ঈদের জন্য আকর্ষণীয় ৬ মেহেদী ডিজাইন
প্রকাশ : ১৯ জুন ২০১৭, ১৭:৩৯
ঈদের জন্য আকর্ষণীয় ৬ মেহেদী ডিজাইন
লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

বর্তমানে আমাদের সংস্কৃতিতে মেহেদী খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ হয়েছে দাঁড়িয়েছে। আর এ গুরুত্বটা বোঝা যায় বিয়ে, ঈদ, পূজো ও নববর্ষের মত উৎসবগুলোতে। সেই আদিকাল থেকেই মেহেদী দিয়ে হাত রাঙানোর চল চলে আসছে; যার চাহিদা আজও বিন্দুমাত্র কমেনি, বরং বেড়েছে বহুলাংশে।


তবে হ্যা, মেহেদী ব্যবহারের ধরন পাল্টেছে। আগে আমরা মেহেদী দিতাম হাতের মাঝখানে বৃত্ত করে আর প্রতিটি আঙ্গুলে টুপির মতো করে। সেই মেহেদী এখন আর হাতের তালুতে সীমাবদ্ধ নেই। এখন মেহেদী ডিজাইন হাতের কবজি, কনুই এবং কখনো কখনো বাহু পর্যন্ত হয়ে থাকে।


তবে শুধু হাত নয়, মেহেদী ব্যবহার করতে পারেন অন্য জায়গাগুলোতেও। আর জায়গা ভেদে মেহেদী ডিজাইনও হয় বিভিন্ন রকম। সামনেই তো ঈদ। মেহেদীতে হাত রাঙাবেন অনেকেই। তাই আজ রইলো কিছু দৃষ্টিনন্দন মেহেদী ডিজাইন। আশা করছি ডিজাইনগুলো সবার ভালো লাগবে।



১. এই ধরনের ডিজাইন আপনি Engagement, নববর্ষ, ঈদসহ যেকোন বিশেষ দিনে আপনার হাতে ব্যবহার করতে পারেন যা মানুষের মনোযোগকে আপনার হাতের দিকে আকর্ষণ করতে সাহায্য করবে।



২. হাতের বাহুতে করতে পারেন এই নকশা।



৩. এই ধরনের নকশা আপনি আপনার পিঠে বা কাঁধে করিয়ে নিতে পারেন।এবং আশা করি এই ধরনের নকশা করিয়ে আপনি আপনার কাছের মানুষকে চমকিয়ে দিতে পারবেন।



৪. এটি একটি অসাধারন ডিজাইন।বিয়েসহ যেকোন অনুষ্ঠানে এই ডিজাইনটি করিয়ে নিতে পারেন আপনার হাতের দুইপাশে।



৫. এখন অনেকেই হাতের পাশাপাশি পায়েও মেহেদী পরতে পছন্দ করেন। তাই যারা পছন্দ করেন তারা এইরকম ডিজাইন বেছে নিতে পারেন যেকোন অনুষ্ঠানের জন্য।


মেহেদী দেয়ার পর যা করবেন
> মেহেদী দেয়ার কিছুক্ষণ পরই হাত ধুয়ে ফেলবেন না। কমপক্ষে ৬ ঘণ্টা হাতে রাখার চেষ্টা করুন। সম্ভব হলে রাতে দিয়ে পরের দিন সকালে তা তুলে ফেলুন। মনে রাখবেন, মেহেদী যত বেশি সময় হাতে রাখবেন তত বেশি গাঢ় রং হবে।


> মেহেদী দেয়ার পর অনেকে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে থাকেন। এটা ঠিক নয়। কেননা সাবানের ক্ষারীয় উপাদান মেহেদির রং ফিকে করে দেয়।


> চিনি, লেবুর পানি মেহেদীর রং কে গাঢ় করে থাকে। আবার খুব বেশি মেহেদীতে এর রঙ খয়েরি হয়ে যায়। যা দেখতে একদমই ভালো না।


> মেহেদী শুকানোর জন্য কখনই হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করবেন না। এতে আপনার ডিজাইন নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তবে প্রয়োজনে ফ্যান ব্যবহার করতে পারেন।


সতর্কতা
মেহেদীতে অনেকের অ্যালার্জি থাকে। ফলে র‍্যাশসহ নানা উপদ্রব দেখা দেয়। তাই ব্যবহারের আগেই সচেতন হোন। বিশেষ করে শিশুদের হাতে মেহেদী লাগাতে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করুন। মেহেদী লাগানোর আগে হাতে পায়ে ল্যাকটো ক্যালামাইন ব্র্যান্ডের লোশন ব্যবহার করুন। ত্বকের সমস্যা এড়াতে ভালো মানের টিউবি মেহেদী ব্যবহার করুন, ভালো থাকুন।


বিবার্তা/জাকিয়া/যুথি

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com