৫৭৯ কোটি টাকা ব্যয়ে অত্যাধুনিক র‌্যাডার কিনছে সরকার
প্রকাশ : ১১ জানুয়ারি ২০১৭, ১৮:৪৯
৫৭৯ কোটি টাকা ব্যয়ে অত্যাধুনিক র‌্যাডার কিনছে সরকার
মৌসুমী ইসলাম
প্রিন্ট অ-অ+

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমান উড্ডয়ন ও অবতরণ নিরাপদ করতে অত্যাধুনিক র‌্যাডার কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ৫৭৯ কোটি টাকা সরকারি অর্থায়নে বাস্তবায়িত হবে এই প্রকল্প। প্রথমে পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশিপের (পিপিপি) আওতায় এই প্রকল্প বাস্তবায়নের কথা থাকলেও নিরাপত্তার স্বার্থে তা থেকে সরে আসে সরকার। অনুমোদনের জন্য প্রকল্পটি শিগগিরই অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রীসভা কমিটিতে উপস্থাপন করা হবে।


বেসরকারি বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সারসংক্ষেপে দেখা যায়, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ব্যবহৃত প্রাইমারি ও সেকেন্ডারি র‌্যাডার দীর্ঘদিনের পুরানো হওয়ায় বিমান উড্ডয়ন ও অবতরণে ঝুঁকি তৈরী হয়েছে। এ অবস্থায় নিরাপত্তার স্বার্থে পিপিপি’র আওতায় নতুন র‌্যাডার কেনার একটি প্রকল্প গ্রহণ করে সরকার। প্রকল্পটি বাস্তবায়নের জন্য করিম অ্যাসোসিয়েটস নামের একটি প্রতিষ্ঠান থেকে ২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল একটি প্রস্তাব পাওয়া যায়। ২০১৩ সালের ১২ সেপ্টেম্বর প্রকল্পটি বাস্তবায়নের জন্য নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়।


মন্ত্রণালয় প্রকল্পের মূল্যায়ন প্রতিবেদন পর‌্যালোচনার পর এর প্রস্তাবিত প্রকল্পমূল্য ৫৭৯ কোটি টাকা এবং ১০ বছরে পরিশোধযোগ্য মূল্য ১,৭৫৫ কোটি টাকা অত্যধিক বলে অভিমত দিয়েছে। কারণ, ২০১৩ সালে অনুমোদিত প্রস্তাবে প্রকল্পের আওতায় ২২ ধরনের যন্ত্রপাতি, স্থাপনা ও সিস্টেম সরবরাহ ও স্থাপনের বিষয় অন্তর্ভুক্ত ছিল, যার আন্তর্জাতিক বাজারমূল্য ২১০ কোটি টাকা, ১০ বছরের রক্ষণাবেক্ষণ ব্যয় ৪৫ কোটি টাকা এবং ১০ বছর পরে কারিগরী ব্যয় ৭৫ কোটি টাকাসহ মোট ৩৩০ কোটি টাকার প্রাক্কলন করা হয়েছিল।


সার-সংক্ষেপে বলা হয়, প্রকল্পটি পিপিপির আওতায় বাস্তবায়িত হলে আনুমানিক ৭৬ কোটি টাকা বাৎসরিক কিস্তিতে ১০ বছরে মোট ৭৬০ কোটি টাকা পিপিপি পার্টনারকে পরিশোধ করতে হবে।


অন্যদিকে অতিরিক্ত আইটেম ও ভ্যাটসহ প্রকল্পের বর্তমান প্রস্তাবনায় মূল্য ধরা হয়েছে ৫৭৯ কোটি টাকা, যার বিপরীতে পিপিপি পার্টনারকে ১০ বছরে পরিশোধ করতে হবে ১,৭৫৫ কোটি টাকা।


কিন্তু বর্তমান প্রস্তাবনায় প্রকল্পমূল্য বেশি হওয়ায় বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনা করে পিপিপির পরিবর্তে সরকারি অর্থায়নে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন প্রয়োজন বলে সার-সংক্ষেপে উল্লেখ করা হয়েছে।


বিবার্তা/মৌসুমী/হুমায়ুন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com