‘উপজেলা নির্বাচনে বড় দলগুলোর না আসাটা হতাশাজনক’
প্রকাশ : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৬:৫১
‘উপজেলা নির্বাচনে বড় দলগুলোর না আসাটা হতাশাজনক’
ফাইল ছবি
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা বলেছেন, আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বড় বড় রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ না করাটা হতাশাজনক। তবে নির্বাচন সার্বিকভাবে অংশগ্রহণমূলক না হলেও প্রতিযোগিতামূলক হবে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।


রবিবার আগারগাঁওয়ে ইটিআই ভবনে উপজেলা নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষকদের প্রশিক্ষণ কর্মসূচি উদ্বোধনকালে তিনি একথা বলেন।


সিইসি বলেন, আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে বড় কয়েকটি রাজনৈতিক দল অংশ নেবে না। এটা ইসির জন্য হতাশাজনক খবর। আমরা সবসময় চাই, সবসময় চেয়েছি যে, নির্বাচন প্রতিযোগিতামূলক হবে। নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হবে এবং সব দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে। আমি বিশ্বাস করি, সার্বিকভাবে অংশগ্রহণমূলক না হলেও এ নির্বাচন প্রতিযোগিতামূলক হবে। এই স্থানীয় নির্বাচনে দলের মধ্যে অথবা বাইরে অনেক যোগ্য লোক থাকেন, যারা নির্বাচনে প্রতিযোগিতা করেন।


প্রশিক্ষকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনাদের সবাইকে পক্ষপাতমুক্ত আচরণ করতে হবে। কেউ কোনো ব্যক্তি, দল, প্রার্থীর প্রতি পক্ষপাতমূলক আচরণ করলে ইসি সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে কঠোর হবে। তদন্তে দোষী প্রমাণ হলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। আপনাদের কোনো দল নেই, মত নেই, আপনারা প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী। আপনারা কেবল আইন কানুনের ভিত্তিতে নিরপেক্ষভাবে নির্বাচন করবেন। সংবিধান, আইন ও বিধির বাইরে আপনাদের কারো কাছে দায়বদ্ধতা নেই।


কে এম নূরুল হুদা বলেন, অনেক সময় অনেকে জেনে না জেনে আচরণবিধি লঙ্ঘন করে থাকেন। অনেক রাজনৈতিক দল বা প্রার্থীর জানার বাইরে উৎসাহী লোক বা কোনো সমর্থক এগুলো করে থাকেন। এগুলোর ব্যাপারেও আপনাদেরকে সতর্ক থাকতে হবে।


তিনি আরো বলেন, ভোটকেন্দ্রে পোলিং এজেন্টদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার বিষয়ে আপনাদের সচেষ্ট থাকতে হবে। ভোটের দিন অনেক এজেন্ট প্রার্থীর অবস্থা ভালো না দেখলে কেন্দ্র ছেড়ে যান। অনেক দুর্বল প্রার্থী আবার এজেন্টই দিতে পারেন না। এমন বাস্তবতায় ভোট শেষে অনেকে তাদের এজেন্টকে কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ তোলেন, যা অনেকাংশেই সত্য নয়। ফলে নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত সব পোলিং এজেন্টদের কেন্দ্রে অবস্থান, তাদের নিরাপত্তা বিধান ও ভোট শেষে এজেন্টদের হাতে ফলাফলের একটি করে শিট ধরিয়ে দেয়ার উদ্যোগ নিতে হবে।


অনুষ্ঠানে ইটিআইয়ের মহাপরিচালক মোস্তফা ফারুকসহ নির্বাচন কমিশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


বিবার্তা/মাইকেল/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com