শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৯০
প্রকাশ : ২২ এপ্রিল ২০১৯, ০৯:৫৮
শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৯০
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোয় ইস্টার সানডে চলার সময় কয়েক দফা ভয়াবহ বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৯০ জনে দাঁড়িয়েছে। নিহতদের মধ্যে ৩৫ জন বিদেশি নাগরিক রয়েছে।


রবিবার সকালে চালানো এ হামলায় আহত হয়েছে প্রায় ৫০০ জন। মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।


এদিকে এ ঘটনার পর দেশজুড়ে কারফিউ জারি করা হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত কারফিউ চলবে। সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।


সমন্বিত এই হামলা কারা চালিয়েছে, সে ব্যাপারে দেশটির সরকার সোমবার সকাল পর্যন্ত স্পষ্ট করে কোনো কিছু বলতে পারেনি। সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, তারা ধারণা করছে, কয়েকটি স্থানে হামলায় আত্মঘাতী বোমা ব্যবহার করা হয়েছে।


দেশটির পুলিশ জানিয়েছে, হামলার ঘটনায় গতকাল পর্যন্ত তারা ১৩ জনকে গ্রেফতার করেছে। তবে গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তিরা কারা, কী তাদের নাম-পরিচয়, তা জানায়নি পুলিশ।


শ্রীলঙ্কার এই নারকীয় হত্যাযজ্ঞের নিন্দা করে শোক প্রকাশ করেছেন বিশ্ব নেতারা। তারা শ্রীলঙ্কাকে যেকোনো সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন।



শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী রানিল বিক্রমাসিংহে রবিবার রাতে বলেছিলেন, সম্ভাব্য একটি হামলার বিষয়ে নিরাপত্তা বাহিনীগুলোর কাছে সতর্কতামূলক তথ্য ছিল। এখন তার সরকারের প্রধান কাজ হামলাকারীদের ধরা।


গুজব বা মিথ্যা খবর ঠেকাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোয় কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ ও ফেসবুকের মতো জনপ্রিয় সেবাগুলো।


এদিকে দেশটির প্রধান বিমানবন্দরের কাছাকাছি এলাকা থেকে রবিবার একটি হাতে বানানো বোমা নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির বিমানবাহিনী।


পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, বিমানবন্দরের প্রধান টার্মিনালে যাওয়ার পথে পাইপ বোমাটি ফেলে রাখা হয়েছিল। এটি ছিল একটি হাতে তৈরি বোমা যেখানে একটি পাইপের ভেতর বিস্ফোরক ঢোকানো হয়েছিল।


খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম বড় উৎসব ইস্টার সানডে উদযাপনের সময় এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। প্রথম হামলা হয় স্থানীয় সময় সকাল পৌনে ৯টায়।


তিনটি গির্জায় অন্তত ছয়টি বিস্ফোরণ হয়েছে। যে গির্জাগুলোতে বিস্ফোরণ হয়েছে সেগুলো কোচ্চিকাডে, নেগম্বো এবং বাট্টিকালোয়ায় অবস্থিত। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া নেগম্বোর সেন্ট সেবাস্টিয়ান গির্জার ছাদ বিধ্বস্ত হয়েছে এবং রক্ত ছড়িয়ে আছে।


এছাড়া রাজধানী কলম্বোতে অবস্থিত তিনটি পাঁচ তারকা হোটেলে বিস্ফোরণ হয়েছে। পরে আরও দুই স্থানে হামলা হয়।


২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কায় গৃহযুদ্ধ শেষ হওয়ার পর এটাই সবচেয়ে রক্তক্ষয়ী ভয়াবহ হামলা। সূত্র: বিবিসি


বিবার্তা/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

বি-৮, ইউরেকা হোমস, ২/এফ/১, 

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com