ইন্টারনেটে ভুয়া খবরের শিকার ৮৬ শতাংশ মানুষ
প্রকাশ : ১৭ জুন ২০১৯, ১০:৩০
ইন্টারনেটে ভুয়া খবরের শিকার ৮৬ শতাংশ মানুষ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

দিন কয়েক আগেই শ্রীলঙ্কার সাবেক ক্রিকেটার সনৎ জয়সুরিয়াকে টুইটারে বিবৃতি দিয়ে জানাতে হয়েছে, তিনি বেঁচে আছেন। কারণ গাড়ির ধাক্কায় কানাডার হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়েছে বলে টুইটারে খবর ছড়িয়েছিল হুহু করে।


আবার পুরনো কোনো দুর্ঘটনার ছবি মাঝেমাঝেই ফেসবুকে ফিরে আসে। সঙ্গে লেখা থাকে ‘অমুক জায়গায় ভয়াবহ দুর্ঘটনা’।


ভুয়া খবরের রাজত্ব ইন্টারনেটে। সম্প্রতি ২৫টি দেশের ২৫ হাজার মানুষকে নিয়ে সমীক্ষা চালিয়েছিল একটি যুক্তরাজ্যের থিঙ্ক ট্যাঙ্ক।


গত বছরের ২১ ডিসেম্বর থেকে এই বছরের ১০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চালানো সেই সমীক্ষায় উঠে এসেছে, সারা বিশ্বের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের মধ্যে ৮৬ শতাংশই ভুয়া খবরের শিকার হয়ে চলেছেন। এই সব খবরের বেশির ভাগই ছড়াচ্ছে ফেসবুকে। তাছাড়া ইউটিউব, টুইটার ও ব্লগেও ভুয়া খবরের রমরমা।


সমীক্ষা বলছে, বেশির ভাগ ভুয়া খবর ছড়াচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র থেকে। তারপরেই রয়েছে রাশিয়া ও চীন।


ভুয়া খবরে প্রতারিত হতে হতে ইন্টারনেটের উপরে ক্রমশ আস্থা হারাচ্ছে সাধারণ মানুষ। তার প্রভাব পড়ছে অর্থনীতি ও রাজনৈতিক চর্চায়। সরকার ও সোশ্যাল মিডিয়া সংস্থাগুলোর তাই অবিলম্বে সক্রিয় হওয়া প্রয়োজন বলে মনে করছে থিঙ্ক ট্যাঙ্কটি।


থিঙ্ক ট্যাঙ্কটির ফেন অসলার হ্যাম্পসন বলেন, এ বছরের সমীক্ষা শুধু ইন্টারনেট কতটা ভঙ্গুর, সেই প্রশ্নটাই তুলে ধরেনি। দেখা গেছে, সোশ্যাল মিডিয়া সংস্থাগুলো দৈনন্দিন জীবনে তথা ব্যক্তি-পরিসরে যেভাবে ছড়ি ঘোরাচ্ছে, তা নিয়ে প্রবল অস্বস্তিতে সাধারণ মানুষ।


সমীক্ষকেরা দেখেছেন, সবচেয়ে সহজে প্রভাবিত হচ্ছেন মিশরের মানুষেরা। আর সবচেয়ে বেশি সন্দেহগ্রস্ত পাকিস্তানিরা।


কিন্তু ব্যক্তিগত জীবনে সামাজিক মাধ্যম সংস্থার উঁকিঝুঁকি এবং ইন্টারনেট জুড়ে অবিশ্বাসের জাল যে বহু দূর ছড়িয়ে গিয়েছে, সমীক্ষার প্রয়োজনে মুখোমুখি ও অনলাইনে নেয়া সাক্ষাৎকারগুলো তা স্পষ্ট করে দিয়েছে। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা


বিবার্তা/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanews24@gmail.com ​, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com