নির্বাচনকালীন সরকারও তো সংবিধানে নেই: মওদুদ
প্রকাশ : ১৩ জানুয়ারি ২০১৮, ১৪:৪৫
নির্বাচনকালীন সরকারও তো সংবিধানে নেই: মওদুদ
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

নির্দলীয় সরকার সংবিধানসম্মত নয় বলে আসা প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার প্রস্তাবিত নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে প্রশ্ন করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ। তিনি বলেছেন, সরকারের চার বছরে প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে নির্বাচন নিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করার প্রয়াস চালিয়েছেন।


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাষণের পরদিন শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় একথা বলেন সাবেক আইনমন্ত্রী মওদুদ।


ডেমোক্রেটিক মুভমেন্টের উদ্যোগে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে আলোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের প্রতিক্রিয়া জানান মওদুদ।


ভাষণে শেখ হাসিনা বছরের শেষ দিকে অনুষ্ঠেয় একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগেও ‘নির্বাচনকালীন সরকার’ গঠনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাতে সব দলের অংশগ্রহণের আশা প্রকাশ করেন। নির্দলীয় সরকারের অধীনে না হওয়ায় দশম সংসদ নির্বাচন বর্জন করেছিল বিএনপি। এবারও তারা একই দাবি তুলেছে; তার প্রতিক্রিয়ায় আওয়ামী লীগ নেতারা বলেছেন, নির্দলীয় সরকার সংবিধানে নেই।


মওদুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী গতকাল (শুক্রবার) তার ভাষণে বলেছেন, নির্বাচনকালীন সময়ে একটি সরকার গঠন করা হবে। কিন্তু নির্বাচনকালীন সময়ের জন্য কোনো সরকার গঠনের করার কোনো ব্যবস্থা এই সংবিধানে নেই। একথাটা বলে তিনি জনগণকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করেছেন। মূল কথা হলো যে, এই দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন হবে, সেটাই তিনি বলার চেষ্টা করেছেন।


নির্বাচনের আগে সংসদ ভেঙে দেয়া এবং সেনা মোতায়েনের দাবি রয়েছে বিএনপির; সে সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে কিছু না পেয়ে হতাশা প্রকাশ করেন মওদুদ। সারা জাতি প্রত্যাশা করেছিল যে, আগামী নির্বাচন কীভাবে দেশে একটা সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ করা যায়, সে ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী কিছু একটা বলবেন। কিন্তু সে ব্যাপারে তিনি কিছুই বলেননি।


মওদুদ বলেন, এই ভাষণে দেশের সত্যিকারের চিত্র তিনি তুলে ধরেননি। তার এই ভাষণ সাধারণ মানুষের ক্ষোভ-দুঃখ-কষ্ট নিরসন করতে পারেনি। প্রধানমন্ত্রী উন্নয়নের যে ফিরিস্তি দিয়েছেন, তা নিয়েও প্রশ্ন করেন সাবেক মন্ত্রী মওদুদ।


তিনি বলেন, যে উন্নয়নের মেলার কথা বলা হয়েছে, এটা উন্নয়নের মেলা নয়, দুর্নীতির মেলা বসানো হয়েছে। প্রত্যেকটি উন্নয়নের পেছনে যে ব্যাপক দুর্নীতি, সেটা সকলেই জানেন। উন্নয়নের নামে দেশে যে হাজার হাজার কোটি টাকার দুর্নীতি হয়েছে, তার কোনো ফিরিস্তি প্রধানমন্ত্রী দেননি।


সংগঠনের সভাপতি শাহাদাত হোসেন সেলিমের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মজিবুর রহমান সরোয়ার, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, খালেদা ইয়াসমীন, ন্যাপ মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভুঁইয়া বক্তব্য রাখেন।


বিবার্তা/বিপ্লব/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com