কম্পনে কেঁপে উঠলো মধ্যপ্রাচ্য
বছরের ভয়ঙ্করতম ভূমিকম্পে মানবিক সংকট
প্রকাশ : ১৪ নভেম্বর ২০১৭, ০২:৩৩
বছরের ভয়ঙ্করতম ভূমিকম্পে মানবিক সংকট
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

ইরান-ইরাক সীমান্তে শক্তিশালী ভূমিকম্প ও সৃষ্ট ভূমিধসে মৃতের সংখ্যা ৪৫০ ছাড়িয়েছে। আহতের সংখ্যা প্রায় ১০ হাজার। তাছাড়া এক দাতব্য সংস্থা জানিয়েছে, ৭০ হাজারেরও বেশি মানুষের 'জরুরি মানবিক সাহায্য' প্রয়োজন।


রিখটার স্কেলে এ ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৩। মার্কিন ভূ-তাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা জানায়, ইরাকের কুর্দিস্তানের হালাবজা নগরীর ৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে স্থানীয় সময় রবিবার রাত ৯টা ১৮ মিনিটের দিকে এ ভূমিকম্প আঘাত হানে। এ সময় বেশির ভাগ মানুষই বাড়িতে অবস্থান করছিলেন।


তবে সবচেয়ে বেশি হতাহতের ঘটনা ঘটেছে ইরানের পশ্চিমাঞ্চলের কেরমানশাহ প্রদেশের সারপুল-ই-জাহাব এ। সেখানে সোমবার বিকেল পর্যন্ত ৪৪৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আহত হয়েছেন ৭ হাজারেরও বেশি মানুষ। ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকা পড়ে আছেন আরো বহু মানুষ।


রাজধানী তেহরানসহ দেশটির অন্যান্য প্রদেশেও এ ভূমিকম্প আঘাত করে। এমনকি তুরস্ক, কুয়েত, আর্মেনিয়া, জর্ডান, লেবানন, সৌদি আরব, কাতার ও বাহরাইনেও এ কম্পন টের পাওয়া গিয়েছে।


ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খোমেনী এ দুর্যোগ মোকাবেলায় দেশবাসীকে 'সমস্ত সামর্থ নিয়ে এগিয়ে আসার' আহ্বান জানিয়েছেন।


ওদিকে ইরাকের কুর্দিস্তানে ৭ জন নিহত ও ৩০০ জন আহত হবার খবর পাওয়া গেছে। তাছাড়া ভূমিকম্পের সময় বাগদাদের বেশিভাগ মানুষই রাস্তায় নেমে আসে। স্থানীয়রা জানিয়েছে, ভূমিকম্পের ভয়াবহতায় বাগদাদের মসজিদগুলোতে আজান দেয়া হচ্ছিলো।


বাগদাদের তিন সন্তানের মা মাজেদা আমির সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে বলছিলেন, আমি আমার সন্তানদের নিয়ে রাতের খাবার শেষ করে বসেছিলাম। হঠাৎ করেই দেখি ভবনটা দুলছে। আমি প্রথমে ভেবেছিলাম আশেপাশে কোথাও বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। তবে আশেপাশের সবাই ভূমিকম্প বলে চিৎকার করছিলো।


ইরানের জরুরি সেবার প্রধান পীর হোসাইন কলিভান্ড জানান, ভূমিধসের কারণে রাস্তা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অনেক এলাকা পুরোপুরি যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন। ফলে তাদের পক্ষে উদ্ধার দল পাঠানো কঠিন হয়ে পড়েছে।


জানা যায়, ভূমিকম্প কবলিত এলাকায় রেডক্রসের ৩০টি দলকে পাঠানো হয়েছে।


ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি ভূমিকম্প কবলিত এলাকাগুলোতে জরুরি ত্রাণ ও উদ্ধার তৎপরতা চালানোর জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুররেজা রাহমানি ফাজলিকে তরিৎ নির্দেশ দিয়েছেন।


ইরানের ভূমিকম্প বিষয়ক কেন্দ্র জানিয়েছে, এ পর্যন্ত ১১৮টি পরাঘাত রেকর্ড করেছে তারা এবং আরো পরাঘাত হবার আশঙ্কা রয়েছে। সূত্র: প্রেস টিভি, রয়টার্স, বিবিসি, ইরনা, এএফপি


বিবার্তা/শাহনেওয়াজ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com