করোনা: বাংলাদেশ মেডিকেলে নার্সদের নেই সুরক্ষা পোশাক
প্রকাশ : ২২ মার্চ ২০২০, ১৪:৪৬
করোনা: বাংলাদেশ মেডিকেলে নার্সদের নেই সুরক্ষা পোশাক
খলিলুর রহমান
প্রিন্ট অ-অ+

সারা বিশ্বে করোনাভাইরাস মহামারি আকার ধারণ করেছে। তবে তা মোকাবেলায় চিকিৎসক ও নার্সরা হিমশিম খাচ্ছেন। চিকিৎসা দিতে গিয়ে চিকিৎসক ও নার্সদের সুরক্ষা পোশাক ব্যবহার করতে হচ্ছেন। এ ধারাবাকিতায় বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকরা এ পোশাক ব্যবহার করছেন। কিন্তু হাসপাতালে চিকিৎসকরা এ পোশাক ব্যবহার করলেও নার্সরা বৈষ্যমের শিকার হচ্ছেন। সুরক্ষা পোশাক ছাড়াই তারা দায়িত্ব পালন করছেন। তবে দায়িত্ব পালনে অনেকেই অপারগতা প্রকাশ করলে চাকরি হারাবার ভয় দেখাচ্ছেন কর্তৃপক্ষ। হাসপতাল সূত্র বিবার্তাকে এমন তথ্য জানিয়েছেন।



জানা গেছে, গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী সনাক্ত করা হয়। এরপর থেকে দেশের হাসপাতালগুলোর চিকিৎসক ও নার্সরা নড়েচড়ে বসেন। তবে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তারা মানুষের সেবা করে গেলে কিছু কিছু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এখনো রয়েছেন সুখ নিদ্রায়। এরমধ্যে বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল একটি।


করোনা নিয়ে বাংলাদেশ মেডিকেল সম্পর্কে আরো জানতে ক্লিক করুন...


বাংলাদেশ মেডিকেলে করোনার আঘাত!


সূত্রমতে, করোনা মোকাবেলায় ওই হাসপাতালে তেমন কোনো উদ্যোগ নেয়া হয়নি। তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি, তারা করোনা রোগীদের জন্য আলাদা একটি কক্ষ নির্ধারণ করেছে। এছাড়াও ওইখানে নির্ধারিত কয়েকজন চিকিৎসক রাখা হয়েছে। বাস্তবে এমন কোনো চিত্র হাসপাতালে দেখা মেলেনি।



এছাড়াও করোনাভাইরাস মোকাবিলায় চিকিৎসকদের পারসোনাল প্রটেকটিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই্) দেয়া হয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনো নার্সকে পিপিই দেয়া হয়নি। এতে আতঙ্ক নিয়েই দায়িত্ব পালন করছেন নার্সরা। পর্যাপ্ত পিপিই সরবরাহ না থাকায় নার্সদের দেয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।


হাসপাতালের ব্রাদার ও নার্সদের দাবি, তাদের যেন শিগগির সুরক্ষারর জন্য প্রয়োজনীয় পোশাকের ব্যবস্থা করা হয়। কারণ নার্সদের দিয়ে ২৪ ঘন্টাই সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করানো হচ্ছে। তাদের ভাষ্য, স্বাস্থ্য সুরক্ষার পোশাকের ব্যবস্থা করতে না পারলে তাদের জেনো পোশাক তৈরির অনুমতি দেয়া হয়। তবে নাম প্রকাশ করলে চাকরি হারানোর ভয়ে কেউ নাম প্রকাশ করতে চাচ্ছেন না। তবে সবাই আতঙ্কে দায়িত্ব পালন করছেন।


করোনা নিয়ে বাংলাদেশ মেডিকেল সম্পর্কে আরো জানতে ক্লিক করুন...


বাংলাদেশ মেডিকেলে করোনার আঘাত!


এদিকে ইতোমধ্যেই সব ডাক্তারদের সুরক্ষার পোশাক, বিশেষায়িত মাস্ক দেয়া হয়েছে। এমন একপেশে অচরণে ক্ষোভ প্রকাশ করছে বাংলাদেশ মেডিকেলের নার্স, ব্রাদার, এটেন্টডেন্সসহ অন্যান্য কর্মচারীরা। মেডিকেলটির কর্মচারী সংগঠনটির নেতাদের কাছে নার্সরা অভিযোগ করলে সেটা তারাও বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন না। তবে দ্রুত সময়ের মধ্যে পিপিই সংগ্রহ করে নার্সদের দেয়া হবে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা।



রবিবার (২২ মার্চ) দুপুরে বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপদেষ্টা ইঞ্জিনিয়ার শাহেদ কামাল বিবার্তাকে বলেন, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সরকারের পক্ষ থেকে হাসপাতালগুলোতে যে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে; তা মেনেই কার্যক্রম চালানো হচ্ছে। তবে চিকিৎসক ও নার্সের সুরক্ষার জন্য যেসব পোশাক দরকার তা সরবরা করতে একটু সময় লাগছে। আশাকরি দুই-একদিনের মধ্যেই সুরাক্ষা পোশাক সরবরাহ হয়ে যাবে। আর এই সপ্তাহের মধ্যেই সংশ্লিষ্টদের কাছে তা পৌঁছে দেয়া হবে বলেও জানান তিনি।


করোনা নিয়ে বাংলাদেশ মেডিকেল সম্পর্কে আরো জানতে ক্লিক করুন...


বাংলাদেশ মেডিকেলে করোনার আঘাত!


উল্লেখ্য, বাংলাদেশে করোনাভাইরাস সনাক্ত হওয়ার পর থেকে মোট তিনজন মারা গেছেন। সর্বশেষ রবিবার ভোর রাতে সিলেটে এক নারী মারা গেছেন। তিনি যুক্তরাজ্য প্রবাসী ছিলেন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।


বিবার্তা/খলিল/জাহিদ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanews24@gmail.com ​, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com