সুরের মূর্ছনায় মেতেছে বেঙ্গল উৎসব
প্রকাশ : ২৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ০৯:০৮
সুরের মূর্ছনায় মেতেছে বেঙ্গল উৎসব
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

অবশেষে শুরু হয়েছে বেঙ্গল উচ্চাঙ্গ সঙ্গীত উৎসবের ষষ্ঠ আসর। ‘সঙ্গীত জাগায় প্রাণ’ এই স্লোগানে গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকেই ধানমন্ডির আবাহনী মাঠে এবারের উৎসবের পর্দা ওঠে। প্রতিবারের মতো ভোর ৫টা পর্যন্ত চলে উৎসব।


আর্মি স্টেডিয়ামের বদলে এবারে আসর বসেছে ধানমন্ডির আবাহনী মাঠে। সন্ধ্যা থেকেই আসতে শুরু করেন সঙ্গীতপিপাসুরা। ক্রমেই বাড়ছে ভিড়। শ্রোতাদের অভিনন্দন জানাতে বেহালায় আভোগী রাগ তুলে আনেন ভারতের সঙ্গীতজ্ঞ ড. এল সুব্রামানিয়াম। শিল্পীর সঙ্গে মৃদঙ্গমে সঙ্গত করেন রামামূর্তি ধুলিপালা, তবলায় ছিলেন পণ্ডিত তন্ময় বোস এবং মোরসিংয়ে ছিলেন সত্যসাই ঘণ্টাশালা।


উদ্বোধনী এই পরিবেশনা শেষে অর্কেস্টা নিয়ে মঞ্চে আসেন আস্তানা সিম্পনি ফিলহারমোনিক। দলটি প্রথমে সিলেস কাজগালিব রচিত সিম্পোনির কিছু অংশ এবং পি আই চাইকভস্কির বিখ্যাত রচনা ‘সোয়ানলেক’ এর কিয়দংশ পরিবেশন করেন।


এরপর রাত ১০টার পর প্রধান অতিথি হিসেবে আসরের প্রথম রাতের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা, আবাহনী লিমিটেডের চেয়ারম্যান সালমান এফ রহমান, স্কয়ার গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অঞ্জন চৌধুরী এবং আয়োজক প্রতিষ্ঠান বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আবুল খায়ের লিটু।


উৎসবের প্রথম রাতে আরও সঙ্গীত পরিবেশন করবেন রাজরূপা চৌধুরী (সরোদ), বিদুষী পদ্মা তালওয়ালকর (খেয়াল), ফিরোজ খান (সেতার), সুপ্রিয়া দাস (খেয়াল), রাকেশ চৌরাসিয়া (বাঁশি) ও পূর্বায়ণ চ্যাটার্জি (সেতার)।


বেঙ্গল ফাউন্ডেশন আয়োজিত এই উৎসবের নিবেদক স্কয়ার গ্রুপ। সহযোগিতায় রয়েছে ব্র্যাক ব্যাংক। অনুষ্ঠানের প্রচার সহযোগী চ্যানেল আই। গবেষক, চিন্তক ও শিক্ষাবিদ ইমেরিটাস প্রফেসর ড. আনিসুজ্জামানকে এবারের উৎসবটি উৎসর্গ করা হয়েছে।


বিবার্তা/শারমিন


সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com