চিত্রায় সাঁকো ছাত্রলীগের কর্মকাণ্ডেরই ধারাবাহিকতা
প্রকাশ : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ১৪:৪০
চিত্রায় সাঁকো ছাত্রলীগের কর্মকাণ্ডেরই ধারাবাহিকতা
সৌখিন আদনান, জবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের শুরু থেকে ছাত্রলীগের কর্মকাণ্ড রাষ্ট্র গঠনে সহায়ক ভূমিকা পালন করেছে। বাংলাদেশের সবকটি আন্দোলন সংগ্রামে এ ছাত্র সংগঠনের ভূমিকা ছিল ঈর্ষান্বিত। তবে কিছু অনুপ্রবেশকারীর কারণে এ সংগঠনে মাঝে নেতিবাচক কর্মকাণ্ডে জড়ানোর খবর পাওয়া যায়। এসব খবরও ঢাকা পড়ে ছাত্রলীগের ইতিবাচক কর্মকাণ্ডের ছোয়ায়।  

 

গত রবিবার সকালে অতিরিক্ত ওজনের কারণে দুটি ট্রাকসহ মাগুরার শালিখা উপজেলার চিত্রা নদীর উপর নির্মিত সীমাখালি সেতু ভেঙ্গে যায়। এতে নদীর দুই তীরের মানুষ চরম দুর্ভোগে পড়েন। এলাকার মানুষের এ দুর্ভোগে তাদের পাশে দাঁড়ান স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

 

এলাকাবাসীর অনুদানে ৭৫টি বাঁশ সংগ্রহ করে সোমবার দিনভর কাজ করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা নদীর ওপর সাময়িক চলাচলের জন্য একটি সাঁকো তৈরি করেন। বিকেলে সাঁকো দিয়ে পারাপার হতে পেরে এলাকাবাসী সাঁকো তৈরির উদ্যোক্তাদের ধন্যবাদ জানান।

 

শালিখা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কুতুব উদ্দিন আহমেদ বলেন, এলাবাসীর দুর্ভোগ লাঘবে আমরা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এ সাঁকোটি তৈরি করি। সাঁকো তৈরিতে আমাদের কোনো খরচই হয়নি। এলাকাবাসীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে আমরা একটি-দুটি করে ৭৫টি বাঁশ অনুদান হিসেবে নেই। এরপর সারাদিন খেটে নিজেরাই তৈরি করে ফেলি সাঁকোটি। সন্ধ্যায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পংকজ কুণ্ডু, যুগ্ম সম্পাদক অ্যাড. কামাল হোসেন, মুন্সী ইসরাইল হোসেনসহ নেতৃবৃন্দ সাঁকোটি দেখতে আসেন।

 

 

এর আগে, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগ দ্বিতীয় ব্যাচের অসুস্থ শিক্ষার্থী বেলালের পাশে দাঁড়িয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কয়েক তরুণ নেতা। স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে চিকিৎসার ব্যয় জোগাড় করতে সহযোগিতা করছেন তারা। তাদের এ উদ্যোগকে তখন সাধুবাদ জানিয়েছিলেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

 

জানা যায়, বাংলা বিভাগের দ্বিতীয় ব্যাচের শিক্ষার্থী মো. বেলাল হোসেন কিডনি সংক্রান্ত রোগে ভুগছেন। তার চিকিৎসা ব্যয় বহন করতে পরিবার হিমশিম খাচ্ছে। এ খবর জানতে পেরে ওই বিভাগের পঞ্চম ব্যাচের শিক্ষার্থী জবি ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সুরঞ্জন ঘোষ এবং কৃষি শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক গৌতম কুন্ডু তার জন্য অর্থ সংগ্রহের সিদ্ধান্ত নেন। তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগ এবং ভবন ঘুরে অর্থ সংগ্রহ করেন। সোমবার ও মঙ্গলবার বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী সুরঞ্জন, গৌতম, নিরু, শান্ত ও প্রবালসহ ১০ জনের একটি স্বেচ্ছাসেবী দলকে বিজ্ঞান অনুষদের মাঠ এবং বিভিন্ন বিভাগ ঘুরে ঘুরে অর্থ সংগ্রহ করতে দেখা যায়।  

 

অসুস্থ শিক্ষার্থী বেলাল হোসেন জানান, গত এক বছর ধরে তিনি কিডনি জটিলতায় ভুগছেন। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন দুটি কিডনির ৮০ শতাংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে; যা নিরাময়ের জন্য ৩০ লাখ টাকা লাগবে। জবির সাবেক শিক্ষার্থী হওয়ায় তিনি ক্যাম্পাসে অর্থ সংগ্রহের জন্য প্রক্টর দফতর থেকে অনুমতি নিয়েছেন। পরে বিভাগের জুনিয়ররাও স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করেছে।

 

সংগঠনের ইতিবাচক এ কর্মকাণ্ড সম্পর্কে জানতে চাইলে মাগুরায় বেড়ে ওঠা ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি ডা. তোফাজ্জল  হক চয়ন বলেন, মাগুরার শালিখাসহ ছাত্রলীগের  নেতাকর্মীরা সবসময় মানুষের পাশে ছিল। ইতিহাস স্বাক্ষ্য দেয়, ছাত্রলীগের সব কর্মসূচিই সাধারণ মানুষের কল্যাণে। ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে স্বাধীনতা  আন্দোলন তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। তবে মাগুরার শালিখা উপজেলার সীমাখালি সেতুর ভেঙ্গে পড়ায় ছাত্রলীগ তা নিজ উদ্যোগে নির্মাণ করেছে। সরকারই তা স্বাভাবিক রুটিন ওয়ার্কে নির্মাণ করত। তবে তাতে অনেক সময় লেগে যেতো। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিষয়টি অনুধাবন করে নিজেরাই বাঁশ দিয়ে সাঁকো নির্মাণ করে। চিত্রানদীর উপর সাঁকো তৈরি ছাত্রলীগের ইতিবাচক কর্মকাণ্ডের ধারাবাহিকতা মাত্র।

 

বিবার্তা/আদনান/নিশি

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com