ভালোবাসার উৎসবে রঙিন রাজধানী
প্রকাশ : ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২০:২৮
ভালোবাসার উৎসবে রঙিন রাজধানী
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

বসন্ত উৎসবের রেশ না কাটতেই আজ আবার শহরে উৎসবের আমেজ ছড়িয়েছে ভালোবাসা দিবস। ভালোবাসার আবার নির্দিষ্ট দিনক্ষণ কী? ভালোবাসা কখন, কীভাবে যে কার মন ছুঁয়ে যাবে, তা পুরোপুরিই অনির্ধারিত।


পৃথিবীর তাবৎ প্রেমিক-প্রেমিকাই জানে ভালোবাসার এই অনির্ধারিত গতি, তবু শুধু ভালোবাসাবাসির জন্যই ঠিক করা হয়েছে একটি বিশেষ দিন। আজ সেই বিশেষ দিন, ১৪ ফেব্রুয়ারি। বিশ্ব ভালোবাসা দিবস বা ভ্যালেন্টাইনস ডে।


ভালোবাসার রঙ ছড়িয়ে দিয়েছেন চারদিকে। বেড়ানো-ভ্রমণের পাশাপাশি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, আলোচনা, বৃক্ষ রোপণ, কেক কাটা, ফুল-চকোলেট-পারফিউম-বই উপহার, শুভেচ্ছা কার্ড বিনিময়, অনলাইনে ভালোবাসার কথামালা-বার্তার প্রকাশসহ নানা উপায়ে দিবসটি পালন করেছেন নগরবাসী। বিভিন্ন সংগঠন দিবসটি উপলক্ষে অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।



রবীন্দ্রনাথের সুরে গেয়ে উঠেছেন, 'ভালোবাসি, ভালোবাসি—/এই সুরে কাছে দূরে জলে স্থলে বাজায় বাঁশি/ আকাশে কার বুকের মাঝে ব্যথা বাজে,/ দিগন্তে কার কালো আঁখি আঁখির জলে যায় ভাসি'/ সেই সুরে সাগরকূলে বাঁধন খুলে/ অতল রোদন উঠে দুলে।/ সেই সুরে বাজে মনে অকারণে/ভুলে-যাওয়া গানের বাণী, ভোলা দিনের কাঁদন-হাসি' ....


সারাবিশ্বের মতো বাংলাদেশেও ভালোবাসা দিবসের ছোঁয়া লেগেছে সম্প্রতি। বিশেষ করে শহুরে জীবনে এ দিবসের প্রভাব দিনে দিনে বেড়েই চলছে। তবে গ্রামেও ভালোবাসা দিবসের বিশেষ আয়োজন লক্ষ্য করা যায় এখন।


রাজধানীতে ভালোবাসার আবীর ছড়িয়েছেন তরুণ-তরুণীরা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস, বইমেলা প্রাঙ্গণ, চারুকলা, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান, চন্দ্রিমা উদ্যান, রমনা পার্ক, বোটানিক্যাল গার্ডেন, ধানমন্ডি লেক, বনানী পার্ক, আশুলিয়ার উন্মুক্ত প্রাঙ্গণ, লালবাগ দুর্গ, আহসান মঞ্জিলসহ রাজধানীর উন্মুক্ত ও বেড়ানোর মত জায়গাগুলোতে ঘুরে বেড়িয়েছেন তরুণ-তরুণী, প্রেমিক-প্রেমিকা, স্বামী-স্ত্রী।



এমন দিবসে ভালোবাসার ফুলকেই সাক্ষী মানলো সবাই। ফুলে ফুলে সাজালো ভালোবাসার মন। রাজধানী জুড়েই এখন ভালোবাসার মাখামাখি। বিভিন্ন পার্ক, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মার্কেট, রেস্তোরাঁয় আজ ভালোবাসার ধারা বইল। সে ধারায় ডুব দিল প্রেমের মানুষেরা।


শাহবাগে সঙ্গীকে ভালোবাসার ফুল কিনে দিতে এসেছেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সারোয়ার হোসেন বলছিলেন, আমরা ভালোবাসার বন্ধনে থাকি প্রতিক্ষণেই। তবে আজ ঠিক যেন প্রকাশের দিন। আর ফুল দিয়ে তো ভালোবাসার রূপায়ন মেলে।



রমনা পার্কে বেড়ানো এমনই এক প্রেমিক জুটি সাইফুল ইসলাম ও খাদিজা পারভীন। একজন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, অন্যজন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। উভয়ই জানালেন, তাদের প্রেমের ৫ বছরের প্রতিবছরই দুইজন নিয়ম করে এ দিন একসঙ্গে ঘুরে বেড়ান। পরস্পরকে উপহার দেন। কলেজে পড়ার সময় এ জন্য ক্লাস ফাঁকিও দিতে হয়েছিল! ফাঁকি দিতে হয়েছিল অভিভাবকের চোখ। এখন আর সেই সমস্যা নেই। তাই আনন্দের মাত্রা বেড়েছে বহুগুণ।



তাৎপর্যময় এই দিনের ইতিহাস সাক্ষী দেয় প্রেমিক-প্রেমিকার অনন্ত ভালোবাসাকে। আর তাই তো যে প্রেমিকযুগলের জন্য দিনটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে তাদেরও সবাই আরেকবার স্মরণ করে প্রেমময় অনুভবে।


বিবার্তা/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com