ঈদে গরুর মাংসের কয়েকটি স্পেশাল রেসিপি
রেসিপি
প্রকাশ : ০৬ আগস্ট ২০১৯, ১৪:৫২
ঈদে গরুর মাংসের কয়েকটি স্পেশাল রেসিপি
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

কোরবানির ঈদের খাওয়া মানেই নানান পদের মাংস রান্না। কম-বেশি সবাই গরুর মাংস খেতে পছন্দ করেন। আর ঈদে তো বাড়িতে গরুর মাংস থাকেই। তাই খাবারে ভিন্নতা আনতে রান্না করুন গরু মাংসের বিভিন্ন পদ।


চলুন ঈদকে সামনে রেখে জেনে নেয়া যাক মাংসের কয়েকটি মজাদার রেসিপি।


কাটা মসলায় গরু ভুনা


উপকরণ
গরুর মাংস এক কেজি, টক দই চার টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি তিন টেবিল চামচ, শুকনো মরিচ কুচি ১০/১২টি, আদা কুচি এক চা চামচ, রসুন কুচি এক চা চামচ, দারুচিনি গুঁড়া এক চা চামচ, হলুদ গুঁড়া সামান্য, জয়ফল গুঁড়া সামান্য, জয়ত্রী গুঁড়া সামান্য, তেল পরিমাণমতো ও লবণ স্বাদমতো।


প্রস্তুত প্রণালী
প্রথমে মাংস ভালো করে ধুয়ে একটি ছাঁকনিতে রাখুন। পানি পুরোপুরি ঝরে গেলে একটি বাটিতে নিন। এর মধ্যে টক দই দিয়ে মেরিনেটের জন্য ৩০ মিনিট ফ্রিজে রেখে দিন। এবার প্যানে তেল গরম করুন। এর মধ্যে মেরিনেট করা মাংস দিয়ে কষাতে থাকুন।


একটু ভাজা ভাজা হলে এর মধ্যে পেঁয়াজ কুচি, আদা কুচি, রসুন কুচি, শুকনো মরিচ কুচি, হলুদ গুঁড়া, জয়ফল ও জয়ত্রী গুঁড়া দিয়ে কষাতে থাকুন। কষানো হয়ে গেলে এতে গরম মসলা গুঁড়া ও লবণ দিয়ে নেড়ে পানি দিয়ে ঢাকা দিয়ে ঢেকে দিন। মাংস সেদ্ধ হয়ে গেলে বাটিতে ঢেলে পোলাওয়ের সঙ্গে পরিবেশন করুন সুস্বাদু কাটা মসলায় গরু ভুনা।



ভিন্ন স্বাদের গরুর মাংস ভুনা


উপকরণ
২ কেজি গরুর মাংস মাঝারী করে কাটা, ২ চা চামচ লবণ, দেড় চা চামচ চিনি, ২ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো, ২ চা চামচ মরিচ গুঁড়ো, ২ টেবিল চামচ বাদাম বাটা, আধা কাপ টক দই।


‪‎মশলার জন্য
৩ টি পেঁয়াজ কুচি, ২ ইঞ্চি আদা কুচি, ৪ টি রসুনের কোয়া কুচি, মরিচ ঝাল বুঝে, ২ টি শুকনো মরিচ, ২ টেবিল চামচ বাদাম বাটা, ২ টেবিল চামচ তেল
‪তরকারীর জন্য, ২ টি পেঁয়াজ কুচি, ২ টেবিল চামচ তেল, লবণ স্বাদমতো, ৪ চা চামচ সয়া সস, ৩ চা চামচ চিনি ও ১ চা চামচ মরিচ গুঁড়ো দিয়ে ফেটানো দেড় কাপ টক দই।


প্রণালী


প্রথমেই, টকদই, বাদাম বাটা, লবণ, চিনি, হলুদগুঁড়ো, মরিচগুঁড়ো একটি বড় বাটিতে মিশিয়ে পেস্টের মতো তৈরি করে নিন। এই মশলায় গরুর মাংস দিয়ে ভালো করে মেরিনেট করে রেখে দিন ২০ মিনিট।


এরপর মসলার জন্য রাখা সব উপকরণ ব্লেন্ডারে ভালো করে ব্লেন্ড করে মসৃণ মিশ্রন তৈরি করে নিন। একটি প্যানে তেল গরম করে এতে পেয়াজ কুচি দিয়ে নরম করে নিন। এরপর এতে মেরিনেট করে রাখা মাংস দিয়ে ভালো করে নেড়ে কষাতে করতে থাকুন। মাংস খানিকক্ষণ নেড়ে নিয়ে আলাদা করে নামিয়ে নিন একটি ডিশে।


একই প্যানে আরও একটু তেল দিয়ে গরম করে বানিয়ে রাখা মশলা দিয়ে ভালো করে নেড়ে কষাতে থাকুন। কিছুক্ষণ পর তরকারীর জন্য রাখা সব উপকরণ দিয়ে ভালো করে নেড়ে মশলা কষিয়ে নিন কয়েক মিনিট। তারপরএতে ফেটিয়ে রাখা টকদই দিয়ে জ্বাল দিতে থাকুন।


ফুটে উঠলে কষিয়ে রাখা মাংস দিয়ে ভালো করে নেড়ে মিশিয়ে নিন এবং ঢাকনা দিয়ে ঢেকে রান্না করতে থাকুন। অল্প থেকে মাঝারি আঁচে মাংস সেদ্ধ হয়ে যাওয়া পর্যন্ত রান্না করুন।


মাংস হয়ে এলে এবং ঝোল শুকিয়ে মাখা মাখা হয়ে এলে নামিয়ে নিন। ব্যস, এবার গরম গরম পরিবেশন করুন রুটি, পরোটা, নান কিংবা পোলাও ও খিচুড়ির সাথে এই সুস্বাদু এই ভিন্ন স্বাদের গরুর মাংস ভুনা।


গরুর গোসতের শাহী রেজালা


উপকরণ
গরুর মাংস -১ কেজি, আদা বাটা-১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা –১ চা চামচ, ধনে বাটা-১ চা চামচ, জিরা বাটা-১ চা চামচ, হলুদ গুড়া-১/২ চা চামচ, পিয়াজ তুচি- ১ কাপ, পোস্তদানা বাটা- ১ টেবিল চামচ, টক দই – ১/২ কাপ, কাচা মরিচ (আধাফালি )- ১৫-২০ টা, কিসমিস – ২ টেবিল চামচ, গরম মসল্লা – ১ চা চামচ, ঘি- ১/২ কাপ, তেল – ১/২ কাপ, মাওয়া- ২ টেবিল চামচ, গোলাপজল- ১ টেবিল চামচ।


প্রস্তুত প্রনালী
তেল, ঘি, পেয়াজ, কাচামরিচ, কিসমিস ছাড়া মাংস ছোট টুকরা করে সব মসল্লা মাখিয়ে ৫-৬ ঘণটা ফ্রিজে রেখে দিতে হবে। হাড়িতে তেল ঘি দিয়ে পিয়াজ বেরেস্তা করে তুলে নিয়ে মাংস দিয়ে কষাতে হবে। বেরেস্তা মিলাতে হবে। কষানো হলে ২-৩ কাপ পানি দিয়ে ঢেকে সিদ্ধ না হওয়া পর্যন্ত অল্প আচে রেখে দিতে হবে ।



আচারি গরুর গোশত


উপকরণ
গরুর রানের মাংস – ১ কেজি, পেঁয়াজ মোটা কুচি – ২ কাপ, টক দই – ২ কাপ, আদা বাটা – ২ চা চামচ, ধনে বাটা – ২ চা চামচ, রসুন বাটা – ১/২ চা চামচ, লবণ – ১ চা চামচ, মেথি – ১/৪ চা চামচ, কালজিরা – ১/৪ চা চামচ, তেল – ১ কাপ, কাঁচামরিচ – ১০/১২ টি, (টক দই না থাকলে ভিনিগার ও লেবুর রস মিলিয়ে ১/২ কাপ দিতে হবে)।


প্রস্তুত প্রণালী
মাংস পাতলা ফালি করে কেটে ধুয়ে পানি চেপে নিন। মাংসে টক দই ও আদাবাটা দিয়ে ৪ ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন। ৪ ঘণ্টা পর ওই মাংসে লবণ, ধনেবাটা, রসুনবাটা ও পেঁয়াজকুচি দিয়ে ভাল করে মাখান। মেথি ও কালোজিরা দিন । এবার তেল ও মরিচ দিয়ে নেরে পানি দিন। তেজপাতাও দিন।


মাংসটি চুলায় বসিয়ে পাত্রের মুখ ঢেকে দিন। এবার মাংসটি ১০ মিনিট মাঝারি আঁচ ও ১ ঘণ্টা হালকা আঁচে রাঁধুন। নেভা আঁচে মাংসও সেদ্ধ হয়ে পানি শুকিয়ে তেল উপরে উঠে আসলে নামিয়ে নিন।


ব্যস, রান্নাতো হলই ! এবার নান রুটি, পরোটা বা পোলাওয়ের সাথে গরম গরম পরিবেশন করুন আচারি মাংস ।


চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মেজবানি মাংস


উপকরণ
গরুর মাংস (হাড়, কলিজা ও চর্বিসহ)- দেড় কেজি, হলুদ গুঁড়া- আধা টেবিল চামচ, মরিচ গুঁড়া- ২ টেবিল চামচ, সরিষার তেল- আধা কাপ, পেঁয়াজ কুচি- আধা কাপ, লবণ- সামান্য, কাঁচামরিচ- কয়েকটি।


মেজবানি মসলা তৈরি উপকরণ
আস্ত ধনে- ১ টেবিল চামচ, জিরা- ১ টেবিল চামচ, মেথি- দেড় চা চামচ, রাঁধুনি- ১ টেবিল চামচ, সাদা সরিষা- দেড় চা চামচ, গোলমরিচ- ১ চা চামচ শুকনা মরিচ- ৫/৬টি, সাদা এলাচ- ৬/৭টি, কালো এলাচ- ২টি, দারুচিনি- বড় ২ টুকরা, লবঙ্গ- ৬/৭টি, জয়ত্রি- ১টি (ছোট), জয়ফল- অর্ধেকটা, তেজপাতা- ২টি।


মাংস মাখানোর উপকরণ
টমেটো- ১টি (ছোট করে কুচি), পেঁয়াজ বাটা- ৩ টেবিল চামচ, আদা বাটা- দেড় টেবিল চামচ, রসুন বাটা- ১ টেবিল চামচ, তেজপাতা- ১টি, কালো এলাচ- ১টি, লবণ- স্বাদ মতো, নারকেল বাটা- ১ টেবিল চামচ, চিনা বাদাম বাটা- দেড় টেবিল চামচ


প্রস্তুত প্রণালি
মেজবানি মসলা তৈরির উপকরণ থেকে একটি তেজপাতা ও একটি কালো এলাচ সরিয়ে রেখে বাকিসব টেলে গ্রিন্ডারে গুঁড়া করে নিন। চাইলে বেটেও নিতে পারেন। মাংস মাখানোর উপকরণ দিয়ে ভালো করে মেখে নিন মাংস।


চুলায় প্যান বসিয়ে গরম করে তেল দিয়ে দিন। তেল গরম হলে পেঁয়াজ কুচি ভেজে নিন। পেঁয়াজ সোনালি হলে হলুদ আর মরিচের গুঁড়া দিয়ে দিন। সামান্য পানি দিয়ে কষিয়ে নিন। এবার মেখে রাখা মাংস দিয়ে দিন প্যানে। সামান্য লবণ দিন। মেজবানি মাংসের মসলা অর্ধেক পরিমাণ দিয়ে দিন। ভালো করে নেড়ে সব উপকরণ মিশিয়ে নিন। প্যান ঢেকে দিন।


আঁচ কমিয়ে ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন। তেল উঠে গেলে ১ কাপ পানি দিয়ে নেড়ে নিন। চুলার আঁচ সামান্য বাড়িয়ে প্যান ঢেকে নিন। এভাবে চুলায় রাখুন ৪০ মিনিট। মাঝে মাঝে নেড়ে দিতে হবে। ৪০ মিনিট পর বাকি মেজবানি মসলা দিয়ে নেড়ে আবারও ঢেকে দিন। আরও ২০ মিনিট রাখুন চুলায়। আস্ত কাঁচামরিচ দিয়ে নেড়ে নামিয়ে নিন সুস্বাদু মেজবানি মাংস। পরিবেশন করুন গরম গরম।



গরুর মাংসের কাবাবি গোস্ত


উপকরণ
গরুর মাংস – ১ কেজি, আদা বাটা – ২ চামচ, রসুন বাটা – ২ চামচ, পেঁয়াজ কুচি – ৪ টেবিল চামচ, দই – ২ কাপ, গরম মশলা – হাফ চামচ, মরিচ গুরা – ১ চামচ, তেজপাতা – ২ টি, চিনি – ১ চা চমচ, লবণ- পরিমানমত, তেল / ঘি – পরিমানমত।


প্রস্তুত প্রনালী
প্রথমে পাত্রে দই ফেটিয়ে নিন এবার দই এর সাথে বাটা এবং গুরা মশলা মিশিয়ে নিন। এবার দই ও মশলার সাথে মাংস দিয়ে ভাল করে মেখে নিন এবার তা ১-২ ঘন্টা রেখে দিন। পাত্রে তেল বা ঘি দিন এবার তা গরম হয়ে আসলে তাতে গরম মশলা ও তেজপাতা দিয়ে দিন এরপর মাখানো মাংস দিয়ে দিন। এবার লবণ ও চিনি দিয়ে দিন তারপর ভাল করে নারতে থাকুন। কসানো হলে পরিমানমত পানি দিয়ে সেদ্ধ করে নিন। পরোপরি সেদ্ধ হয়ে আসলে তেল উপড়ে উঠে আসবে তারপর নামিয়ে নিন।


অনেকে শুধু রেসিপি না জেনে অথবা সময় স্বল্পতা আর অতিরিক্ত ঝুট ঝামেলা এড়িয়ে চলার জন্য নানান পদের মাংস রান্না করতে চান না। ফলে দুই-এক পদের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে। অনেকে আবার রান্না করতে চাইলেও শুধু রেসিপি না জানার কারণে মজাদার গরুর মাংস খাওয়া থেকে বঞ্চিত থাকেন পরিবারের সবাই। কিন্তু এবার আর তা হবে না। রেসিপিগুলো শেয়ার করে রেখে দিতে পারেন কিংবা প্রিন্ট করে রেখে দিতে পারেন।


বিবার্তা/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com