রাফাল চুক্তি নিয়ে ওঁলাদের দাবিতে অস্বস্তিতে মোদি সরকার
প্রকাশ : ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১২:০৬
রাফাল চুক্তি নিয়ে ওঁলাদের দাবিতে অস্বস্তিতে মোদি সরকার
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

ফ্রান্সের সাবেক প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলাঁদ বলেছেন, ভারত সরকারই অনিল আম্বানির রিলায়েন্স ডিফেন্সকে রাফাল চুক্তিতে সহযোগী হিসেবে চেয়েছিল। এ বিষয়ে ফ্রান্সের কিছুই বলার ছিল না।


ফ্রান্সের সংবাদ সংস্থা মিডিয়াপার্টকে ওঁলাদ শুক্রবার জানিয়েছেন, ভারত সরকারের তরফ থেকেই সার্ভিস গ্রুপের নাম প্রস্তাব করা হয়েছিল। এরপর ডসাল্ট আম্বানির সঙ্গে আলোচনা করে। তাদের অন্য কোনো পছন্দ ছিল না। মধ্যস্থতাকারী হিসেবে তাদেরকে যাকে দেয়া হয়েছিল, তার সঙ্গেই কথা বলা শুরু হয়।


ফ্রান্সের ডসাল্ট অ্যাভিয়েশনের তৈরি ৩৬টি রাফালে যুদ্ধ বিমান কেনার জন্য ভারত ও ফ্রান্সের মধ্যে চুক্তি হয়েছিল।


ফ্রান্সের সংবাদ সংস্থা মিডিয়াপার্টে তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ফ্রান্সের সাবেক ডেসিডেন্টের বক্তব্য ভারতীয় কর্তৃপক্ষের বক্তব্যের বিপরীত। কেননা ভারতীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ডসাল্টই রিলায়েন্সকে বেছে নিয়েছে।


এ প্রসঙ্গে ফ্রান্সের সংবাদ সংস্থা আগস্ট থেকে অনিল আম্বানির দাবির কথাও তুলে ধরেছে। যেখানে আম্বানি বলেছেন, এই চুক্তিতে ভারতীয় সংস্থাকে বেছে নেয়ার ক্ষেত্রে প্রতিরক্ষামন্ত্রণালয়ের কোনো ভূমিকাই নেই।


প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, রাফালে চুক্তিতে ডসাল্টের অংশীদারিত্ব নিতে নিয়ে ওঁলাদের বক্তব্য খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে এ বিষয়ে ভারত কিংবা ফ্রান্সের সরকার কোনো ব্যবসায়িক সিদ্ধান্ত নেয়নি বলেও জানানো হয়েছে।



ফরাসি প্রসিডেন্টের ওই বক্তব্য প্রকাশ্যে আসতেই সরগরম হয়ে ওঠে ভারতের রাজনৈতিক মহল। টুইট করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিশানা করেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী।


তিনি লেখেন, প্রধানমন্ত্রী মোদি বন্ধ দরজার ভেতরে রাফাল চুক্তি কাটাছেঁড়া করেন। ফ্রাসোয়াঁ ওলাঁদকে ধন্যবাদ। আমরা জানতে পারলাম, কয়েক কোটি রুপির চুক্তি দেনাগ্রস্ত অনিল আম্বানিকে পাইয়ে দেয়া হয়েছে। ভারতের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন প্রধানমন্ত্রী। সেনাবাহিনীর আত্মত্যাগের রক্তের অসম্মান করেছেন।


ফরাসি সরকারের তরফে এক বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, ২০১৬ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর ভারত ও ফরাসি সরকারের মধ্যে ৩৬টি রাফাল যুদ্ধবিমান কেনার চুক্তি হয়। সেখানে রাফালের অংশীদারী সংস্থা বাছার ক্ষেত্রে ফরাসি সরকারের কোনো হাত ছিল না। এক্ষেত্রে কোনো অংশীদার খুঁজে নেয়ার অধিকার ডসল্টের রয়েছে।


অন্যদিকে ডসল্ট এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ভারতের মেক ইন ইন্ডিয়া প্রকল্পের আওতায় ডসল্ট রিলায়েন্সকেই বেছে নিয়েছে। এর ফলে ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে তৈরি হয়েছে ডসল্ট রিলায়েন্স এরোস্পেস লিমিটেড। নাগপুরে দুই কোম্পানি রাফাল তৈরির জন্য একটি প্ল্যান্টও তৈরি করেছে।


কংগ্রেসের দাবি, মোদি প্রায় তিনগুণ বেশি দামে ৩৬টি রাফাল কেনায় কোষাগারের ৪১ হাজার কোটি রুপি ক্ষতি হয়েছে। বাকি ৯০টি বিমান ভারতে তৈরির বরাত পেয়ে অনিলের সংস্থা কামাতে চলেছে প্রায় ৩০ হাজার কোটি রুপি।


সাক্ষাৎকার প্রকাশ্যে আসার পর সমালোচনায় সরব হয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালও। তিনি বলেছেন, গুরুত্বপূর্ণ তথ্য গোপন করে দেশের নিরাপত্তার সঙ্গে আপস করেছে মোদি সরকার। সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া ও জি নিউজ


বিবার্তা/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com