একের পর এক নতুন চলচ্চিত্রে অমিত হাসান
প্রকাশ : ২৩ অক্টোবর ২০১৮, ০৯:৪৫
একের পর এক নতুন চলচ্চিত্রে অমিত হাসান
অভি মঈনুদ্দীন
প্রিন্ট অ-অ+

একের পর এক নতুন নতুন চলচ্চিত্রে অভিনয়ে সম্পৃক্ত হচ্ছেন জনপ্রিয় নায়ক অমিত হাসান। এই মুহূর্তে একসঙ্গে নতুন পাঁচটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের সাথে যুক্ত হয়েছেন তিনি। নতুন পাঁচটি চলচ্চিত্র হচ্ছে শাহীন সুমনের ‘একটু প্রেম দরকার’, শামীম আহমেদ রনির ‘শাহেনশাহ’, উত্তম আকাশের ‘বয়ফ্রেন্ড’, আবুল কালাম আজাদের ‘ও মাই ডার্লিং’ ও টুকুর ‘জনতার নায়ক’। প্রতিটি চলচ্চিত্রেই অমিত হাসানকে ভিন্ন ভিন্ন চরিত্রে অভিনয়ে দেখা যাবে বলে জানান তিনি।


প্রতিটি চলচ্চিত্রের কাজ এরইমধ্যে শুরুও করেছেন অমিত হাসান। বিশেষ করে বিএফডিসিতে বিশাল সেট ফেলে শাহীন সুমনের ‘একটু প্রেম দরকার’ চলচ্চিত্রের শুটিংয়ে যেদিন অমিত হাসান অংশ নেন তখন সেই শুটিং সেট দেখতেই অনেকেই বিএফডিসিতে উপস্থিত হয়েছিলেন। অনেক মানুষের সমাগম সেদিন অমিত হাসানকে অনেক অনুপ্রাণিতও করেছিলো বলে জানান তিনি।


‘একটু প্রেম দরকার’র একজন নেতার চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি যা চলচ্চিত্রটির জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্র। অমিত জানান, একটু প্রেম দরকার চলচ্চিত্রের মতোই অন্যান্য চলচ্চিত্রগুলোতেও তার চরিত্র ঠিক তেমনি গুরুত্বপূর্ণ। অমিত হাসান আবারো পুরো দস্তুর ব্যস্ত হয়ে উঠেছেন।


অমিত হাসান বলেন, আমার পেশাই অভিনয়। সারা জীবন ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েই অভিনয় করে যেতে চাই। অভিনয় করে বিগত তিন দশক ধরে দর্শকের যে ভালোবাসা পাচ্ছি আমি তাতে ধন্য আমি। দর্শকের ভালোবাসার মাঝেই আমি আজীবন বেঁচে থাকতে চাই। আর আগামী দিনের পথচলায় চলচ্চিত্র পরিবারের সহযোগিতা চাই, চাই সাংবাদিক ভাই বোনদের সহযোগিতা। একজন শিল্পী সবার সহযোগিতাতেই নিজেকে পরিপূর্ণ করে তুলতে পারেন। আমিও ঠিক তাই চাই।



এদিকে নতুন চলচ্চিত্রগুলো ছাড়াও অমিত হাসান মনতাজুর রহমান আকবরের ‘মাই ডার্লিং’ চলচ্চিত্রের কাজও করছেন। এর সত্তর ভাগ কাজও প্রায় শেষ করেছেন অমিত হাসান। শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের কিছু কাজ শেষ হলেই এই চলচ্চিত্রের কাজ শেষ হবে। এরইমধ্যে প্রায় শেষ মোস্তাফিজুর রহমান বাবুর ‘বিধ্বস্ত’ চলচ্চিত্রের কাজ।


১৯৮৬ সালে ‘নতুন মুখের সন্ধানে’ কার্যক্রমের মধ্যদিয়ে টাঙ্গাইলের ছেলে অমিত হাসানের চলচ্চিত্রের সাথে সম্পৃক্ততা ঘটে। ১৯৯০ সালের ৫ জানুয়ারি তার অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র ‘চেতনা’ মুক্তি পায়। এটি নির্মাণ করেছিলেন ছটকু আহমেদ। ‘চেতনা’তে অমিত হাসানের বিপরীতে ছিলেন হাসি। সেই হিসেবে পেশাগতভাবে চলচ্চিত্রে অমিত হাসানের পথচলা ২৮ বছর।


অমিত হাসানের ব্যবসা সফল দশটি চলচ্চিত্র হচ্ছে ‘উজান ভাটি’, ‘শেষ ঠিকানা’, ‘আত্মসাৎ’, ‘আত্মত্যাগ’, ‘তুমি শুধু তুমি’, ‘জিদ্দী’, ‘ভালোবাসার ঘর’, ‘হিংসা’ ‘জ্যোতি’ ও ‘ভুলোনা আমায়’। এসব চলচ্চিত্রে তার বিপরীতে মৌসুমী, শাবনূর, শাহনাজ ও পপি অভিনয় করেছেন।


ছবি : মোহসীন আহমেদ কাওছার


বিবার্তা/আমিনুল/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com