ক্যামেরার পিছনের কারিগরদের দিনকাল...
প্রকাশ : ২৮ আগস্ট ২০১৯, ১৭:২৪
ক্যামেরার পিছনের কারিগরদের দিনকাল...
খলিলুর রহমান
প্রিন্ট অ-অ+

ভিডিও সম্পাদনা একটি দৃষ্টিনন্দন শিল্প।এটা অনেকটা ফুলের তোড়া বানানোর মতো।বেছে নেয়া বিভিন্ন ধরনের ফুল, চমৎকার কিছু পাতা, একটি ঝকঝকে ঝুড়ি।তারপর এসবগুলোর নিজস্বতা ধরে রেখে আরো সুন্দর করে তোলা।যদিও আমরা কখনোই ভাবি না কে ফুলের তোড়াটা বানিয়েছে, এর পেছনে কে বা কারা কাজ করেছেন, কিন্তু বলি তোড়াটা ভীষণ সুন্দর হয়েছে।


একইভাবে টিভির বিভিন্ন অনুষ্ঠান, সচিত্র প্রতিবেদন, নাটক, মিউজিক ভিডিও এবং চলচ্চিত্র সম্পাদনা যারা করে থাকেন তারা পর্দার পেছনের মানুষ।তাদের অফুরন্ত ধৈর্য, গবেষণা এবং সৃজনশীল কাজের মাধ্যমেদেখি সুন্দর সুন্দর নাটক, মিউজিক ভিডিও।


মিডিয়া পাড়ায় এমনই একজন খুব পরিচিত মুখ, ভিডিও সম্পাদক এম এ রশিদ। তিনি বহু বছর ধরে রাজত্ব করে আসছেন মিডিয়া জগতে।বর্তমানে তিনি দুরন্ত টিভিতে ভিডিও সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।তার হাতের ছোঁয়ায় তৈরি হয়েছে অসংখ্য দৃষ্টিনন্দন শৈল্পিক ভিডিও।


সম্প্রতি বিবার্তার মুখোমুখি হন এই ভিডিও সম্পাদক এম এ রশিদ। দীর্ঘ আলাপে উঠে আসে ভিডিও সম্পাদনার খুঁটিনাটি নানান বিষয়। আলাপের কিছু অংশ পাঠকদের কাছে তুলে ধরা হলো।



বিবার্তা : আপনি দুরন্ত টিভিতে কাজ করছেন। এখানকার কাজের মান সম্পর্কে জানতে চাই।


এম এ রশিদ : আলহামদুল্লিাহ অল্প দিনের মধ্যে মানুষের কাছে ‘দুরন্ত টিভি’ খুবই জনপ্রিয়তা লাভ করেছে।এখানকার কাজের মান সম্পর্কে জানতে চাইলে বলবো, বাংলাদেশে একটি মাত্র বেসরকারি টিভি চ্যানেল যেটি ১-২ মাসের মধ্যে টিআরপি ১ নম্বরে এসেছে। এখানে প্রতিটি কাজ অনেক যত্নসহকারে এবং কাজ নিয়ে প্রচুর গবেষণা করতে হয়।শিশুদের জন্য অনুষ্ঠানমালা সাজালেও পরিবারের সকলে যাতে অনুষ্ঠানটি এক সাথে বসে দেখতে পারে সে উপযোগী করে তৈরি করা হয়।আর বর্তমান ব্যস্ততা আমার টিভি চ্যানেলের কাজগুলো নিয়েই।


বিবার্তা : এ পেশায় কাজ করতে কী কী জানা জরুরি?


এম এ রশিদ : কেউ এই পেশায় কাজ করতে চাইলে তার কাজের প্রতি আন্তরিকতা ও ভালোবাসা থাকতে হবে।প্রযুক্তির পরিবর্তন হলেই নিজেকে পরিবর্তন করতে হয়।ভিডিও সম্পাদনা সফটওয়্যার সম্পর্কে ভালোভাবে নিজের আয়ত্তে আনতে হবে।দেশি-বিদেশি সিনেমা, নাটক, ডকুমেন্টারি, শর্টফ্লিম অনুশীলন করতে হবে। প্রযুক্তির যুগে ইন্টারনেটে ভিডিও সম্পাদনা সম্পর্কে বিভিন্ন ভাষায় বিভিন্ন ধরনের টিউটোরিয়াল পাওয়া যায়, প্রতিদিন ২-৩ ঘন্টা করে অনুশীলন করতে পারলে ভিডিও সম্পাদনা সম্পর্কে ভালো আইডিয়া পাওয়া যাবে।সবচেয়ে বেশি যেটার দরকার সেটা হলো, একজন ভিডিও সম্পাদকের অফুরন্ত ধৈর্য থাকতে হবে।হাজারো ভুল সংশোধনের উদ্যমী এবং অসাধারণ পর্যবেক্ষণ ক্ষমতার অধিকারী হতে হবে।দেখতে হবে দেশি-বিদেশি সিনেমা, নাটক এবং বিভিন্ন টেলিভিশন। আধুনিক প্রযুক্তির সঙ্গে থাকতে হবে।আলোচনা করতে হবে সেগুলো নিয়ে।


বিবার্তা : ভিডিও সম্পাদনার চ্যালেঞ্জগুলো কী ?


এম এ রশিদ : বাস্তব জীবনে আমাদের বিভিন্ন সময়ে নানা ধরনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হয়। নানা ধরনের সমস্যার সমাধান বের করতে হয়। তেমনি ভিডিও সম্পাদনায়ও চ্যালেঞ্জ আছে। যেমন- সাহিত্যে যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন চিন্তাধারা আর সেই ধারাবাহিকতায় ভিডিও সম্পাদকরাও নতুন নতুন চিন্তাচেতনার প্রকাশ ঘটান। যা হুবহু গল্পটাকে বাস্তবে তুলে ধরার চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিজেকে আত্মপ্রকাশ করে শিল্প-সাহিত্য ও জ্ঞান-বিজ্ঞান বিষয়ে চলমান ধারাকে চ্যালেঞ্জ করে ব্যতিক্রমধর্মী চিন্তাধারা ভিজুয়ালাইজের মাধ্যমে ব্যক্ত করার একটা চ্যালেঞ্জ। চ্যালেঞ্জিং শব্দটি কঠিন হলেও সমাধানযোগ্য ও ভবিষ্যতের সুফল চাবিকাঠি।



বিবার্তা : এ পেশায় মাসে কত টাকা আয় করা সম্ভব?


এম এ রশিদ : একজন শিক্ষানবিশ ভিডিও সম্পাদক ১৮-২০ হাজার টাকা শুরু করে পরবর্তী সময়ে ৭০-৮০ হাজার ও ১-২ লাখ টাকার ও অধিক আয় করতে পারেন। যার কাজের কোয়ালিটি যত ভালো এবং যে যত বেশি ক্লায়েন্ট ম্যানেজ করতে পারেন তার আয়ের উৎস দিন দিন তত বেশি বাড়তে থাকে।


বিবার্তা : আপনার সেরা কিছু কাজ. . .


এম এ রশিদ : সিনেমা বলতে গেলে শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস অভিনিত শাফি উদ্দিন শাফি পরিচালনায় ‘ভালোবাসা এক্সপ্রেস’ সম্পাদনায় তৌহিদ হোসেন চৌধুরী ও অনলাইন সম্পাদনা আমি ছিলাম এবং সুপার কমেডি ও বিনোদনে ভরপুর নাটক আদিবাসি মিজান-এর পরিচালনায় মোশারফ করিম অভিনীত- ‘হাতবদল’,‘আসিতেছে তারাখান’ ও চিত্রনায়ক আমিন খান অভিনিত ‘চোখ’।



বিবার্তা : যারা এ পেশায় আসতে চায় তাদের প্রতি আপনার পরামর্শ কী?


এম এ রশিদ : প্রযুক্তির বিকাশের সঙ্গে নিজেকে আপগ্রেড করে নিতে পারলে সব সময় সৃজনশীলতার বিকাশ ঘটানো সম্ভব।ভিডিও সম্পাদনা এমন একটি পেশা যেখানে আপনি এ পেশায় জড়িয়ে থাকতে পারেন।তেমনি বর্তমান সময়সাময়িক কারিগরি শিক্ষার আধুনিকতার সম্ভাবনাময় ক্যারিয়ার ‘ভিডিও সম্পাদনা’ বাংলাদেশে টিভি চ্যানেলের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে।ফলে বর্তমান সময়ে ভিডিও সম্পাদকদের প্রসারও প্রচার ঘটছে অত্যন্ত দ্রুত গতিতে। প্রতিটি টিভি-চ্যানেলে মোটামুটি ২০ থেকে ৩০ জন ভিডিও সম্পাদক রয়েছে। একটা চ্যানেলে ৫ ধরনের ক্যাটাগরিতে ভিডিও সম্পাদক নেয়া হয়। এগুলো হলো, ভিডিও সম্পাদক ইনচার্জ, সিনিয়র ভিডিও সম্পাদক, ভিডিও সম্পাদক, জুনিয়র ভিডিও সম্পাদক এবং নতুন যারা আসতে চায় ফ্রেশার বা শিক্ষানবিশ সেখানে তাদের নিয়োগ দেয়া হয়। এছাড়াও অনেকগুলো প্রযোজনা সংস্থা ও মিডিয়া হাউজ রয়েছে যেখানে নির্মাণ করে থাকে নাটক, ডকুমেন্টারি, রিয়েলিটি-শো, বিজ্ঞাপন, সিনেমা ইত্যাদি। সবগুলোতেই প্রয়োজন দক্ষ ভিডিও সম্পাদক।


ভিডিও সম্পাদনা এমন একটি পেশা যেটির চাহিদা রয়েছে বিশ্বব্যাপী।এ পেশায় ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ রয়েছে অনেক বেশি। রয়েছে খ্যাতি, সুনাম, পরিচিতির সাথে রয়েছে উজ্জল ভবিষ্যৎ। সৃজনশীলতা বরাবরই আপনাকে আকাশ ছোঁয়াতে পারে।যে যতো ভালো কাজ করবে সে ততো আর্থিক সুযোগ-সুবিধা লাভ করবে। আপনার শুধু থাকতে হবে স্থির চিন্তা শক্তি ও অটুট আত্মবিশ্বাস।তাই আপনি শুরু থেকেই চমকপ্রদ এক ভবিষ্যতের স্বপ্ন দেখতেই পারেন। প্রযুক্তি আপনার জন্য; আপনি প্রযুক্তির জন্য। কারিগরি শিক্ষা গ্রহণ করি; বেকারত্ব সমাজ গড়ি, সাহসিকতাই হবে আপনার সাফল্যের প্রাপ্তি।


বিবার্তা : আপনার এমন কোনো দুঃখ আছে যেটি এখনো তাড়িয়ে বেড়ায়?


এম এ রশিদ : অনেক প্রাপ্তির মাঝেও জীবনে কিছু না বলা দুঃখ-কষ্ট থাকবেই, এটাই স্বাভাবিক। আর সেটাতো সব সময়েই তাড়া করবে। মিডিয়া একটি মাত্র পেশা যেটিতে জীবনের সবকিছু এমনকি নিজের যৌবন বিসর্জন দিয়ে অন্যের ভালো লাগাটা ও অন্যের দৃষ্টিনন্দন করে তুলে যুগে যুগে কাজ করে যাচ্ছেন ‘ভিডিও সম্পাদক’রা। দুঃখের বিষয়ে হলো, কোনো পত্রিকা বা মিডিয়া তাদের কাজ ও ভালোমন্দ নিয়ে লেখে না। অথচ এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ পেশা ও কাজ যেটিকে ঘিরেই দর্শার্থীরা আনন্দ ও বিনোদন উপভোগ করে থাকেন। এটি মাঝে মাঝে আমাকে তাড়িয়ে বেড়ায়।


বিবার্তা : এত ব্যস্ততার মাঝেও সময় দেয়ার জন্য বিবার্তা পরিবারের সকলের পক্ষ থেকে আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।


এম এ রশিদ : আপনাকে ও সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ।


বিবার্তা/খলিল/উজ্জ্বল/জাই

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com