সেবা নিতে কেন খরচ হবে ১৫৮ টাকা?
প্রকাশ : ০৪ অক্টোবর ২০১৮, ১২:২০
সেবা নিতে কেন খরচ হবে ১৫৮ টাকা?
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

মোবাইল ফোন নম্বর ঠিক রেখে অপারেটর বদলের সেবা নিতে গ্রাহককে সিম পরিবর্তন, ট্যাক্স ও ভ্যাট বাবদ গুনতে হবে ১৫৮ টাকা। একবার অপারেটর পরিবর্তন করে অন্য অপারেটরে গেলে কমপক্ষে ৯০ দিন থাকতে হবে। প্রতিবার অপারেটর পরিবর্তনের সময় নতুন সিম নিতে হবে।


সম্প্রতি বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই সেবার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন বিটিআরসির চেয়ারম্যান মো. জহরুল হক।


জুলাই মাসে এমএনপি নীতিমালা চূড়ান্ত করার সময় বলা হয়েছিল- গ্রাহককে অপারেটর বদল সেবা নিতে ৩০ টাকা ফি দিতে হবে। কিন্তু এটি চালুর সময় জানানো হলো ফি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫০ টাকা।


ফি বাড়ানোর কারণ সাংবাদিকরা জানতে চাইলে বিটিআরসির চেয়ারম্যান বলেন, এমএনপি সেবার চালুর জন্য আমরা টাকা খুব বেশি বাড়াইনি। প্রথমে যে ব্যবস্থা করা হয়েছিল অনেক আগে, তখন ৩০ টাকা ফি নির্ধারিত করা হয়েছিল। পরে বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা করে দেখা গেছে, যে প্রতিষ্ঠানকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে তাদের জন্য এই সেবা ব্যবসা সফল হবে না। তাই ২০ টাকা বাড়িয়ে ফি ৫০ টাকা করা হয়েছে। আমরা যদি দেখি তাদের ব্যবসা বেশি হচ্ছে তখন ফি কমিয়ে দেবো।


এই সেবা নিতে একজন গ্রাহকের কত খরচ হবে জানতে চাইলে মো. জহরুল হক বলেন, একজন অপারেটর যদি এই সেবা উপভোগ করতে চান তবে সংশ্লিষ্ট অপারেটরের কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে গিয়ে সিম রিপ্লেসমেন্টে করে আনতে হবে। এজন্য তাকে ১৫৮ টাকা খরচ দিতে হবে। এর মধ্যে ১০০ টাকা সিম ট্যাক্স। ৫০ টাকা এমএনপি চার্জ। আর বাকি ৮ টাকা ভ্যাট।


বিটিআরসি চেয়ারম্যান জানান, কোনো গ্রাহক অপারেটর পরিবর্তন করলেও বিকাশের মত মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসে (এমএফএস) কোনো প্রভাব পড়বে না। অর্থাৎ এই এমএফএন সার্ভিসের মাধ্যমে আগের মতই অর্থ লেনদেন করা যাবে।


যেহেতু গ্রাহকের অপারেটর বদল হচ্ছে এবং তার তথ্য নতুন একটি অপারেটরে যাচ্ছে। তাই গ্রাহককে এমএনপির জন্য নতুন সিম তুলতে হবে বলে জানিয়েছে এমএনপি সেবার দায়িত্ব পাওয়া প্রতিষ্ঠান ইনফোজিলিয়ন বিডি-টেলিটেক।


প্রতিষ্ঠানটি বলছে, গ্রাহক যে অপারেটরে যেতে চান, তাদের গ্রাহকসেবা কেন্দ্রে গিয়ে ফি দিয়ে সিম তুলতে হবে। সিম পেতে একজন গ্রাহকের সর্বোচ্চ ৫ মিনিট সময় লাগবে এবং ৭২ ঘণ্টার মধ্যে তা সক্রিয় হবে।


এ সেবার নিয়মানুযায়ী, পুনরায় অপারেটর পরিবর্তন করতে হলে গ্রাহককে ৯০ দিন অপেক্ষা করতে হবে।


গত নভেম্বরে এমএনপি সেবার লাইসেন্স পায় বাংলাদেশ ও স্লোভেনিয়ার কনসোর্টিয়াম ইনফোজিলিয়ন বিডি-টেলিটেক। আগস্টে এ সেবা শুরুর কথা থাকলেও নির্দেশনা ও নেটওয়ার্ক জটিলতার কারণে তা গতকাল থেকে শুরু হয়।


বর্তমানে বিশ্বের প্রায় ৭২ দেশে এ সেবাটি চালু রয়েছে। প্রতিবেশী দেশ ভারতে ২০১১ সালে এবং পাকিস্তানে ওই সেবা ২০০৭ সাল থেকে চালু রয়েছে।


বিবার্তা/উজ্জ্বল/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com