হাইকোর্টে রিটে বৈধতা পেলেন ১১ প্রার্থী
প্রকাশ : ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৯:০৫
হাইকোর্টে রিটে বৈধতা পেলেন ১১ প্রার্থী
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

নির্বাচন কমিশনে (ইসি) বাতিল হওয়ার পর হাইকোর্টে রিট আবেদন করে মনোনয়নপত্রের বৈধতা ফিরে পেয়েছেন দল মনোনীত ও স্বতন্ত্র ১১ প্রার্থী। ফলে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে তাদের আর বাধা নেই বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।


তবে তাদের মধ্যে বিএনপির চারজনের এবং জাতীয় পার্টির একজনের নাম নির্বাচন কমিশনে জমা দেয়া দলীয় প্রার্থীর চূড়ান্ত তালিকায় রাখা হয়নি।


নির্বাচন কমিশনে আপিল করেও যারা প্রার্থিতা ফিরে পাননি, তাদের অনেকেই রবিবার হাইকোর্টে রিট আবেদন করেছেন। শুনানি শেষে তাদের মধ্যে ১১ জনের ক্ষেত্রে ইসির সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছে আদালত।


নির্বাচনে অংশ নিতে যাদের বাধা কাটল তারা হলেন- নীলফামারী-৪ আসনের বিএনপি প্রার্থী সৈয়দপুর পৌরসভার মেয়র আমজাদ হোসেন সরকার, দিনাজপুর-৩ আসনে বিএনপির প্রার্থী ও দিনাজপুর সদরের মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম, নীলফামারী-৩ (জলঢাকা) আসনে উপজেলা বিএনপির সভাপতি পৌর মেয়র ফাহমিদ ফয়সাল চৌধুরী, নওগাঁ-৫ আসনে বিএনপির প্রার্থী নওগাঁ পৌরসভার মেয়র নাজমুল হক, পঞ্চগড়-১ আসনের বিএনপির প্রার্থী পঞ্চগড় সদরের মেয়র তৌহিদুল ইসলাম, বগুড়া-৭ (গাবতলী-শাজাহানপুর) আসনের বিএনপির প্রার্থী শাহজাহানপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বাদল সরকার, বগুড়া-৩ আসনে বিএনপির আব্দুল মুহিত তালুকদার, কুড়িগ্রাম-৪ (রাজিবপুর, রৌমারী ও চিলমারী উপজেলা) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকার, টাঙ্গাইল-৮ (সখীপুর-বাসাইল) আসনের জাতীয় পার্টির প্রার্থী কাজী আশরাফ সিদ্দিকী, নওগাঁ-৪ আসনে স্বতস্ত্র প্রার্থী আফজাল হোসেন এবং একেএম মাহফুজুর রহমান (আসনের তথ্য পাওয়া যায়নি)।


সেইসাথে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার তিনটি রিটসহ মোট ১৪টি রিট আজ সোমবার শুনানির জন্য দিন নির্ধারণ করেছে আদালত। এছাড়াও শুনানি নিয়ে চার প্রার্থীর রিট খারিজ, দুইজনের আবেদন তালিকা থেকে বাদ এবং একজনের প্রার্থিতা বাতিল করেছে আদালত।


নির্বাচনে অংশ নিতে চাওয়া প্রার্থীদের পৃথক পৃথক রিটের শুনানি নিয়ে রবিবার হাইকোর্টের বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি মোহাম্মদ সোহরাওয়ার্দীর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ দুই প্রার্থীর মনোনয়ন গ্রহণের নির্দেশ দেন।


অপরদিকে হাইকোর্টের বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ আরো নয় প্রার্থীর মনোনয়নপত্র গ্রহণের নির্দেশ দেন।


আদালতে রিটকারীদের আবেদনের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন- সিনিয়র আইনজীবী আব্দুল বাসেত মজুমদার, সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এ এফ হাসান আরিফ, ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল প্রমুখ। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।


বিএনপির অধিকাংশ নেতার বিরুদ্ধে মামলা থাকায় ‘ভোটের কৌশলের’ অংশ হিসেবে এবার ৩০০ আসনের সবগুলোতেই বিএনপি বিকল্প প্রার্থী দিয়েছিল। জোটের আসন ভাগাভাগির খেলায় আওয়ামী লীগও দেড় ডজন আসনে একাধিক প্রার্থীকে প্রাথমিক মনোনয়ন দিয়েছিল।


রবিবার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনই চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা জমা দেয়ার বাধ্যবাধকতা ছিল নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর জন্য।


চূড়ান্ত তালিকায় যাদের নাম থাকবে কেবল তাদেরকেই ওই দলের প্রার্থী বিবেচনা করে প্রতীক বরাদ্দ করার কথা ইসির।


বিবার্তা/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com