছি। এমনিতেই ২৫ বছরের জন্য অন্তর্ভুক্ত আছে। নারীর ক্ষমতায়ন অনেক দূর এগিয়ে যাবে। অনেক আপগ্রেডেট হবে।


মন্ত্রী বলেন, নারীরা এখন অনেক এগিয়েছে। সাধারণ আসনে নারীরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেই এগিয়ে যাবে। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে উপজেলা পরিষদ পর্যন্ত সব নির্বাচনেই সাধারণ আসনে নারীদের মনোনয়ন দেয়া হচ্ছে। এই সংখ্যা আরো বাড়ানো হবে। ইতোমধ্যে অনেক নারী সাধারণ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে বিজয়ী হয়েছেন। কোনো কোনো ক্ষেত্রে নারী প্রার্থীর জনপ্রিয়তা কম হলেও আমরা তাকে মনোনয়ন দিচ্ছি। আগামী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনেও অনেক নারী মনোনয়ন পাবেন।


সেতুমন্ত্রী আরো বলেন, নারী আসনের মনোনয়নের ক্ষেত্রে ত্যাগী এবং তৃণমূলকে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে। আমরা অনেক সময় নিয়েছি। আমাদের সভাপতি শেখ হাসিনা সংরক্ষিত নারী আসনের বিষয়ে দীর্ঘদিন ধরে দেখে আসছেন। এমনকি জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় কয়েকজনের নাম তিনি আমায় লিখে রাখতে বলেছিলেন। অনেক যাচাই-বাছাই করা হয়েছে। দে আর অল ব্রিলিয়ান্ট, পোলাইট, কমিটেড এবং ডেডিকেটেড।


মন্ত্রী এও বলেন, আমাদের দলের প্রতি কমিটেড, দেশ ও মুক্তিযুদ্ধের প্রতিও তারা কমিটেড, আন্দোলন সংগ্রামে তাদের যে ত্যাগী ভূমিকা-সেটা আমরা গুরুত্ব দিয়েছি, অগ্রাধিকার দিয়েছি। আমাদের নেত্রীর সক্রিয় মতামতের ভিত্তিতে দলের দীর্ঘদিনের ত্যাগী কর্মীরা এবং মুক্তিযুদ্ধের পরিবার, এছাড়া সব অঙ্গনের প্রতিনিধি এখানে আছে। কালচারাল থেকে শুরু করে সকল পর্যায় থেকে নিয়েছি। সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছি তৃণমূল পর্যায়ে।


বিবার্তা/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com