বিক্ষোভের আশঙ্কায় ট্রাম্পের ব্রিটেন সফর বাতিল
প্রকাশ : ১২ জানুয়ারি ২০১৮, ১৭:৩৬
বিক্ষোভের আশঙ্কায় ট্রাম্পের ব্রিটেন সফর বাতিল
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

বিক্ষোভের আশঙ্কায় ব্রিটেন সফর বাতিল করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। শুক্রবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে এক বিশেষ বার্তায় সফর বাতিলের ঘোষণা দেন তিনি। লন্ডনে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন দূতাবাস উদ্বোধন করার কথা ছিল তার।


যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পরই ব্রিটেনের মেয়র ও লন্ডনবাসীদের নিয়ে কটু মন্তব্য করেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এরপর থেকে লন্ডনের বিভিন্ন স্থানে ট্রাম্পবিরোধী বিক্ষোভ হয়। লন্ডনের মেয়র সাদিক খানকে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না - এমন ঘোষণাও দিয়েছিলেন ট্রাম্প। এরপর লন্ডনের লোকজন ও বেশ কয়েকজন এমপি ''ট্রাম্পকে লন্ডনে আসতে দেয়া হবে না'' বলে পাল্টা ঘোষণা দিয়েছিলেন।


এক বছর আগে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে ওয়াশিংটন সফরে যান। সেখানে তিনি ট্রাম্পকে ব্রিটেন সফরের আমন্ত্রণ জানিয়ে আসেন। ট্রাম্প থেরেসা মে'র আমন্ত্রণ গ্রহণ করেন। আগামী ফেব্রুয়ারিতে ট্রাম্পের আসার কথা ছিল। এদিকে ট্রাম্প আসার খবর পেয়ে ব্রিটেনে ট্রাম্পবিরোধীরা বিক্ষোভের প্রস্তুতি নেয়। বেশ কয়েকজন ব্রিটিশ এমপি ট্রাম্পকে বয়কট করার ঘোষণা দেন। তারা ট্রাম্পকে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে বক্তব্য রাখতে দেবেন না বলে জানান।


লন্ডনের মেয়র সাদিক খান বলেন, লন্ডনের মানুষ আমেরিকাকে ভালোবাসে, তারা আমেরিকান মূল্যবোধকে সম্মান করে। কিন্তু ট্রাম্পের কর্মকাণ্ড ও তার প্রতিক্রিয়া সবকিছুর বিপরীত। লন্ডন বহু ভাষাভাষী মানুষের দেশ, বহু সংস্কৃতির দেশ। ট্রাম্প যে ধরনের লোক তার সঙ্গে লন্ডনের চরিত্র মেলে না। তিনি একজন বর্ণবিদ্বেষী ও অসহিষ্ণু লোক। লন্ডনে এলে তাকে বিক্ষোভের মুখে পড়তে হবে। এই ম্যাসেজ তিনি পেয়ে গেছেন, যে কারণে তিনি লন্ডন সফর বাতিল করেছেন।


তবে লন্ডনে না আসার জন্য ট্রাম্প দায়ী করেছেন পূর্ববর্তী প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে। বারাক ওবামা নাকি বিনা কারণে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। অথচ দূতাবাস সরানোর সিদ্ধান্ত ছিল সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ ডাব্লিউ বুশের।


ব্রিটিশ সরকারের এক মুখপাত্র বলেন, ট্রাম্পের সফর বাতিল হয়নি, পিছিয়ে গেছে। এই সফর কবে হবে এখনো ঠিক হয়নি।


ওদিকে ওয়াশিংটন থেকে বলা হয়, আমন্ত্রণ গ্রহণ করা হয়েছে তবে সময়সূচি ঠিক করার কাজ চলছে। ব্রিটিশ সরকারের একাধিক সূত্র বলছে, দূতাবাস উদ্বোধনের জন্য মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসনকে পাঠানো হতে পারে। সূত্র : গার্ডিয়ান


বিবার্তা/সুমন/হুমায়ুন/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com