ইতালিতে সেতু ধসে নিহত ৩৫
প্রকাশ : ১৫ আগস্ট ২০১৮, ১৩:২৪
ইতালিতে সেতু ধসে নিহত ৩৫
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

ইতালির জেনোয়া শহরের কাছে একটি গুরুত্বপূর্ণ মহাসড়কের ওপর একটি সেতু ধসে পড়ার পর অন্তত ৩৫ জন নিহত হয়েছে। সেতুটি ধসে পড়ার সময় বেশ কয়েকটি গাড়ি ১০০ মিটার ওপর থেকে নিচে পড়ে যায়।


জেনোয়া শহরের কাছে লিগুয়া এলাকায় মঙ্গলবার সেতুটি ধসে পড়ে। এতে ১৬ জন আহত হয়েছে এবং এখনো নিখোঁজ রয়েছে চার থেকে ১২ জন।


এ সময় ওই এলাকায় প্রবল মৌসুমী ঝড়, বৃষ্টি ও বজ্রপাত চলছিল। স্থানীয়ভাবে মোরানদি ব্রিজ নামে পরিচিত এই ফ্লাইওভারটির ২শ’ মিটারের বেশি অংশ ভেঙ্গে নিচে রেললাইনের ওপর পড়ে। ঘটনার পরপরই উদ্ধার অভিযান শুরু হয়।


ইতালি সরকার এটিকে ‘মর্মান্তিক ট্রাজেডি’ হিসেবে বর্ণনা করেছে।


উদ্ধারকারীরা ধ্বংসস্তূপ, খামারভূমি ও রেলট্রাক থেকে হতাহতদের উদ্ধার করে। হেলিকপ্টারের মাধ্যমে বিধ্বস্ত সেতুর খণ্ড সরিয়ে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।


ট্রাক, গাড়ি ও হাজার হাজার টন কংক্রিটের স্তূপ একাকার হয়ে আছে, পাশ্ববর্তী ভবনগুলোও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। দুর্ঘটনার সময় ব্রিজটিতে আট থেকে নয়টি গাড়ি ছিল। উদ্ধারকারীরা ধ্বংসস্তূপের নিচে আরো জীবিত মানুষ রয়েছে বলে ধারণা করছেন।



ফায়ার সার্ভিসের এক মুখপাত্র এএফপিকে বলেন, সেতুর বেশিরভাগ অংশ প্রায় ১৫০ মিটার নিচে রেলট্রাকের ওপর পড়েছে।


সেতুটি ২০১৬ সালে সংস্কার করা হয়। এটি তৈরি হয়েছিল ১৯৬০’এর দশকে। ইতালির এ-টেন মহাসড়কের ওপর এটির অবস্থান। ইটালিয়ান রিভিয়েরা এবং ফ্রান্সের দক্ষিণ উপকূলকে যুক্ত করেছে এই মহাসড়ক। সেতুটির যে অংশটি ধসে পড়েছে, সেটি ছিল পোলসেভেরা নদীর উপর।


সরকারের শরিকদল ন্যাশনালিস্ট লীগ পার্টির নেতা সালভিনি বলেন, এই বিপর্যয়ের জন্য সংশ্লিষ্টদের জবাবদিহি করতে হবে। ইতালির প্রধানমন্ত্রী গুইসেপ কন্তে বলেন, এটি একটি মর্মান্তিক ট্রাজেডি, আমাদের মতো একটি আধুনিক দেশে এটি অকল্পনীয় ঘটনা।


একজন প্রত্যক্ষদর্শী পিতেত্রো এম আলআসা জানান, তীব্র বজ্রপাত হচ্ছিল, তখন আমরা সেতুটি ধসে যেতে দেখি। সূত্র: এএফপি ও বিবিসি


বিবার্তা/জাকিয়া


>>ইতালিতে সেতু ধসে ১০ জনের মৃত্যু

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com