শীতে পেশিতে টান পড়লে যা করা দরকার
প্রকাশ : ১২ জানুয়ারি ২০২০, ১৭:৪৮
শীতে পেশিতে টান পড়লে যা করা দরকার
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

দৌঁড়াতে গিয়ে হোক কিংবা ভারী কিছু তুলতে গিয়ে হোক, হঠাৎ টান লেগে যেতে পারে পা বা পিঠের পেশিতে। ঘুমানোর সময় কিংবা গোসল করে মাথা মোছার সময় কাঁধেরও পেশিতে টান লাগতে পারে। পেশিতে টান পড়ার সমস্যা কমবেশি সবারই আছে।


সাধারণত পেশির মধ্যে পানির পরিমাণ কমে গেলে, পেশি তার স্থিতিস্থাপকতা হারায়। সে কারণেই প্রয়োজন মতো সংকোচন-প্রসারণ করে উঠতে পারে না। আর এজন্য হঠাৎ প্রসারণের ফলে সেখানে আঘাত লাগে। পেশিতে প্রয়োজনীয় মিনারেল বা খনিজ পদার্থের অভাবেও এই সমস্যা হতে পারে।


শীতে পেশিতে টান পড়ার ঘটনা একটু বেশিই ঘটে থাকে। তবে গরমকালেও যে কেউ এই সমস্যায় ভুগতে পারেন। পেশিতে টান পড়লে ব্যথা অনুভুত হয়। ব্যথা নিরাময়ে পেশিতে টান পড়লে যা করবেন-


পেশির দরকার পানি:


শরীর যদি সঠিকভাবে হাইড্রেটেড থাকে, তাহলে টান লাগলেও ব্যথার পরিমাণ খুব বেশি হয় না। তবে পর্যাপ্ত পানি থাকলেও পেশির ব্যথা হতে পারে। তবে যখনই পিপাসা লাগবে, অল্প করে হলেও পানি পান করুন। এক্ষেত্রে পেশির ফ্লেক্সিবিলিটি বাড়বে।


নজর দিতে হবে লবণ-চিনিতে:


পেশির ফ্লেক্সিবিলিটি বা স্থিতিস্থাপকতা বজায় রাখার জন্য দরকার লবণ। কারণ এই লবণে থাকে ইলেকট্রোলাইটস। পেশির কোষের মধ্যে পানি কীভাবে ঢুকবে, কতটা ঢুকবে, কতটাই বা বের হবে, তার পুরোটা নিয়ন্ত্রণ করে এই ইলেকট্রোলাইটস। তাই সোডিয়ামের মতো লবণের শরীরে উপস্থিতিটা খুব দরকারি। না হলে শরীর ডিহাইড্রেট হয়ে যাবে। চাইলে লবণ-চিনির পানিও খেতে পারেন।


ব্যায়াম বা স্ট্রেচিং:


যারা নিয়মিত স্ট্রেচিং বা যোগাসন করেন, তাদের পেশির স্থিতিস্থাপকতা অন্যদের তুলনায় বেশি। এবং শরীরের চাহিদাতেই তারা বেশি পরিমাণে ফ্লুইড নিতে বাধ্য হন। সব মিলিয়ে পেশির গুণগত মান তাতে ভালো হয়। তাই এই স্ট্রেচিং-এর দিকে নজর দিতে পারেন। এতে পেশির টান থেকে অনেকটাই মুক্তি পাবেন।


মাল্টি ভিটামিনের উপকার:


চিকিৎসকের পরামর্শে মাল্টি ভিটামিন খাওয়াটাও পেশির টানের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার অন্যতম ভালো উপায়। কারণ সহজলভ্য মাল্টি ভিটামিনের মধ্যে সঠিক পরিমাণে ক্যালসিয়াম আর ম্যাগনেসিয়াম থাকে। এই দুটি যৌগই পেশির স্থিতিস্থাপকতা বাড়াতে সাহায্য করে।


কার্বোহাইড্রেটে ‘না’ নয়:


ভাত বা পাস্তা খেলে শরীর ভারী হয়ে যায়। এমনটাই মনে করেন অনেকে।আসলে এরা কিন্তু আপনার পেশির জন্য খুবই দরকারি। এই ধরনের হাই-কার্বোহাইড্রেট খাবারগুলো পেশিকে দ্রুত পুষ্টি জোগায়। পেশির আঘাত সামলে ওঠার জন্য যে প্রয়োজনীয় উপাদানের দরকার হয়, তা-ও পাওয়া যায়, এই কার্বোহাইড্রেট থেকে।


বিবার্তা/সোহেল/জাই

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanews24@gmail.com ​, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com