‘খালেদাকে সাজা দিয়ে নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে চাইছে’
প্রকাশ : ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৬:৩৫
‘খালেদাকে সাজা দিয়ে নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে চাইছে’
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

সরকার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে সাজা দিয়ে নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে চাইছে অভিযোগ করে বিএনপি নেতা জয়নাল আবদীন ফারুক বলেছেন, তাদের এই আশা কখনো পূরণ হবে না।


বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন। খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে হওয়া মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে কর্মসূচির আয়োজন করে ‘জাতীয়তাবাদী চালক সংগ্রাম দল’ নামের একটি সংগঠন।


জয়নাল আবদীন ফারুক বলেন, খালেদা জিয়া এবং তার দল বিএনপিকে বাইরে রেখে আওয়ামী লীগ ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মতো নির্বাচনের চিন্তা করে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। কিন্তু তাদের আশা কোনোদিনও পূরণ হবে না।


তিনি বলেন, যদি আবারো ৫ জানুয়ারির মতো আরো একটি ষড়যন্ত্রমূলক নির্বাচন করা হয় দেশের ১৬ কোটি মানুষ সেটা গ্রহণ করবে না। এমন কি বিশ্বের কোনো দেশও তা গ্রহণ করবে না।


সরকারকে উদ্দেশ্য করে বিএনপি চেয়ারপারসনের এই উপদেষ্টা বলেন, আগামী নির্বাচন কার অধীনে হবে সেটা বড় কথা নয়। বড় কথা হচ্ছে নির্বাচনে বাংলাদেশের বৃহত্তম রাজনৈতিক দলগুলো অংশগ্রহণ করতে পারবে কি-না।


বিএনপিকে কঠোরভাবে মোকাবিলা করা হবে বলে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, বিগত কয়েকটি বছর বিএনপিকে কোনো সভা সমাবেশ করতে দেয়া হয় না। রাজপথে মিছিল করার অনুমতি দেয়া হয় না। দমনের নামে গুম-খুন করছেন। কোনো কারণ ছাড়াই বেগম খালেদা জিয়ার হাজিরার দিন আপনারা হামলা চালিয়েছে লাঠিচার্জ করলেন। এর চেয়ে কঠোর কিছু আপনারা কি করবেন?


আয়োজক সংগঠনের সভাপতি এম এইচ মনিরের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরো বক্তব্য দেন, ন্যাপের মহাসচিব এম গোলাম মোস্তফা ভূইয়া, জিনাফের সভাপতি মিয়া মো. আনোয়ার, ‘দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলনে’র সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন, ‘ঘুরে দাঁড়াও বাংলাদেশে’র সভাপতি কাদের সিদ্দিকী প্রমুখ।


বিবার্তা/বিপ্লব/কাফী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com