ভিন্ন রকম এক অভিজ্ঞতা
প্রকাশ : ৩১ জুলাই ২০১৯, ১৭:০১
ভিন্ন রকম এক অভিজ্ঞতা
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

গত কয়েকদিন ধরে শরীরে জ্বর জ্বর ভাব এবং সাথে হাত-পা সহ শরীরের বিভিন্ন অংশে ব্যথা।ঢাকা মেডিকেল কলেজের দুই ছোট ভাইয়ের পরামর্শে গতকাল বাসার কাছে ইসলামী ব্যাংক স্পেশালাইজড হাসপাতালে ডেঙ্গুর (IgG & IgM )টেস্ট করতে দিয়ে আসলাম। বিল করলো ১ হাজার ২০টাকা।


আজ ১২ টায় (৩১ জুলাই)রিপোর্ট দেয়ার কথা। ১২ টার দিকে যাওয়ার পর রিসিপশান থেকে রিসিট দেখে বললো আপনার রিপোর্ট এখনো আসে নাই।কিছুক্ষণ অপেক্ষা করেন। এমন সময় ভ্রাম্রমাণ আদালতের একটি টিম হাসপাতালে প্রবেশ করে রিসিপশন কাউন্টারের কম্পিউটারসহ বিভিন্ন ডিপার্টমেন্টে অনুসন্ধান চালায়।



রিপোর্ট আসতে দেরী হওয়ায় হাসপাতালের একজন কর্মকর্তা আমি সহ আরো কয়েকজনের রিসিট নিয়ে একজন নিরাপত্তা রক্ষীকে ল্যাবে পাঠাই। আমিও রিপোর্ট নিয়ে চলে যাওয়ার সুবিধার্থে তার সাথে গেলাম। সে আমারে ল্যাবের সামনে দাঁড় করিয়ে রেখে ভিতরে রিপোর্ট আনতে গেল। আগে থেকে ল্যাবে অবস্থান করা ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট রিসিট দেখে ভিতরে ডেকে বললো আপনার কাছ থেকে দুইটা টেস্টে একত্রে ৫০০ টাকা নেয়ার কথা। যেহেতু আমার কাছ থেকে ১০০০টাকা রাখছে, তাই কর্তৃপক্ষকে বললো ৫০০টাকা ফেরত দিতে।


টাকাটা ফেরত নেয়ার সময় ভাবছি এত বড় একটা মহামারী অবস্থায়ও আমাদের দেশের হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ব্যবসায়ীর পাশাপাশি একটুও মানবিক হতে পারেনি। যা সত্যিই দুঃখজনক। হয়তো সামর্থ্য না থাকায় অনেকেই এই ৫০০টাকার জন্য প্রয়োজন থাকার পরও ডেঙ্গুর টেস্ট টা করছে না বা করতে পারছেনা। তাছাড়া বাসার কাছাকাছি হওয়ায় এবং পরিবেশ ভালো থাকায় বিভিন্ন সময় প্রয়োজনে এই হাসপাতালের সেবাই গ্রহণ করি। তাদের প্রতি বিশ্বাসটাও নষ্ট হলো।(বি.দ্র. ২টা পর্যন্ত অপেক্ষা করেও রিপোর্ট না পেয়ে বাসায় চলে এসেছি।বিকেলে আবার যাব)।


মিনহাজুল ইসলাম ভুইয়ার ফেসবুক থেকে নেয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com