গণতন্ত্র চর্চায় গণমাধ্যম একটি বড় প্রতিষ্ঠান: জিএম কাদের
প্রকাশ : ০২ আগস্ট ২০১৯, ২০:২৩
গণতন্ত্র চর্চায় গণমাধ্যম একটি বড় প্রতিষ্ঠান: জিএম কাদের
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

বিবার্তার অষ্টম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শুভেচ্ছা জানিয়ে জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেছেন, গণমাধ্যমকে আমরা সমাজের দর্পণ হিসেবে মনে করি। সমাজে কী ঘটছে এবং কী ঘটছে না তার চিত্র গণমাধ্যমে দেখতে পাই। যা দেখে একটা সমাজকে মূল্যায়ন করা যায়। কিন্তু দর্পণটা যদি কোনো কারণে অস্বচ্ছ হয়, তাহলে ছবির মানটা ভালো আসবে না। সমাজে কী ঘটছে তা সঠিকভাবে দেখতে পাব না।


শুক্রবার (২ আগস্ট) বিকেলে রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডের দীপনপুরে বিবার্তা২৪ডটনেটের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিবার্তার সম্পাদক বাণী ইয়াসমিন হাসি।


গণতন্ত্র চর্চার জন্য গণমাধ্যম একটি বড় মাপের প্রতিষ্ঠান উল্লেখ করে কাদের বলেন, সমাজের মানুষ সুশাসন চায়। সেই সুশাসন কীভাবে প্রতিষ্ঠা করব, তার একটি হচ্ছে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা।



গণতন্ত্র হচ্ছে ন্যায়বিচারভিত্তিক সমাজ ব্যবস্থা। সেখানে বৈষম্য থাকবে না, দারিদ্র্য থাকবে না, কোনো বঞ্চনা থাকবে না, নির্যাতন থাকবে না। এগুলো প্রতিষ্ঠিত করাকে সুশাসন বলে।


কাদের বলেন, আমরা গণতন্ত্র চর্চা করি সুশাসন প্রতিষ্ঠা করার জন্য। গণতন্ত্র ও সুশাসন প্রতিষ্ঠার জন্য গণমাধ্যম সহায়ক ভূমিকা পালন করে।


অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন- সাবেক তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু, নাটোর-৪ (বড়াইগ্রাম-গুরুদাসপুর) আসনের সংসদ সদস্য, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাবেক প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক আবদুল কুদ্দুস প্রমুখ।



এছাড়াও বক্তব্য রাখেন ছাত্রমৈত্রীর সাবেক সভাপতি বাপ্পাদিত্য বসু, ঢাবির রোকেয়া হল সংসদের এজিএস ফাল্গুনী দাস তন্বী, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ দক্ষিণের সদস্য জোবায়দুল হক রাসেল প্রমুখ।


বিশিষ্ট সাংবাদিক বাণী ইয়াসমিন হাসির নেতৃত্বে ২০১১ সালের ২ আগস্ট ‘সারাবেলা সব খবর’ স্লোগানে যাত্রা শুরু করে বিবার্তা২৪ডটনেট।


বিবার্তা/রবি/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com