সউদি আরবের ‘মালদ্বীপ’
প্রকাশ : ০৯ মার্চ ২০১৮, ১৭:২২
সউদি আরবের ‘মালদ্বীপ’
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

ভারত মহাসাগরের বুকে অবস্থিত হাজার দ্বীপের দেশ মালদ্বীপ বহুকাল ধরে পর্যটন স্বর্গ হিসেবে পরিচিতি পেয়ে আসছে, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে রাজনৈতিক কারণেও দেশটি সংবাদ শিরোনামে এসেছে। সে সংবাদে মরুর দেশ সউদি আরবের নামও জড়িয়ে গেছে। মালদ্বীপের বিরোধীরা অভিযোগ করছিল, সরকার দেশের একটি দ্বীপ সউদি আরবের কাছে বিক্রি করে দিয়েছে, যা কিনা জাতীয় সার্বভৌমত্বের পরিপন্থী।


সে বিতর্ক এখন স্তিমিত হয়ে এসেছে আর এর মধ্যেই জানা গেছে, সউদি আরবের নিজেরই একটি ‘মালদ্বীপ’ আছে।


দেশটির পশ্চিমাঞ্চলে অবস্থিত এ ‘সউদি মালদ্বীপের’ নাম উমলুজ (এর প্রাচীন নাম আল-হাওরা)। এখানে রয়েছে ছবির মতো সুন্দর অনেকগুলো দ্বীপ এবং চমৎকার সব সৈকত। এর রয়েছে বিপুল প্রত্নতাত্ত্বিক ও ঐতিহাসিক সম্পদও।


উমলুজ তুলনামূলকভাবে ছোট জায়গা। কিন্তু কোথাও সাদা বালির সমাহার, কোথাও বা পাহাড় নিয়ে এ ছোট জায়গাটিতেই আছে ১০৪ বা তারও বেশি দ্বীপ। বোটে চড়ে দ্বীপটিতে অবকাশ যাপন করা যায়। এসময় চোখে পড়বে নানা রঙের মাছ। আছে ডলফিনও, বিশেষ করে গ্রীষ্মের শুরুতে ওদের চোখে পড়ে বেশি।


উমলুজের দ্বীপগুলো প্রবাল পাথরে বোঝাই। আছে অভয়ারণ্যও, যেখানে এসে থাকে রঙ্গিন সব পরিযায়ী পাখি। উমলুজকে মনে করা হয় পরিযায়ী পাখি ও সামুদ্রিক প্রাণীর আসা-যাওয়ার পথ হিসেবে। এখানকার সুন্দর আবহাওয়া ও প্রাকৃতিক সৌন্দর্যই তাদের আকর্ষণ করে থাকে।


এখানে আছে প্রাচীন কালের পাম বৃক্ষের সারি। আছে আমের বাগান। কখনো পরিযায়ী পাখিরা সেখানে বাসা বেঁধে থেকে যায়।


আছে সোনালি বালির স্তূপ। পর্বতমালা। মৃত আগ্নেয়গিরি। আছে স্বচ্ছ পানির ঝরণা।


আরব পরিবারগুলো এখানে আসে অবকাশযাপনে। তারা সৈকতে ঘুরে বেড়ায়। সাগরজলে সাঁতার কাটে। ডাইভিং করে।


সউদি সরকার এটিকে আরো সুন্দর করে সাজিয়ে পর্যটনস্পট বানানোর মহাপরিকল্পনা নিয়েছে। সূত্র : আল-আরাবিয়া ইংলিশ।


বিবার্তা/হুমায়ুন/সোহান

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com