এক-এগারোর পুনরাবৃ‌ত্তি ঘটা‌নো যা‌বে না : ওবায়দুল কা‌দের ‌
প্রকাশ : ১১ জানুয়ারি ২০১৮, ১৪:১৫
এক-এগারোর পুনরাবৃ‌ত্তি ঘটা‌নো যা‌বে না : ওবায়দুল কা‌দের  ‌
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

বিএনপির কারণে পুনরায় এক-এগারোর মতো পরিস্থিতির আশঙ্কা থাকলেও দেশে আর কোনো দিনই এটির পুনরাবৃত্তি ঘটানো যাবে না বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।


বৃহস্পতিবার দুপুরে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সম্পাদকমণ্ডলীর এক সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।


আরেকটি ওয়ান-ইলেভেন হওয়ার আশঙ্কা আছে কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ভয়-আশঙ্কা আছে এই কারণে যে, ওয়ান ইলেভেন থেকে আমরা শিক্ষা নিয়েছি। কিন্তু বিএনপি নেয়নি। বিএনপি তার বর্তমান অবস্থান জেনে গেছে। নির্বাচনের আগেই সারাদেশে আওয়ামী লীগের জোয়ার দেখে বিএনপি বুঝে গেঝে যে, আগামী নির্বাচনে তাদের পরিণতি কী।


তি‌নি ব‌লেন, ভোট পাওয়ার মতো কোনো কাজ বিএনপি করেনি। সে কারণে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করবে বিএনপি। আওয়ামী লীগ বিএনপির সেই দুরভিসন্ধি বাস্তবায়ন করতে দেবে না। বাংলাদেশে ১/১১এর পুনরাবৃত্তি ঘটানো যাবে না।


সংবাদ মসম্মেলনে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মনোনয়নের ব্যাপারে ১৬ জানুয়ারির মনোনয়ন বোর্ডের সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলেও জানান কাদের।


তিনি বলেন, প্রার্থী ঘোষণার আগে কেউ প্রার্থী নন। অনেকে নিজের মতো করে দলের সভাপতি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করেছেন, করছেন। এতে প্রমাণিত হয় না যে, প্রার্থী নির্বাচন হয়ে গেছে। তবে, আতিকুল ইসলাম দলের সভাপতি শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করেছেন। সেই সময় শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘কাজ কর। সিদ্ধান্ত পরে’।


এর আগে সিটি করেপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নেতার পরিবর্তে একজন ব্যবসায়ীকে নির্বাচিত করা হয়েছিল। এবারো যারা আলোচনায় রয়েছেন তারা ব্যবসায়ী। একারণে অনেকে বলছেন, আওয়ামী লীগ আগামী নির্বাচন সামনে রেখে ক্রমশ ব্যবসায়ীদের দিকে ঝুঁকছে।


সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নেরে জবাবে ওবায়দুল বলেন, দলের প্রার্থী, দলীয় নেতা আর নির্বাচন এটার মধ্যে পার্থক্য আছে। এটা রাজনৈতিক স্ট্রাটেজি। স্ট্রাটেজিক এলায়েন্স। নির্বাচনে স্ট্রাটেজিক এলায়েন্স হয়। আর একজন রাজনীতিবিদ কি ব্যবসা করতে পারেন না? তারা চাঁদাবাজি করে খাবেন?


সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, আবদুর রহমান, জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক আহমদ হোসেন, এনামুল হক শামীম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সবুর, শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামসুন্নাহার চাঁপা, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক শাম্মী আক্তার, উপ প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম।


‌বিবার্তা/ওরিন/কাফী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com