বিএনপির সমাবেশ, রাজধানীতে ভোগান্তি
প্রকাশ : ১২ নভেম্বর ২০১৭, ১৬:১২
বিএনপির সমাবেশ, রাজধানীতে ভোগান্তি
খলিলুর রহমান
প্রিন্ট অ-অ+

ফারজানা আক্তার। রাজধানীর বাড্ডা এলাকায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। তার বাসা সাভারে। সেখান থেকে তিনি প্রতিদিন বাড্ডায় কর্মস্থলে আসেন। যথাসময়ে আজও (রবিবার) তিনি কর্মস্থলে এসেছেন। কিন্তু দুপুরে সংবাদ মাধ্যমে জানতে পারলেন রাজধানীতে বিএনপির সমাবেশ। আর ওই সমাবেশের কারণে যানবাহান চলাচল কমে গেছে।


এক পর্যায়ে অফিস থেকে ছুটি নিয়ে দুপুর ২টার দিকে বাসায় যাওয়ার জন্য রওয়ানা দিলেন ফারজানা। তবে প্রায় এক ঘণ্টা রাস্তায় দাঁড়িয়ে থেকেও তিনি বাস পাননি। পরে সিএনজিচালতি অটোরিকশায় তিনি বাড্ডা থেকে কারওয়ানবাজারে আসেন।


সেখানে এসেও একই অবস্থা। কারওয়ানবাজার মোড়ে প্রায় কয়েকশ’ মানুষ দাঁড়িয়ে। সবাই গাড়ির অপেক্ষায়। পরে সেখান থেকে হেঁটে ফার্মগেট এলাকায় যান। সেখানেও একই অবস্থা। এক পর্যায়ে সেখানেই বিবার্তার এই প্রতিবেদকের সাথে দেখা হয় ফারজানা আক্তারের। এ সময় তিনি বিড়ম্বনার কথাগুলো বলছিলেন।


শুধু ফারজানা আক্তারই নয়, এমন ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন অনেকেই। কারওয়ানবাজার এলাকায় আব্দুল কাদির নামে এক ব্যক্তি বিবার্তাকে বলেন, তার বাসা পাস্থপথ এলাকায়। তিনি জরুরি কাজে রাজধানীর মতিঝিল এলাকায় যাওয়ার জন্য বাসা থেকে দুপুর ১২টায় বের হয়েছেন। পরে প্রায় এক ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থেকে বাস না পেয়ে সিএনজিচালিত অটোরিকশা নিয়ে তিনি মতিঝিল গেছেন।


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রাজন মিয়া বিবার্তাকে বলেন, তিনি রাজধানীর ধানমন্ডি এলাকায় একটি টিউশনি করান। কিন্তু বিএনপির সমাবেশের কারণে আজ টিউশনিতে যাবেন না। কারণ যানতে চাইলে তিনি বলেন, রাজধানীতে কোনো বড় সমাবেশ হলে ভোগান্তি পোহাতে হয়। তাই তিনি আজ হল থেকে বের হবেন না।


এদিকে, রবিবার সকাল ১১টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত রাজধানীর ফার্মগেট, কারওয়ানবাজার, বাংলা মটর, শাহবাগ, মৎস বভন, পল্টন, কাকরাইলসহ বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে দেখা গেছে, ওইসব এলাকায় যানবাহন চলাচল কম করছে। তরে রাস্তার মোড়ে মোড়ে এবং বাস স্ট্যান্ডগুলোতে লোকজনের ভিড় লক্ষ্য করা গেছে।


তবে আবুল কালাম নামের এক বাসচালকের সাথে কথা বলে জানা গেছে, অনেক চালক বা বাসমালিক আজ রাস্তায় গাড়ি নামাতে নিষেধ করেছেন। বিএনপির সমাবেশ থেকে সমস্যা হতে পারে- এমন ধারণা থেকেই যানচলাচল কম বলে মনে করেন তিনি।



এদিকে, দুপুর ২টার দিকে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ শুরু করেছে বিএনপি। ওই সমাবেশে বিএনপি প্রধান বেগম খালেদা জিয়া প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। আর সমাবেশে কয়েক লাখ লোকের সমাগম হবে বলে জানিয়েছে বিএনপি। তবে সমাবেশে লোকজন যাতে না আসতে পারে সে জন্য সরকারের পক্ষ থেকে যানবাহন চালাচলে বাধা দেয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেছেন দলটির নেতারা।


তাদের অভিযোগ, ঢাকার আশপাশের বিএনপি নেতাকর্মীদের সমাবেশে উপস্থিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সকাল থেকে ঢাকায় যানবাহন প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না। তাই ঢাকার আশপাশ এলাকা থেকে তাদের নেতাকর্মীরা সমাবেশে উপস্থিত হতে পারছেন না। তবে রাজধানীর মধ্যে যারা আছেন, তারা সমাবেশে যোগদান করছেন বলে জানিয়েছে বিএনপি।


এদিকে, রবিবার সকালেই রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যান পরিদর্শন করেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আমরা প্রত্যাশা করছি, যে শর্ত দিয়েছি সুশৃঙ্খলভাবে তারা (বিএনপি) সমাবেশ করবে। কোনোভাবে জনভোগান্তি সৃষ্টি করবে না। এরপরও যদি কেউ জনভোগান্তি সৃষ্টি করে, অবশ্যই আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। কারণ দেশে কেউ আইনের উর্ধ্বে নয়।



প্রসঙ্গত, রবিবার বিকাল ৩টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত সোহরাওয়াদী উদ্যানে সমাবেশ চলছিল। এছাড়াও বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াও সমাবশস্থলে উপস্থিত হয়েছেন বলে জানা গেছে। জনসভার সভাপতিত্ব করছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সঞ্চালনা করছেন দলটির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানি।


বিবার্তা/খলিল/কাফী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com